bangla news

দুই বছর পেরিয়ে বিরাট-আনুশকার ইনিংস

বিনোদন ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১২-১১ ১২:০৬:০০ পিএম
বিরাট কোহলি ও আনুশকা শর্মা। ছবি: তাদের টুইটার থেকে

বিরাট কোহলি ও আনুশকা শর্মা। ছবি: তাদের টুইটার থেকে

দেখতে দেখতে দু’টি বছর পার করে দিলেন সময়ের অন্যতম আলোচিত তারকা দম্পতি বিরাট কোহলি ও আনুশকা শর্মা। ২০১৭ সালের ১১ ডিসেম্বর গাঁটছড়া বাঁধেন ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি ও বলিউড অভিনেত্রী আনুশকা শর্মা।

দারুণভাবে পেশাদারিত্ব টিকিয়ে রাখা এবং একইসঙ্গে পরিবারকে সময় দেওয়া, পারস্পরিক সহযোগিতা, সুখে-দুঃখে পরস্পরের পাশে থাকার দারুণ দৃষ্টান্ত রেখে চলেছেন ভারতের সবচেয়ে জনপ্রিয় এই তারকা জুটি। 

দ্বিতীয় বিবাহবার্ষিকীতে বিবাহলগ্নের মধুর মুহূর্তকে স্মরণ করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দারুণ রোমান্টিক পৃথক দু’টি ছবি শেয়ার করেন বিরাট কোহলি ও আনুশকা শর্মা। 

বিরাট কোহলি ও আনুশকা শর্মা। ছবি: আনুশকা শর্মার টুইটার থেকে

এদিন সকালে এক টুইটার পোস্টে আনুশকা লেখেন, ‘ভিক্টর হুগো বলেছেন, ‘কাউকে ভালোবাসা মানে হলো তার মাঝে ঈশ্বরের মুখ দেখতে পাওয়া।’ ভালোবাসা শুধু একটি অনুভূতি নয়, এটা তার চেয়ে অনেক বেশি কিছু। এটা একটা দিকনির্দেশনা, পরমসত্যের দিকে চলার একটি পথ। আর আমার সৌভাগ্য, সত্যি বলছি, আমার পরম সৌভাগ্য যে, আমি এটা পেয়েছি।’ বার্তাটির সঙ্গে লাভ ও সম্মানের ইমো যোগ করেন তিনি। 

বিরাট কোহলি ও আনুশকা শর্মা। ছবি: বিরাট কোহলির টুইটার থেকে

আনুশকার মাত্র তিন মিনিট আগেই বিরাট কোহলি একই সাজে তোলা তাদের আরেকটি ছবি শেয়ার করেন টুইটারে। সঙ্গে তিনি লেখেন, ‘বাস্তবে ভালোবাসা ছাড়া আর কিছুই নেই। আর যখন ঈশ্বর কৃপা করে আপনার কাছে এমন একজনকে পাঠায় যে আপনাকে প্রতিদিন এই ভালোবাসা অনুভব করায়, তখন আপনার একটিমাত্রই উপলব্ধি হবে, তা হলো- কৃতজ্ঞতা।’ বার্তাটির সঙ্গে লাভ ইমো যোগ করতে ভুল করেননি বিরাট।

সামাজিক মাধ্যমে আনুশকা ও বিরাট কোহলি দু’জনেরই রয়েছে বিশাল সংখ্যক ভক্ত-অনুসারী। দ্বিতীয় বিবাহবার্ষিকীতে অগণিত ভক্তদের ভালোবাসা ও শুভেচ্ছায় সিক্ত হচ্ছেন দু’জনেই।

বাংলাদেশ সময়: ১২০৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১১, ২০১৯
এমকেআর

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-12-11 12:06:00