ঢাকা, সোমবার, ১ আশ্বিন ১৪২৬, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯
bangla news

নতুন ধারাবাহিক ‘শান্তিপুরীতে অশান্তি’

বিনোদন ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৮-২১ ৬:৫৬:০৪ পিএম
‘শান্তিপুরীতে অশান্তি’ ধারাবাহিকের একটি দৃশ্য

‘শান্তিপুরীতে অশান্তি’ ধারাবাহিকের একটি দৃশ্য

স্বামী-স্ত্রীর দ্বন্দ্ব নিয়ে নির্মাতা সকাল আহমেদ নির্মাণ করেছেন ধারাবাহিক নাটক ‘শান্তিপুরীতে অশান্তি’। এতে স্বামী-স্ত্রী চরিত্রে অভিনয় করেছেন ওয়াহিদা মল্লিক জলি ও রহমত আলী।

এই নাটক নিয়ে সকাল আহমেদ বলেন, ‘রাজধানী ঢাকার একটি বাড়ির নাম শান্তিপুর। অপার শান্তির আশাতেই এমন নাম দেওয়া হয় বাড়িটির। এ বিশাল বাড়ির মালিক দু’জন- রহমত আলী ও ওয়াহিদা মল্লিক জলি। সম্পর্কে তারা স্বামী-স্ত্রী হলেও কেউ কারও ধার ধারে না। প্রত্যেকেরই আলাদা ফ্ল্যাট আলাদা ভাড়াটিয়া। স্বামী-স্ত্রীর সম্পর্কটা সাপে-নেওলে। তাদের চিৎকার-চেঁচামেচিতে শান্তিপুরী রূপ নেয় অশান্তিপুরীতে। এই অশান্তিপুরী থেকে ভাড়াটিয়ারাও বিদায় নেয় একে একে।’ 

‘এ অবস্থায় রহমত আলী কয়েকজন ব্যাচেলর ছেলেকে ভাড়া দিয়ে তার গ্যাং তৈরি করেন। ব্যাচেলর ছেলেরা রহমত আলীর পরামর্শে ওয়াহিদা মল্লিক জলিকে নানাভাবে অপমান করে। তাদের যন্ত্রনায় একসময় অতিষ্ঠ হয়ে ওঠে জলি। কী করবে ভেবে পায় না। পাশের বাসার সাইকা আহমেদের সঙ্গে পরামর্শ করেন। তিনিও জলিকে কয়েকজন ব্যাচেলর মেয়েকে ভাড়া দেওয়ার পরামর্শ দেন। যে কথা সেই কাজ। জলিও কয়েকজন মেয়ে ব্যাচেলরকে ভাড়া দিয়ে গ্যাং তৈরি করেন। শুরু হয় একজনকে শায়েস্তা করতে অপরজনের নানা প্রতিযোগিতা। ফলে শান্ত শান্তিপুরী হয়ে ওঠে অশান্তিপুরী। নানা রকম ঘটন-অঘটনের মধ্য দিয়ে এভাবেই এগিয়ে চলে ‘শান্তিপুরীতে অশান্তি’ ধারাবাহিকের কাহিনী।’

এতে ওয়াহিদা মল্লিক জলি ও রহমত আলী ছাড়াও বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন- তুষার খান, সাইকা আহমেদ, আরফান নিশো, আরমান পারভেজ মুরাদ, শবনম ফারিয়া, তানজিকা, অর্ষা, কায়েস চৌধুরী প্রমুখ।

ধারাবাহিকটি প্রতি মঙ্গল থেকে বৃহস্পতিবার রাত ৮টায় বৈশাখী টিভিতে প্রচার হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৫৪ ঘণ্টা, আগস্ট ২১, ২০১৯
ওএফবি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   নাটক
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-08-21 18:56:04