ঢাকা, শনিবার, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২৫ মে ২০১৯
bangla news

মামলা থেকে অব্যাহতি পেলেন ন্যানসি

নিউজরুম এডিটর | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৪-০২ ৩:১৯:৪৬ পিএম
নাজমুন মুনিরা ন্যান্‌সি ও তার স্বামী নাজিমুজ্জামান যায়েদ

নাজমুন মুনিরা ন্যান্‌সি ও তার স্বামী নাজিমুজ্জামান যায়েদ

ভাইয়ের স্ত্রীর করা নারী ও শিশু নির্যাতন মামলা থেকে অব্যাহতি পেলেন কণ্ঠশিল্পী নাজমুন মুনিরা ন্যানসি। একই সঙ্গে তার স্বামী নাজিমুজ্জামান যায়েদকেও অব্যাহতি দিয়েছেন আদালত। তবে ন্যানসির ভাই শাহরিয়ার আমান সানির বিরুদ্ধে মামলা চলবে।

শুনানি শেষে মঙ্গলবার (২ এপ্রিল) নেত্রকোণার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৯ এর বিচারক মামলাটি নিষ্পত্তির আদেশ দেন।

কণ্ঠশিল্পী ন্যানসির আইনজীবী অ্যাডভোকেট জীবন কুমার সরকার বাংলানিউজকে বলেন, মঙ্গলবার ট্রাইব্যুনালে মামলার চার্জ শুনানি হয়। এতে মামলার দ্বিতীয় আসামি নাজমুন মুনিরা ন্যানসি এবং তৃতীয় আসামি ন্যানসির স্বামী নাজিমুজ্জামান যায়েদকে অব্যাহতি দেন আদালত। তবে মামলার প্রধান আসামি শাহরিয়ার আমান সানির বিরুদ্ধে মামলা চলবে।

এ বিষয়ে ন্যানসি বলেন, মামলার রায় আমাদের পক্ষে এসেছে। এতে খুব ভালো লাগছে। কারণ দীর্ঘদিন ধরে ঝামেলায় ছিলাম, এবার এটা দূর হয়েছে।

২০১৮ সালের ৬ সেপ্টেম্বর নেত্রকোণা মডেল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা করেন সানির তালাক প্রাপ্ত স্ত্রী সামিউন্নাহার শানু। মামলায় সানি, ন্যানসি ও ন্যানসির স্বামী নাজিমুজ্জামান যায়েদকে আসামি করা হয়। এরপর ০৭ সেপ্টেম্বর সানিকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

ওই মামলার অভিযোগে বলা হয়, প্রেমের সম্পর্কের সূত্র ধরে পারিবারিকভাবে ২০১৫ সালে সানি ও শানুর বিয়ে হয়। শানু শহরের সাতপাই চক্ষু হাসপাতাল রোড এলাকার বাসিন্দা। তাদের চার মাস বয়সী একটি সন্তান রয়েছে।

বিয়ের পর থেকেই সানি তার স্ত্রীকে যৌতুকের টাকার জন্য চাপ দিয়ে আসছিলেন। এরপর টাকা দিতে না পারায় মানসিক ও শারীরিক নির্যাতনের শিকার হতে থাকেন শানু।

আর এতে কণ্ঠশিল্পী ন্যানসি ও তার স্বামীর প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ ইন্ধন রয়েছে বলেও মামলায় অভিযোগ আনা হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৫১৯ ঘণ্টা, এপ্রিল ০২, ২০১৯
ওএফবি/জেআইএম

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   শেয়ার বাজার আদালত সঙ্গীত
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-04-02 15:19:46