ঢাকা, সোমবার, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ১০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

বিনোদন

ভরপুর বিনোদন ও প্রতিশোধের সিনেমা ‘বিউটি সার্কাস’

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০১২৮ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২২
ভরপুর বিনোদন ও প্রতিশোধের সিনেমা ‘বিউটি সার্কাস’ ছবি: ডি এইচ বাদল/বাংলানিউজ

ঢাকা: দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর অবশেষে মুক্তি পেতে যাচ্ছে জয়া আহসান অভিনীত ও বসুন্ধরা গুঁড়া মশলা নিবেদিত সিনেমা ‘বিউটি সার্কাস’। সরকারি অনুদান ও ইমপ্রেস টেলিফিল্মের প্রযোজনায় নির্মিত সিনেমাটি আগামী ২৩ সেপ্টেম্বর প্রেক্ষাগৃহে আসছে।

এর মাধ্যমে বড় পর্দায় পরিচালক হিসেবে অভিষেক ঘটতে যাচ্ছে নির্মাতা মাহমুদ দিদারের।

‘বিউটি সার্কাস’র মুক্তিকে সামনে রেখে শনিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) রাতে রাজধানীর বিয়াম অডিটোরিয়ামে একটি সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। এই অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এম এম জসিম উদ্দীন (সিওও, ব্র্যান্ড অ্যান্ড মার্কেটিং, সেক্টর-এ, বসুন্ধরা গ্ৰুপ)। এছাড়া সিনেমাটির পরিচালক মাহমুদ দিদার, অভিনেত্রী জয়া আহসান, অভিনেতা ফেরদৌস আহমেদ, এবিএম সুমন ও ‘চিরকুট’ ব্যান্ডের ভোকাল শারমিন সুলতানা সুমীসহ অনেকে এতে অংশ নেন।

অনুষ্ঠানে পরিচালক মাহমুদ দিদার বলেন, ‘‘আমার চলচ্চিত্র যাত্রার যে পাঠশালা-সেখানে জয়া আপু নানাভাবে আমাকে উৎসাহিত করেছেন, আমার দার্শনিক ঋণ থেকে গেছে। আমার প্রথম চলচ্চিত্র 'বিউটি সার্কাস'র সঙ্গেও জয়া আপা জড়িয়ে আছেন। সার্কাস নিয়ে আমি সবার প্রতি কৃতজ্ঞ। ২৩ তারিখ এটি মুক্তি পাবে। সিনেমাটি ঘিরে আমি একটা ট্যাগলাইন বলতে চাই, ভরপুর বিনোদন, ভরপুর এক্সাইটমেন্ট এবং একটা ভরপুর প্রতিশোধের গল্প। এটা থেকেই বোঝা যাবে আসলে ‘বিউটি সার্কাস’কে কী বলতে চেয়েছি। সরকারি অনুদান নিয়ে একটা ট্যাবু আছে, এটা আমরা মিথ্যা প্রমাণ করতে চাই। আমরা ট্রেলারে যা দেখিয়েছি, সিনেমা আসলে তেমনি স্ক্রিনে আসবে। ’’

বসুন্ধরা গ্ৰুপের ব্র্যান্ড অ্যান্ড মার্কেটিংয়ের সিওও এম এম জসিম উদ্দীন বলেন, ‘আপনারা নিশ্চয় লক্ষ্য করেছেন গত দেড় বছর ধরে আমরা ক্রমাগত মিডিয়ার দিকে অনেক ঝুঁকে আছি। আমরা বড় গান প্রযোজনা করছি, সিনেমায় আসছি এবং তারকা নির্ভর বেশকিছু কাজে ঝুঁকে যাচ্ছি; এটা কোম্পানির একটি কৌশলগত অবস্থান। আমরা আপনাদের নিশ্চিত করতে চাই, আমরা যেখানেই যাবো- নিশ্চয় সুশৃঙ্খল এবং ভালো নিয়মতান্ত্রিক বিনিয়োগের মাধ্যমে মিডিয়াতে যুক্ত থাকব। ‘বিউটি সার্কাস’র বিউটি হচ্ছেন এপার এবং ওপার বাংলার এক নাম্বার প্রিয় মুখ। সেই প্রিয় মুখকে সবাই দেখতে চাইবেন- সেজন্যই আমরা এগিয়ে এসেছি। আগামী এক সপ্তাহ আমাদের টিম সহযোগিতা করবে, ‘বিউটি সার্কাস’কে সবার মাঝে ভালোভাবে তুলে ধরবে। এছাড়া হল বাড়ানোর জন্য যদি আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়, আমরা সেটা বাড়াতেও সহযোগিতা করার চেষ্টা করব। আমরা ভালো কাজের সঙ্গে আছি। ’

‘বিউটি সার্কাস’ সিনেমায় নাম ভূমিকায় অভিনয় করেছেন জয়া আহসান। তিনি বলেন, ‘‘দেড় বছর পর আমার অভিনীত সিনেমা মুক্তি পাচ্ছে। ইমোশনের সঙ্গে জড়িয়ে আছে ‘বিউটি সার্কাস’। অনেক সময় নিয়ে কাজটি করেছি। এ সিনেমাটির চরিত্রটিই আমাকে আগ্রহী করে তুলেছে কাজটি করতে। এখানে একজন সার্কাসের মেয়ে হিসেবে অনেক কিছু শিখতে হয়েছে, জানতে হয়েছে। পরিচালক মাহমুদ দিদার অনেক গ্রামার মেনে কাজ করেন। আশা করছি, দর্শকের ভালো লাগবে। প্রথমবারের মতো সার্কাস নিয়ে কাজ হলো। সবাই দেখে মজা পাবেন। ’’

প্রথমবার অ্যাকশন লুকের বাইরে এসে ‘বিউটি সার্কাস’ সিনেমায় ভিন্ন একটি চরিত্র করেছেন চিত্রনায়ক এবিএম সুমন। সিনেমায় তার চরিত্রের নাম রংলাল। অনুষ্ঠানে সুমন বলেন, ‘পরিচালক আমাকে চরিত্রটা বিশ্বাস করিয়েছেন। চুল ধুতে দেয়নি ৯ দিন, সরিষার তেল মুখে মেখে রোদে দাঁড় করিয়ে রেখেছিলেন। এতে রিয়েল লোকেশন আছে, এটা বড় বাজেটের সিনেমাতেও অনেক সময় সম্ভব না। আমি দেখেছি জয়া আপার জ্বর, তারপরও তিনি শুটিংয়ের জন্য দুই ঘণ্টা ভিজলেন। এসব ডেডিকেশন দেখেছি কাছ থেকে। চেষ্টা ছিল সবটুকু দিয়ে কাজটি করার। ’

‘বিউটি সার্কাস’-এ চিরকুটের একটি গান রয়েছে। অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে ব্যান্ডটির ভোকাল শারমিন সুলতানা সুমি জয়া, ফেরদৌস ও সুমনকে নিয়ে ‘বয়ে যাও নক্ষত্র’ গানটি খালি গলায় সবাইকে গেয়ে শোনান।

সিনেমাটিতে জয়া আহসান ও এ বি এম সুমন ছাড়াও আরো অভিনয় করেছেন ফেরদৌস আহমেদ, তৌকির আহমেদ, শতাব্দী ওয়াদুদ, গাজী রাকায়েত ও হুমায়ূন সাধুসহ অনেকে।

বাংলাদেশ সময়: ০১২৭ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২২
জেআইএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa