bangla news

সরে দাঁড়ালেন অনু মালিক, উচ্ছ্বসিত সোনা মহাপাত্র

বিনোদন ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১১-২২ ৪:৩৬:১৫ পিএম
অনু মালিক-সোনা মহাপাত্র

অনু মালিক-সোনা মহাপাত্র

রিয়েলিটি শো ‘ইন্ডিয়ান আইডল ১১’-এর বিচারকের আসন থেকে সরে দাঁড়ালেন বলিউডের জনপ্রিয় সুরকার, সংগীত পরিচালক ও সংগীতশিল্পী অনু মালিক। সরে দাঁড়ালেন বলতে, সনি এন্টারমেইনমেন্ট টিভি চ্যানেলটির আলোচিত এই শো থেকে তাকে সরে দাঁড়াতে বাধ্য করা হয়েছে। 

অনু মালিকের সরে দাঁড়ানোর পরপরই টুইট করে প্রত্যেককে ধন্যবাদ জানালেন গায়িকা সোনা মহাপাত্র। বৃহস্পতিবার (২১ নভেম্বর) টুইটে তিনি লেখেন, ভারতের সব নারী এবং পুরুষকে ধন্যবাদ, তারা আমাদের ‘হ্যাশট্যাগ মুভ আউট মালিক’ প্রচারকে সমর্থন করেছেন। অনু মালিকের মতো যৌন হেনস্থকারীকে জাতীয় টেলিভিশনের পর্দায় দেখাটা আমাদের জন্য ভীষণ লজ্জার, যন্ত্রণার এবং মানসিক চাপও বটে। কিছু দিন ধরে অস্থির ছিলাম, তার সরে দাঁড়ানোর খবরে আমি ভীষণ খুশি। এখন ভালো করে ঘুমাতে পারবো।’

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম আর সংবাদমাধ্যমে দীর্ঘদিন ধরেই অনু মালিককে নিয়ে নানা নেতিবাচক খবর প্রচার হয়ে আসছে। এই মন্তব্য প্রকট আকার ধারণ করায় শো থেকে নিজেকে সরিয়ে নেন বলিউডের জনপ্রিয় এই গায়ক। সরে দাঁড়ানোর কারণ হিসেবে অনু মালিক চ্যানেল কর্তৃপক্ষের জানান, মানসিকভাবে খুবই বিধ্বস্ত তিনি। চ্যানেল কর্তৃপক্ষও তার এই সিদ্ধান্তকে সাদরে গ্রহন করে।

ইন্ডিয়ান আইডল থেকে অনু মালিকের বেরিয়ে আসায় উচ্ছ্বসিত সোনা মহাপাত্র ভারতীয় একটি সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, ‘বিচারে দাবিতে এতোদিন লড়াই চালিয়ে আসছি। তার সরে দাঁড়ানোর খবরে মনে হলো, এটা প্রত্যেকের জয়, শুধু আমার নয়। যে সকল নারী তার হাতে নিগৃহীত হয়েছে, তাদের প্রত্যেকের জয়। আর আমাদের আন্দোলনে যারা সাহস দিয়েছেন, পাশে থেকেছেন- তাদের ধন্যবাদ।’ 

২০১৮ সালে অনু মালিকের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ আনেন সোনা মহাপাত্র। এরপর একে একে নেহা বাসিন, শ্বেতা পণ্ডিতসহ বেশ কজন নারী এই সংগীতশিল্পীর বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন। সম্প্রতি নারী ও শিশুকল্যাণ উন্নয়ন মন্ত্রী স্মৃতি ইরানিকে চিঠি লেখেন সোনা। তারপরেই জাতীয় মহিলা কমিশন চিঠি দেয় সনি কর্তৃপক্ষকে। যে কারণে আর শেষ রক্ষা হলো না অনু মালিকের। বাধ্য হয়েই সরে দাঁড়াতে হলো তাকে।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৩৫ ঘণ্টা, নভেম্বর ২২, ২০১৯
ওএফবি
 

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   বলিউড
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-11-22 16:36:15