ঢাকা, বুধবার, ২৪ আষাঢ় ১৪২৭, ০৮ জুলাই ২০২০, ১৬ জিলকদ ১৪৪১

বিনোদন

লারা-মহেশ : দুই তারকার বাগদান

তৌহিদ রনী | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১০-২০-০৯ ১০:০৯:৩৮ পিএম
লারা-মহেশ : দুই তারকার বাগদান

একজন বলিউডের জনপ্রিয় নায়িকা ও বিশ্বসুন্দরী লারা দত্ত এবং অন্যজন ভারতের ইতিহাসের অন্যতম সেরা টেনিস তারকা মহেশ ভূপতি। ভারতের দুই ভুবনের জনপ্রিয় এই দুই তারকার দীর্ঘদিনের প্রেমের সম্পর্ক অবশেষে বাগদানে গড়িয়েছে।



বলিউডের রূপসী নায়িকাদের নিয়মিত প্রেমিক ও বয়ফ্রেন্ড বদলানোর একটা ধারা আছে। নতুন নতুন প্রেমিকদের প্রতি তারা একটু বাড়তি আকর্ষণ অনুভব করেন। এসব লাস্যময়ী নায়িকারা বয়ফ্রেন্ড বদলান খুব সহজভাবে এবং স্বাভাবিক নিয়মেই। বলিউডের হাটথ্রুব নায়িকা লারা দত্তের ক্ষেত্রেও হয়েছিল তেমনটাই। পুরনো প্রেমিক কেলি দর্জি ও দিনো মারিয়ার কাছ থেকে পরিপূর্ণ ভালোবাসা না পেয়ে সাবেক এই মিস ইউনিভার্স কিছুদিনের জন্য বিষন্ন ছিলেন। মনোযোগ দিয়েছিলেন নিজের ক্যারিয়ারের দিকে। ইতিবাচক ফলাফলও পেয়ে যান। একাধিক হিট ছবির নায়িকা হওয়ায় কেটে যায় বিষন্নতা। তার একাকীত্ব ঘোচাতে এগিয়ে আসে নতুন প্রেমিক। ভারতের অন্যতম সেরা টেনিস তারকা মহেশ ভূপতি বসতি গড়েন লারার বিষন্ন মনের শূন্যঘরে।

প্রথম দিকে পরস্পরের মধ্যে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক থাকলেও পরে তা প্রণয়ে রূপ নেয়। মুম্বাইয়ের বান্দ্রায় একই ছাদের নিচে বসবাস এবং যত্রতত্র ঘুরে বেড়ালেও তারা  সে সময় তাদের বিশেষ সম্পর্ক অস্বীকার করেছেন। অবশেষে যখন ভালোবাসার ভিত মজবুত হয় তখনই তারা জনসম্মুখে তাদের সম্পর্কের কথা প্রকাশ করেন এবং কিছুটা খোলামেলাভাবেই মেলামেশা শুরু করেন। তাদের ভালবাসার সর্বশেষ পরিণতি হিসেবে তারা বাগদান সম্পন্ন করেছেন।

গত সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কে মহেশ ও লারা খুবই কাছের কয়েকজনের উপস্থিতিতে তাদের শুভকাজ সম্পন্ন করেন। তারা দুজনই ব্যক্তিগত কাজে নিউ ইয়র্কে গিয়েছেন। মহেশ সেখানে গিয়েছেন ডেভিস কাপ ও ইউএস ওপেন টেনিসে অংশ নিতে। আর লারা গিয়েছেন একটি ম্যাগাজিনের জন্য ফটোশুট করতে। বাগদান প্রসঙ্গে মহেশ ভূপতি বলেন, লারাকে আমি অনেক ভালোবাসি, লারার অসাধারণ ব্যক্তিত্ব আমাকে মুগ্ধ করেছে। অবশেষে লারার সম্মতিতে আমাদের মধ্যে বাগদান সম্পন্ন হয়েছে। মহেশ আরও জানান,
মুম্বাইয়ে এসে তারা বৃহৎ পরিসরে বিবাহ অনুষ্ঠানের আয়োজন করবেন ।
 
নিজের স্বপ্নপুরুষ হিসেবে মহেশকে বেছে নেওয়া প্রসঙ্গে লারা বলেন, মহেশ একজন বাস্তববাদী সচেতন পুরুষ। আমার ক্যারিয়ারের ব্যাপারে সে খুবই যত্নবান। আশা করছি আমরা সুখেই থাকব।

অবশ্য লারা যতই সুখ-শান্তির কথা বলে নিজেকে ভালোভাবে উপস্থাপন করুন, একজনের কাছে তিনি চিরদিনের শত্রু হিসেবে বিবেচিত থাকবেন। তিনি হলেন মহেশ ভূপতির সাবেক সহধর্মিণী শেওতা জায়শাঙ্কর। লারার কারণেই তার সুখের সংসারে আগুন লেগেছিল। তারপরও লারা কি সুখে থাকবেন ?

বাংলাদেশ স্থানীয় সময় ২১৪৫, সেপ্টেম্বর ২০, ২০১০

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa