bangla news

নেহাকে ‘জোর করে’ চুমু খেলেন ইন্ডিয়ান আইডলের প্রতিযোগী!

বিনোদন ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১০-১৯ ১০:৫৪:৩৩ এএম
এ ঘটনার ব্যাপারে নেহা কক্করের কোনো মন্তব্য মেলেনি। ছবি: সংগৃহীত

এ ঘটনার ব্যাপারে নেহা কক্করের কোনো মন্তব্য মেলেনি। ছবি: সংগৃহীত

ভারতের সংগীতবিষয়ক জনপ্রিয় রিয়্যালিটি শো ‘ইন্ডিয়ান আইডল’ এর ১১ নম্বর সিজনে এক অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতিতে পড়েছেন এর বিচারক নেহা কক্কর। নন্দিত এ সংগীতশিল্পীকে অডিশন রাউন্ডের স্টেজে ‘জোর করে’ চুমু খেয়েছেন এক প্রতিযোগী। ঘটনার আকস্মিকতায় নেহা অপ্রস্তুত হয়ে পড়লে ওই প্রতিযোগীকে সরিয়ে নেন শোর উপস্থাপক আদিত্য নারায়ণ।

‘ইন্ডিয়ান আইডল’র সম্প্রচারক সনি টিভির এক প্রোমো ভিডিওতে এই দৃশ্য দেখা গেছে। প্রোমোটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে গেছে। যদিও এ নিয়ে নেহা কক্করের কোনো মন্তব্য মেলেনি।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জানায়, ৩১ বছর বয়সী নেহার সঙ্গে ‘ইন্ডিয়ান আইডল’র বিচারক হিসেবে মঞ্চে ছিলেন শিল্পী-সুরকার আনু মালিক ও সুরকার-শিল্পী বিশাল দাদলানি। ঘটনার আকস্মিকতায় তারাও হতভম্ভ হয়ে পড়েন।

ভিডিওতে দেখা যায়, নেহা ওই প্রতিযোগীর সঙ্গে কথা বলতে স্টেজে গেলে সেই প্রতিযোগী তাকে জিজ্ঞেস করেন, নেহা তাকে চেনেন কি-না। নেহা স্মরণ করার চেষ্টা করেন যে আসলে তাদের আগে কখনো দেখা হয়েছিল কি-না। এক পর্যায়ে ওই প্রতিযোগী নেহাকে উপহার তুলে দেন। এরপর নেহা প্রতিযোগীকে আলিঙ্গন করতে গেলে তার গালে জোর করে চুমু এঁকে দেন ওই প্রতিযোগী। তার এমন আচরণে নেহা হতবিহ্বল হয়ে পড়েন, ‘থ’ হয়ে যান আনু মালিক-বিশাল দাদলানিও। তৎক্ষণাৎ ওই প্রতিযোগীকে থামান উপস্থাপক আদিত্য নারায়ণ।

সনি টিভি কর্তৃপক্ষ জানায়, এ নিয়ে ‘ইন্ডিয়ান আইডল’-এর দুই সিজনে বিচারকের আসনে বসেছেন নেহা। গত বছরও এই শো’র বিচারক ছিলেন তিনি। 

নেহা কক্কর নিজেই ‘ইন্ডিয়ান আইডল’ থেকে উঠে আসা শিল্পী। ২০০৬ সালে ইন্ডিয়ান আইডল সিজন দুইয়ের প্রতিযোগী হিসেবে সুনাম কুড়োনো নেহা জনপ্রিয়তা লাভ করেন চলচ্চিত্রের গান করে।

বাংলাদেশ সময়: ১০৪৮ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৯, ২০১৯
এইচএ/

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-10-19 10:54:33