bangla news

ঝিলিকের প্রশংসায় রুনা লায়লা

বিনোদন ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০৭-০১ ২:৩৮:৪৩ পিএম
রুনা লায়লা ও ঝিলিক

রুনা লায়লা ও ঝিলিক

কণ্ঠশিল্পী ঝিলিকের কণ্ঠের ‘সারগাম’র ভূয়সী প্রশংসা করেছেন উপমহাদেশের প্রখ্যাত সংগীতশিল্পী রুনা লায়লা। বিখ্যাত সিগনেচার মোজার্টের ‘সারগাম’র রূপান্তর ঝিলিক নিজের কণ্ঠে তুলে (দুই মিনিট ব্যাপ্তির) তা গেলো সোমবার (২৯ জুন) রাতে নিজের ফেসবুক ওয়ালে শেয়ার করেন। 

ফেসবুকে শেয়ারের পর থেকেই ঝিলিক তার গায়কীর প্রশংসায় ভাসছেন। শুধু যে বন্ধু, ভক্ত-অনুরাগী কিংবা পরিচিতি মহলের লোকজন তার প্রশংসা করেছেন তা কিন্তু নয়, তার কণ্ঠের সারগামে মুগ্ধতা প্রকাশ করেছেন বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার লোকজনও।

সবচেয়ে আনন্দের খবর হলো, নিজে কণ্ঠের এই সারগাম’র মাধ্যমে সংগীত জীবনের অনেক বড় প্রাপ্তি এসে জমা হয়ে যায় ঝিলিকের ফেসবুক ওয়ালে। উপমহাদেশের জীবন্ত কিংবদন্তী সংগীতশিল্পী রুনা লায়লার চোখে পড়েছে ঝিলিকের কণ্ঠের এই সারগাম। তার গায়কীতে মুগ্ধ হন রুনাও। 

রুনা লায়লা লেখেন, ‘ট্রুলি কমেণ্ডেবল, ভেরি ওয়েলডান।’ কিন্তু বেশ কিছুটা সময় পেরিয়ে যাবার পর খুব কাছের একজন মানুষের ফোনে যখন ঘুম ভাঙ্গে ঝিলিকের তখন জানতে পারেন রুনা লায়লা’র কমেন্টের কথা। বিছানা ছেড়ে লাফ দিয়ে উঠেন তিনি। খুশিতে উচ্ছ্বসিত হয়ে বাবা মা’কে দেখান রুনা লায়লার করা এই কমেন্ট। প্রত্যুত্তরে কী লিখবেন ঝিলিক, বুঝে উঠতে পারছিলেন না। 

এরপর অনেক ভেবে সময় নিয়ে ঝিলিক লিখেন, ‘আই রিয়েলি ডোন্ট নো হোয়াট টু স্যে…দিস ইজ জাস্ট নট অ্যা কমেন্ট ফর মি ইস লাইক অ্যান অ্যাওয়ার্ড…মেইড মাই ডে..আই উইল কিপ প্র্যাকটিসিং ম্যাডাম অ্যাণ্ড আই উইল ডু বেটার..প্রে ফর মি।’ 

ফেসবুকে কমেন্ট করেই নিজের খুশিকে প্রকাশ করাটা যথেষ্ট বলে মনে করনেনি ঝিলিক। যে কারণে পরবর্তীতে রুনা লায়লার মুঠোফোনে ফোন করেন ঝিলিক। বেশ কিছুটা সময় কথা বলেন রুনা লায়লার সঙ্গে। ঝিলিক জানান, এই সময় রুনা লায়লা তাকে আরো অধ্যবসায়ী হতে, আরো ভালোভাবে প্রতিনিয়ত সংগীতের চর্চা চালিয়ে যেতে।

ঝিলিক বলেন, ‘আমি ম্যাডামের কাছে প্রমিজ করেছি যে আমি প্রতিনিয়ত রেওয়াজ চালিয়ে যাবো। গানে নিজেকে শতভাগ মনোযোগী রাখবো ইনশাআল্লাহ।’ 

ঝিলিক আরও বলেন, ‘এক জীবনের এতো বড় প্রাপ্তি। স্বপ্নের মতোই মনে হচ্ছে। এখনো বিশ্বাস হচ্ছে না। এ কারণেই তিনি এতো মহান, পৃথিবীজুড়ে তার সুনাম। আমার মতো ছোট্ট একজন মানুষের একটি কাজকে তিনি সম্মান জানিয়েছেন, অনুপ্রেরণা যুগিয়েছেন। আমার সংগীত জীবনে এর চেয়ে বড়প্রাপ্তি সত্যিই আর কিবা হতে পারে। আজকের দিনের শুরুটা যে শ্রদ্ধেয় রুনা ম্যাডাম এভাবে শুরু করিয়ে দিবেন, কোনো দিনও কল্পনা করতে পারিনি। আমার এই সারগামে তিনি কমেন্ট করেছেন, আবার তিনি নিজের দুটি ভিন্ন ফেসবুক আইডিতে শেয়ারো করেছেন।’

২০০৮ সালের সেরাকণ্ঠতে বিচারক হিসেবে রুনা লায়লাকে পেয়েছিলেন ঝিলিক। তখন তারই সামনে ঝিলিক রুনা লায়লারই গাওয়া ‘একা একা কেনো ভালো লাগে না’ গানটি গেয়ে বেশ প্রশংসিত হয়েছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৪৩৭ ঘণ্টা, জুলাই ০১, ২০২০
ওএফবি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   সংগীত
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-07-01 14:38:43