bangla news

দ্বিতীয় দিনে জমে উঠেছে স্বল্প ও মুক্ত চলচ্চিত্র উৎসব

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১২-০৮ ১১:১২:৩৯ পিএম
উৎসব প্রাঙ্গণ ও ড. রিমলি ভট্টাচার্য। ছবি: রাজীন চৌধুরী/বাংলানিউজ

উৎসব প্রাঙ্গণ ও ড. রিমলি ভট্টাচার্য। ছবি: রাজীন চৌধুরী/বাংলানিউজ

ঢাকা: পর্দা উঠেছে ১৫তম আন্তর্জাতিক স্বল্পদৈর্ঘ্য ও মুক্ত চলচ্চিত্র উৎসবের। রোববার (০৮ ডিসেম্বর), অর্থাৎ উৎসবের দ্বিতীয় দিনে দর্শক ও চলচ্চিত্রের মানুষদের অংশগ্রহণে জমে উঠেছে উৎসব প্রাঙ্গণ।

বাংলাদেশ শর্ট ফিল্ম ফোরামের আয়োজনে উৎসবের এদিনে রাজধানীর জাতীয় শিল্পকলা একাডেমির চিত্রশালায় বিকেল ৩টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত প্রদর্শিত হয় ভারতের প্রখ্যাত চলচ্চিত্র নির্মাতা ও চিত্রনাট্যকার কমল স্বরূপের জনপ্রিয় স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘ওম-দার-বি-দার’, ‘পুস্কার পুরান’ ও ‘সমুদ্র মন্থন’।

এছাড়া জাতীয় গণগ্রন্থাগারে ২২টি, শাহবাগ জাতীয় জাদুঘরে তিনটি, জাতীয় শিল্পকলা একাডেমির চিত্রশালায় ছয়টি এবং একই ভেন্যুর সংগীত ও নাট্যকলায় ১৮টি দেশি ও বিদেশি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র প্রদর্শিত হয়।

রোববার বিকেল ৩টায় শিল্পকলার সেমিনার রুমে সাহিত্যের শিক্ষক ও ভারতীয় বিশিষ্ট অনুবাদক ড. রিমলি ভট্টাচার্য ‘মরালিটি অ্যান্ড মুভমেন্ট’ শীর্ষক একটি আন্তর্জাতিক লেকচার পাঠ করেন। তিনি বিষয়টির ওপর ৩০ মিনিটের সেমিনার পরিচালনা করেন। এতে চলচ্চিত্র নির্মাতা, অভিনেত্রী ও অভিনেতাদের অংশ নিতে দেখা যায়।

এছাড়া সন্ধ্যা ৭টায় জাতীয় জাদুঘরের কবি বেগম সুফিয়া কামাল মিলনায়তনে এনায়েত করিম বাবুল পরিচালিত ‘বুড়িগঙ্গা ৭১’ পূর্ণদৈর্ঘ্য প্রামাণ্য চলচ্চিত্র প্রদর্শিত হয়। কেরানীগঞ্জ গণহত্যা নিয়ে এটি নির্মিত হয়েছে।

উৎসবের দ্বিতীয় দিন দর্শক উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো। কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ছাড়াও নানা শ্রেণি-পেশার মানুষকে চলচ্চিত্র প্রদর্শনীতে অংশ নিতে দেখা যায়।

১৫তম আন্তর্জাতিক স্বল্পদৈর্ঘ্য ও মুক্ত চলচ্চিত্র উৎসব চলবে আগামী ১৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত। উৎসবের মূলকেন্দ্র হিসেবে থাকছে- কেন্দ্রীয় গণগ্রন্থাগারের শওকত ওসমান মিলনায়তন, জাতীয় জাদুঘরের বেগম সুফিয়া কামাল মিলনায়তন এবং বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির সঙ্গীত ও নৃত্যকলা মিলনায়তন, জাতীয় চিত্রশালা মিলনায়তন ও একাডেমির সেমিনার হলগুলো।

এবারের ১৫তম উৎসব উৎসর্গ করা হয়েছে- সম্প্রতি প্রয়াত স্বাধীন চলচ্চিত্র ধারার অন্যতম গুণী নির্মাতা ও চলচ্চিত্র সম্পাদক সাইদুল আনাম টুটুল, সূর্য দীঘল বাড়িসহ অসংখ্য চলচ্চিত্রের চিত্রগ্রাহক আনোয়ার হোসেন ও চলচ্চিত্র সংসদ আন্দোলনের পুরোধা ব্যক্তিত্ব মুহাম্মদ খসরুর স্মৃতির প্রতি।

বিশ্বের ৪৫টি দেশে সাম্প্রতিককালে নির্মিত অন্তত দুই শতাধিক স্বল্পদৈর্ঘ্য ও মুক্ত চলচ্চিত্র এই উৎসবের বিভিন্ন বিভাগে দেখানো হবে।

সোমবার (০৯ ডিসেম্বর) বিকেল ৪টায় শিল্পকলা একাডেমির সেমিনার রুমে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বক্তা হিসেবে থাকবেন কমল স্বরূপ এবং জাতীয় চিত্রশালায় কুমার সাহানীর একটি সেমিনার অনুষ্ঠিত হবে।

এর আগে শনিবার (৭ ডিসেম্বর) পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন এবারের উৎসবের উদ্বোধন করেন। উৎসবের প্রথমদিন প্রদর্শিত হয়েছে পাঁচটি চলচ্চিত্র।

বাংলাদেশ সময়: ২৩১২ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৮, ২০১৯
জেআইএম/এসএ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-12-08 23:12:39