bangla news

ষষ্ঠ নারী নির্মাতা সম্মেলন উৎসর্গ করা হলো প্রতীতি দেবীকে

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০১-১৩ ৯:১৯:৫০ পিএম
ষষ্ঠ আন্তর্জাতিক নারী চিত্রনির্মাতা সম্মেলন। ছবি: বাংলানিউজ

ষষ্ঠ আন্তর্জাতিক নারী চিত্রনির্মাতা সম্মেলন। ছবি: বাংলানিউজ

শেষ হলো ষষ্ঠ অান্তর্জাতিক নারী চিত্রনির্মাতা সম্মেলন। সোমবার (১৩ জানুয়ারি) ছিল দু’দিনব্যাপী এই সম্মেলনের শেষ দিন। কিংবদন্তি চলচ্চিত্র নির্মাতা ঋত্বিক ঘটকের সদ্যপ্রয়াত বোন প্রতীতি দেবীকে এই সম্মেলন উৎসর্গ করার মাধ্যমে এই আন্তর্জাতিক আয়োজনের পর্দা নামে।

প্রতীতি দেবীর স্মরণে সম্মেলনের দ্বিতীয় দিনের শুরুতেই এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন চলচ্চিত্র নির্মাতা ঋত্বিক ঘটকের যমজ বোন প্রতীতি দেবী। রোববার (১২ জানুয়ারি) রাতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৫ বছর। পুরানো ঢাকার হৃষীকেশ দাশ রোডের বাড়িতে ১৯২৫ সালের ৪ নভেম্বর তার জন্ম হয়। ১৯৪৭’র দেশভাগের সময় তাদের পরিবারের অনেকেই পূর্ব বাংলা ছেড়ে চলে গিয়েছিলেন পশ্চিমবঙ্গে। কিন্তু পরে নিজের দেশে ফিরে আসেন প্রতীতি দেবী।

ষষ্ঠ আন্তর্জাতিক নারী নির্মাতা সম্মেলনের দ্বিতীয় দিনে আলোচকরা বর্তমান বিশ্বে ও বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে নারী নির্মাতাদের প্রতিবন্ধকতা, সুযোগ-সুবিধা, কর্মতৎপরতা, প্রত্যাশা এবং প্রতিকূলতা থেকে উত্তরণের উপায় নিয়ে আলোচনা করেন। সম্মেলন শেষে ঘোষণা দেওয়া হয়, ২০২০ সালে বিশ্ব চলচ্চিত্রে নারী নির্মাতাদের অংশগ্রহণ অর্ধশতাংশে উন্নীত করার লক্ষ্যে কাজ করতে হবে। 

অষ্টাদশ ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের অংশ হিসেবে অনুষ্ঠিত ষষ্ঠ আন্তর্জাতিক নারী নির্মাতা সম্মেলনের শেষ দিনের আলোচনায় অংশ নেন ভারতীয় চলচ্চিত্র নির্মাতা-অভিনেত্রী অপরাজিতা ঘোষসহ দেশ-বিদেশের চলচ্চিত্র ও গণমাধ্যমের বিশিষ্টজনেরা। এছাড়া, দেশি-বিদেশি অভিনয় শিল্পী, চলচিত্র নির্মাতা, চলচ্চিত্র সমালোচক, প্রযোজক এই সম্মেলনে অংশ নেন।

বাংলাদেশ সময়: ২১২০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৩, ২০২০
জেআইএম/এমকেআর

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   চলচ্চিত্র উৎসব
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-01-13 21:19:50