ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ কার্তিক ১৪২৭, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

বিনোদন

মাদক সংক্রান্ত হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপের অ্যাডমিন ছিলেন দীপিকা

বিনোদন ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৪৭ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২০
মাদক সংক্রান্ত হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপের অ্যাডমিন ছিলেন দীপিকা দীপিকা পাড়ুকোন

স্বজনপোষণের পর এবার মাদক কাণ্ডে টালমাটাল বলিউড। শুক্রবার (২৫ সেপ্টেম্বর) মাদক নিয়ন্ত্রণ ব্যুরো (এনসিবি)’র জিজ্ঞাসাবাদে দীপিকা পাড়ুকোনের ম্যানেজার কারিশমা জানিয়েছেন, মাদক বিষয়ক হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপের ‘ডি’ মানে দীপিকা এবং তিনি ওই গ্রুপের এডমিন ছিলেন।

শুক্রবার এনসিবি’র জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি হন কারিশমা এবং রাকুলপ্রীত সিং। এনসিবির জেরার মুখে মাদক বিষয়ক একটি গ্রুপে দীপিকার অ্যাডমিন থাকার কথা স্বীকার করে নিয়েছেন অভিনেত্রীর ম্যানেজার কারিশমা। অন্যদিকে, রাকুলপ্রীত সিং স্বীকার করেছেন, রিয়া চক্রবর্তী তাকে মাদক দিতেন।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জানায়, আলোচিত মাদক সংক্রান্ত যে হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ ফাঁস হয়েছিল, তাতে ছিলেন কারিশমা প্রকাশ, জয়া সাহা ও দীপিকা। আর এই গ্রুপের অ্যাডমিন ছিলেন দীপিকা পাড়ুকোন। আর গ্রুপটির মাদক সংক্রান্ত হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাটগুলি ছিল ২০১৭ সালের।

প্রসঙ্গত, কিছুদিন আগে দীপিকার সঙ্গে কারিশমা প্রকাশের মাদক সংক্রান্ত হোয়াটসঅ্যাপ প্রকাশ্যে আসে। যেখানে দীপিকাকে ‘হাশ’ (মাদক) আছে কিনা জিজ্ঞাসা করতে দেখা যায়। উত্তরে কারিশমা জানান, তার বাড়িতে আছে, তবে তিনি তখন বান্দ্রায় রয়েছেন। তবে তিনি চাইলে অমিতকে এনে দিতে বলতে পারেন। কারিশমার কথার জবাবে দীপিকা সম্মতি জানান।  

পাশাপাশি, জয়া সাহার সঙ্গে শ্রদ্ধা কাপুরের যে চ্যাট প্রকাশ্যে এসেছে, তাতে শ্রদ্ধাকে ‘সিবিডি অয়েল’ চাইতে দেখা গেছে। ফলে ফেঁসে যাচ্ছেন শ্রদ্ধা কাপুরও।  শিগগিরই এনসিবি’র জেরার মুখোমুখি হবেন দীপিকা পাড়ুকোন ও শ্রদ্ধা কাপুর।

আরও পড়ুন: বাড়িতে মাদক পৌঁছে দিতেন রিয়া: রাকুলপ্রীতের স্বীকারোক্তি

বাংলাদেশ সময়: ২১৫০ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২০
এমকেআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa