ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১২ কার্তিক ১৪২৮, ২৮ অক্টোবর ২০২১, ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

বিনোদন

কবীর সুমনের তৈরি রাগ চুরির অভিযোগ

বিনোদন ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫০৫ ঘণ্টা, জুলাই ৫, ২০২১
কবীর সুমনের তৈরি রাগ চুরির অভিযোগ কবীর সুমন

হাসপাতালের বিছানায় দিন কাটছে কবীর সুমনের। এমন সময়ে তার নিজের তৈরি একটি রাগ চুরি হয়ে যাওয়ার অভিযোগ করেছেন তিনি।

বিষয়টি নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন এই কিংবদন্তি।

কবীর সুমন অভিযোগ করেন, বছরখানেক আগে সুভদ্রকল্যাণ রাণা নামের এক ব্যক্তি তার তৈরি ‘আহীর বৈরাগী’ বাজাতে চাওয়ার অনুমতি চাইলে, তিনি তাকে অনুমতি দেন। তখন ওই ব্যক্তি রাগটি তবলায় সুমনকে বাজিয়েও শোনান। কিন্তু এখন সুমনের তৈরি রাগটি তিনি নিজের সৃষ্টি বলে সব জায়গায় প্রচার করছেন।  

বিষয়টির বর্ণনা দিয়ে ফেসবুকে কবীর সুমন লেখেন, বছরখানেক আগে আমি ‘আহীর বৈরাগী’ নামের একটি রাগ তৈরি করে ফেসবুকে সেই রাগের কথা জানিয়েছিলাম। রাগরূপ জেনে এক অচেনা বাঙালি যুবক যোগাযোগ করে জানান, তিনি ঐ রাগটি বাজাতে চান। তার সঙ্গে আমার কথা হয়। তিনি শিখে নিয়ে আমায় তবলা তরঙ্গে বাজিয়ে শোনান। তারপর সেই বাহাদুর সুভদ্রকল্যাণ রাণা প্রচার করতে থাকেন যে ঐ রাগটি তারই সৃষ্টি! সেসঙ্গে তিনি আরও লোক জুটিয়ে ফেসবুকে বাংলা খেয়াল সম্পর্কে আক্রমণ শুরু করেন। এমন ঘটনা তার চেয়ে নামী বঙ্গ সন্তান আগেও ঘটিয়েছেন, আরও ঘটবে হয়ত।

তিনি আরও লেখেন, আজ পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের চিকিৎসক সেবক-সেবিকা স্বাস্থ্য ব্যবস্থার সহযোগিতায় সেরে উঠছি কলকাতার এসএসকেএম হাসপাতালে। আমি সেরে উঠেই বাংলা খেয়ালের সেবায় ফিরে যাবো। আমার জীবনের আসল কাজ, আমার জীবনের শেষ ব্রত। আশা করছি সুভদ্রকল্যাণ রাণা হিংসাহানাহানি মিথ্যাচারে নয় সঙ্গীত শিক্ষায় ব্রতী থাকবেন। শিখবেন, মন ভালো রাখবেন। সঙ্গিতসঙ্গ করবেন। সুরে তালে লয়ে থাকুন।

গত ২৮ জুন গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় কবীর সুমনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। শুরুতে তাকে করোনা আক্রান্ত সন্দেহ করা হলেও কয়েক দফায় টেস্ট করা হলে তার রিপোর্ট নেগেটিভ আসে। এরপর তাকে সাধারণ কেবিনে রেখে চিকিৎসা দেওয়া শুরু হয়। প্রথমদিকে সুমনকে অক্সিজেন সাপোর্ট দেওয়া হলেও এখন তিনি স্বাভাবিকভাবেই নিঃশ্বাস নিতে পারছেন।

 

বাংলাদেশ সময়: ১৫০৫ ঘণ্টা, জুলাই ০৫, ২০২১
জেআইএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa