ঢাকা, সোমবার, ২৬ শ্রাবণ ১৪২৭, ১০ আগস্ট ২০২০, ১৯ জিলহজ ১৪৪১

বিনোদন

ঈদের সিনেমা দেখতে প্রেক্ষাগৃহে দর্শকদের উপচেপড়া ভিড়

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫২৯ ঘণ্টা, জুন ১৬, ২০১৮
ঈদের সিনেমা দেখতে প্রেক্ষাগৃহে দর্শকদের উপচেপড়া ভিড় প্রেক্ষাগৃহে লাগানো দুই সিনেমার পোস্টার ও দর্শক

সিনেমা ব্যবসার অন্যতম মৌসুম ঈদ। সাধারণত দুই ঈদের মধ্যে ঈদুল ফিতরে প্রেক্ষাগৃহে তুলনামূলক বেশি ছবি মুক্তি পায়। অন্য সময় একদিনে দু’টি সিনেমা মুক্তির নিয়ম থাকলেও ঈদে মুক্তির সংখ্যা উন্মুক্ত থাকে। তাই এসময় সিনেমা মুক্তি নিয়ে প্রতিযোগিতা লেগে যায়।

শনিবার (১৬ জুন) ঈদের দিন দেশের প্রেক্ষাগৃহে পাঁচটি চলচ্চিত্র মুক্তি পেয়েছে। এগুলোর মধ্যে আগে থেকে আলোচনায় রয়েছে ‘পোড়ামন ২’ ও ‘চিটাগাইঙ্গা পোয়া, নোয়াখাইল্লা মাইয়া’।

ঢাকার বেশ কয়েকটি প্রেক্ষাগৃহ ঘুরে দুইটি ছবিরই ভালো দর্শক দেখা গেছে। অভিসারে সারিবদ্ধভাবে দাঁড়িয়ে আছেন দর্শক দেশের ২২টি প্রেক্ষাগৃহে ‘পোড়ামন ২’ মুক্তি পেয়েছে। রাজধানীর নিউমার্কেটে অবস্থিত বলাকা প্রেক্ষাগৃহের টিকিট কাউন্টারে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সকালের শো’তে ভালো দর্শক ছিল। দুপুরের শো ছিল প্রায় হাউজফুল। সিনেমাটি ভালো ব্যবসা করবে বলে আশা করছে কর্তৃপক্ষ।

সিনেমাটির প্রতি দর্শকদের আগ্রহও চোখে পড়ার মতো। কেউ পরিবার নিয়ে, কেউ বন্ধুর দল নিয়ে, কেউ আবার একা সিনেমা দেখতে এসেছেন। বালয়াকার কাউন্টার থেকে টিকিট নিচ্ছেন এক দর্শকহাজারীবাগের বাসিন্দা হুমায়ূন কবির। তিনি কলেজ পড়ুয়া ছেলেকে নিয়ে রায়হান রাফি পরিচালিত ও সিয়াম-পূজা অভিনীত ‘পোড়ামন ২’ দেখতে এসেছেন। প্রতি ঈদেই তার সিনেমা দেখার অভ্যাস রয়েছে। তাছাড়া ভালো সিনেমা এলে তিনি হলে আসার চেষ্টা করেন। বলাকায় লাগামো 'পোড়ামন ২'র পোস্টারবাংলানিউজকে তিনি বলেন, ‘পোড়ামন ২’ এর ট্রেলার ও পোস্টার দেখে মনে হয়েছে এটি সামাজিক একটি সিনেমা। তাই ছেলেকে নিয়ে দেখতে এসেছি। এক সময় আমি নিয়মিত সিনেমা দেখতাম। কিন্তু কিছুদিন সিনেমায় অশ্লীলতা ছিলো। প্রেক্ষাগৃহে আসা বন্ধ হয়ে গিয়েছিলো। কিন্তু কয়েক বছর ধরে আমাদের দেশে ভালো সিনেমা হচ্ছে। তাই অন্তত ঈদে সিনেমা দেখার চেষ্টা করি। বাংলা সিনেমা আরও ভালো হোক আমার সে প্রত্যাশা থাকবে। প্রেক্ষাগৃহের দেয়ালে লাগানো ‘চিটাগাইঙ্গা পোয়া, নোয়াখাইল্লা মাইয়া’ পোস্টারটিকাটুলিতে অবস্থিত ‘অভিসার’ প্রেক্ষাগৃহে চলছে শাকিব-বুবলী অভিনীত ও উত্তম আকাশ পরিচালিত ‘চিটাগাইঙ্গা পোয়া, নোয়াখাইল্লা মাইয়া’। সারাদেশের ১৩৩টি প্রেক্ষাগৃহে সিনেমাটি মুক্তি পেয়েছে। 'অভিসার'র সামনে দর্শকদের দীর্ঘ লাইন লক্ষ করা গেছে। সব বয়সের দর্শক সিনেমাটি দেখতে ভিড় করেছে। সিনেমা দেখার অপেক্ষায় প্রেক্ষাগৃহে অপেক্ষারত দর্শকশাহজাহানপুর থেকে সিনেমা দেখতে এসেছেন কলেজ পড়ুয়া সাইফুল। তিনি বাংলানিউজকে বলেন, শাকিব খানের নতুন সিনেমা মুক্তি পেলেই আমি দেখতে আসি। প্রথম প্রেক্ষাগৃহে দেখেছিলাম ‘দাদীমা’। এরপর থেকে শাকিবের আর কোনও সিনেমা বাদ দেয়নি। আমার মনে হচ্ছে ‘চিটাগাইঙ্গা পোয়া, নোয়াখাইল্লা মাইয়া’ খুব ভালো হয়েছে। তাই বন্ধুদেরও সঙ্গে নিয়ে দেখতে এসেছি।

এছাড়া ঈদে মুক্তি পেয়েছে আশিকুর রহমান পরিচালিত ও শাকিব-বুবলী অভিনীত ‘সুপার হিরো’, আব্দুল মান্নান পরিচালিত ও শাকিব-অপু অভিনীত ‘পাংকু জামাই’ এবং নূর ইমরান মিঠু পরিচালিত ও তৌকীর-মোশাররফ অভিনীত ‘কমলা রকেট’। এই সিনেমাগুলোর মধ্যে ‘সুপার হিরো’ ঈদের দিন বেশ ভালো দর্শক পেয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ২০৪৮ ঘণ্টা, জুন ১৬, ২০১৮
জেআইএম/আরআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa