bangla news

জুতা পালিশ থেকে ইন্ডিয়ান আইডল

বিনোদন ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০২-২৪ ১:৪১:২২ পিএম
সানি হিন্দুস্তানি

সানি হিন্দুস্তানি

একসময় রাস্তায় ঘুরে ঘুরে মানুষের জুতা পলিশের কাজ করতেন সানি হিন্দুস্তানি। তার মা বেলুন বিক্রি করে অনেক কষ্ট করেও ঠিকমতো সংসার চালাতে পারতেন না। তাই উপায় না দেখে জুতা পালিশের কাজ করতেন ভারতের পাঞ্জাবের ভাতিন্ডার ওই তরুণকে।

অভাব-অনটনে বড় হওয়া সেই সানি এখন ইন্ডিয়ান আইডল। গানকে ভালোবাসেন হৃদয় দিয়ে। তার কণ্ঠের জাদু মুগ্ধ করেছে বলিউডের প্রখ্যাত সংগীতশিল্পী থেকে শুরু করে সাধারণ শ্রোতাদেরও। যে কারণে হাজার হাজার প্রতিযোগীকে পেছনে ফেলে সেরার মুকুট পেয়েছেন সানি।

রোববার (২৩ ফেব্রুয়ারি) ভারতীয় সনি টেলিভিশনের সংগীতবিষয়ক প্রতিযোগিতামূলক অনুষ্ঠান ‘ইন্ডিয়ান আইডল’র ১১তম আসরে বিজয়ী হিসেবে সানির নাম ঘোষণা করা হয়। পুরস্কার হিসেবে তার হাতে তুলে দেওয়া হয় ২৫ লাখ রুপি ও একটি টাটা গাড়ি। এছাড়া প্রযোজনা সংস্থা টি-সিরিজের নতুন সিনেমায় প্লেব্যাক করার সুযোগও পেলেন তিনি।

সানি হিন্দুস্তানি

নুসরাত ফাতেহ আলী খানের মতো গায়কী দিয়ে প্রথম দিকেই সবাইকে অবাক করেন সানি। ইন্ডিয়ান আইডলের অডিশনে সবার নজর ছিল তার দিকেই। অডিশনের সময়ে সানির গাওয়া গান সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হতে দেখা গেছে। এরপর আর থেমে থাকতে হয়নি তাকে। প্রতিযোগিতাটির প্রতিটি পর্বে বিচারকদের প্রশংসা নিয়ে তিনি পৌঁছে যান জয়ের বন্দরে।

সানির জীবনের সংগ্রাম ও ফাইনালে তার গায়কীতে আপ্লুত হন অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকা বলিউড অভিনেতা আয়ুষ্মান খুরানা।

সানি হিন্দুস্তানি

ইন্ডিয়ান আইডলের ট্রফি হাতে নিয়ে সানি জানান, তিনি কখনো ভাবেননি ভারতের মানুষ তার গান শুনবেন এবং তাকে ভোট করবেন। এবার তার  কষ্টের দিন শেষ হয়েছে। এই পুরস্কারটি তার মা’র জন্য, তার স্বপ্ন পূরণ হয়েছে। 

ইন্ডিয়ান আইডল ১১-তে দ্বিতীয় হয়েছেন লাতুরের রোহিত রাউত ও তৃতীয় হয়েছেন বাঁকুড়ার মেয়ে অঙ্কনা মুখার্জি৷ তারা পেয়েছেন ৫ লক্ষ টাকা করে। এছাড়া মুর্শিদাবাদের অদ্রিজ ঘোষ ও অমৃতসরের ঋধম কল্যাণ ছিলেন সেরা পাঁচে৷ চতুর্থ এবং পঞ্চম হওয়াতে তারা পেয়েছেন ৩ লক্ষ টাকা পুরস্কার।

বাংলাদেশ সময়: ১৩৪০ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২০
জেআইএম

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   টেলিভিশন
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-02-24 13:41:22