bangla news

হাসপাতাল থেকে বাসায় ফিরছেন গাজী মাজহারুল আনোয়ার

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০১-০৬ ১২:৪৯:৪০ পিএম
গাজী মাজহারুল আনোয়ার

গাজী মাজহারুল আনোয়ার

প্রখ্যাত গীতিকার ও সুরকার গাজী মাজহারুল আনোয়ার হঠাৎ অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। শনিবার (০৫ জানুয়ারি) নিজ বাসায় মাথা ঘুরে পড়ে গেলে তাকে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তবে বর্তমানে তার শারীরিক অবস্থা উন্নতির দিকে।

রোববার (০৬ জানুয়ারি) সকালে গাজী মাজহারুল আনোয়ার বাংলানিউজকে বলেন, ‘শনিবার ফজরের নামাজ পড়তে গিয়ে আমি হঠাৎ মাথা ঘুরে খাটের উপর পড়ে যাই। এরপর পরিবারের সবাই আমাকে ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি করে।’

‘চিকিৎসক নানা ধরণের টেস্ট করেছেন। রিপোর্টে সবকিছু স্বাভাবিক এসেছে। আমিও শারীরিকভাবে আগের চেয়ে এখন ভালো অনুভব করছি। তাই আজ (রোববার) দুপুরের মধ্যে চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে বাসায় ফিরছি’, যোগ করেন ‘জয় বাংলা বাংলার জয়’খ্যাত কিংবদন্তি গীতিকার।

এদিকে শনিবার রাতে গাজী মাজহারুল আনোয়ারের অসুস্থতার খবর ছড়িয়ে পড়লে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শোবিজ অঙ্গনের অনেকে তার সুস্থতা কামনা করে পোস্ট দেন।

স্বাধীনতা ও দেশপ্রেম নিয়ে অসংখ্য কালজয়ী গানের স্রষ্টা গাজী মাজহারুল আনোয়ারের জন্ম ১৯৪৩ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি। তিনি একাধারে একজন চলচ্চিত্র পরিচালক, প্রযোজক, রচয়িতা, গীতিকার ও সুরকার। ১৯৬৪ সাল থেকে রেডিও পাকিস্তানে গান লেখা শুরু করেন তিনি। ১৯৬৭ সালে ‘আয়না ও অবশিষ্ট’তে তিনি প্রথম সিনেমার জন্য গান লেখেন।

গাজী মাজহারুল আনোয়ারের লেখা উল্লেখযোগ্য গানের তালিকায় রয়েছে- জয় বাংলা বাংলার জয়, একতারা তুই দেশের কথা বলরে এবার বল, একবার যেতে দে না আমার ছোট্ট সোনার গাঁয়, জন্ম আমার ধন্য হলো, গানেরই খাতায় স্বরলিপি, আকাশের হাতে আছে একরাশ নীল, যার ছায়া পড়েছে, শুধু গান গেয়ে পরিচয়, গীতিময় সেইদিন চিরদিন, ও পাখি তোর যন্ত্রণা, ইশারায় শীষ দিয়ে, চক্ষের নজর এমনি কইরা, এই মন তোমাকে দিলাম, চলে আমার সাইকেল হাওয়ার বেগে ইত্যাদি।

২০ হাজার গানের রচয়িতা গাজী মাজহারুল আনোয়ার পাঁচবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন। ২০০২ সালে তাকে একুশে পদকে ভূষিত করা হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১২৪৮ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০৬, ২০১৯
জেআইএম

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   সিনেমা সঙ্গীত
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-01-06 12:49:40