[x]
[x]
ঢাকা, শুক্রবার, ৪ কার্তিক ১৪২৫, ১৯ অক্টোবর ২০১৮
bangla news

‘আমি বিশ্বাস না করলে, একটি সংলাপও বলি না’

মো. জহিরুল ইসলাম, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৪-০৩ ৫:২১:১৮ এএম
সোহানা সাবা/ ছবি:রাজীন চৌধুরী-বাংলানিউজ

সোহানা সাবা/ ছবি:রাজীন চৌধুরী-বাংলানিউজ

চলচ্চিত্রের গল্প পছন্দ করে অভিনয় করার ব্যাপারে একটুও ছাড় দেন না সাবা। ছাড় দেবেনই বা কেন? দিন শেষে দর্শক গল্পটাইতো মনে রাখে। তাই তার সোজাসাপ্টা কথা, ‘গল্প মন ছুঁতে না পারলে, আমি কখনই কাজ করি না।’

সম্প্রতি ‘পাপ কাহিনী’ নামে নতুন একটি ছবিতে অভিনয়ের জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন ‘আয়না’খ্যাত এই অভিনেত্রী। খুব শিগগিরই শেষ হবে তার ‘আব্বাস ওটু’ ছবির শ্যুটিং। এছাড়াও কলকাতার ছবি নিয়েও রয়েছে ব্যস্ততা। পাশাপাশি তিনি নিয়মিত কাজ করছেন ছোট পর্দায়।

এক দুপুরে আড্ডায় বাংলানিউজের সঙ্গে বেশকিছু বিষয় নিয়ে কথা বলেন অভিনেত্রী সোহানা সাবা।

সোহানা সাবা/ ছবি:রাজীন চৌধুরী-বাংলানিউজঅভিনেতা ও আলোচিত উপস্থাপক শাহরিয়ার নাজিম জয় কিছুদিন আগে তৃতীয় চলচ্চিত্র নির্মাণের ঘোষণা দিয়েছেন। চলচ্চিত্রটিতে সাবার চুক্তিবদ্ধ হওয়ার বিষয়টি জানান তিনি। ‘পাপ কাহিনী’ নামের চলচ্চিত্রটি নির্মিত হবে চলচ্চিত্রের মানুষদের জীবনের গল্প নিয়ে। আগামী ২৮ এপ্রিল এর শ্যুটিং শুরু হওয়ার কথা রয়েছে। এতে সাবা ছাড়াও অভিনয় করবেন ইমন, এ বি এম সুমন ও তমা মির্জা।

সাবা বলেন, ‘পাপ কাহিনী’তে চলচ্চিত্রের নায়িকার চরিত্রেই আমি অভিনয় করছি। দর্শক এতে চরিত্রটির উত্থান-পতনের নানা গল্প দেখতে পাবে। তবে গল্পটি একটু অন্যভাবে বানানো। যেখানে নায়ক-নায়িকার সম্পর্কের বিষয়টি গতানুগতিক ধারায় মতো করে দেখানো হবে না। 

সোহানা সাবা/ ছবি:রাজীন চৌধুরী-বাংলানিউজ‘আয়না’, ‘খেলাঘর’, ‘প্রিয়তমেষু’, ‘চন্দ্রগ্রহণ’ ও ‘বৃহন্নলা’ ছবিগুলোতে দক্ষ অভিনেত্রী হিসেবেই নিজেকে মেলে ধরেছেন তিনি। তবে এই ছবিগুলোর মধ্যে গতানুগতিক ধারার নাচ-গান বা মারামারির উপাদান ছিলো না বললেই চলে। যেগুলোকে বাণিজ্যিক ধারার বাহিরের ছবি বলা হয়।

তবে প্রথমবার বাণিজ্যিক ছবিতে নাম লিখিয়েছেন সাবা। সাইফ চন্দন পরিচালিত ছবিটির নাম ‘আব্বাস ওটু’। এতে তার বিপরীতে অভিনয় করছেন নিরব।

সোহানা সাবা/ ছবি:রাজীন চৌধুরী-বাংলানিউজসাবার ভাষ্যে, ‘এটি পুরো ফর্মুলা সিনেমা। নাচ-গানে ভরপুর সিনেমা বলতে যেটিকে বোঝায়। আমার চরিত্রটিও সেভাবে সাজানো। তবে বাণিজ্যিক ছবি হলেও আমার বিশ্বাস, এর গল্প বলার ধরণটি অন্য ছবিগুলোর সঙ্গে কেউ মেলাতে পারবে না। আর এই ভিন্নতার কারণেই বাণিজ্যিক সিনেমা হলেও এতে কাজ করছি।’

অল্পকিছু সিকোয়েন্স ও গানের শ্যুটিং শেষ হলেই শুরু হবে ছবিটির ডাবিংয়ের কাজ। চলতি বছরেই ‘আব্বাস ওটু’ মুক্তি পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

সোহানা সাবা/ ছবি:রাজীন চৌধুরী-বাংলানিউজএই দুটি ছবি ছাড়াও নতুন আরও কয়েকটি ছবিতে সাবার অভিনয়ের কথা চলছে। ‘বাংলাদেশ ও ভারতীয় বেশকিছু ছবির নির্মাতাদের সঙ্গে আলোচনা চলছে। এরমধ্যে কয়েকটি ছবির খবর হয়তো খুব শিগগিরই দিতে পারবো। তবে এখনই কিছু বলতে চাচ্ছি না', বললেন সাবা।   

একই ধরণের চরিত্রে বারবার অভিনয় করতে একদমই পছন্দ করেন না। যখন যে চরিত্রে অভিনয় করেন, তখন সে চরিত্রের মতোই নিজেকে মনে করেন তিনি।

সোহানা সাবা/ ছবি:রাজীন চৌধুরী-বাংলানিউজহাস্যোজ্জ্বল এই অভিনেত্রী বলেন, ‘পর্দায় আমার একটি চরিত্রের সঙ্গে অন্য চরিত্রের কোন মিল থাকে না। প্রতি কাজে নতুন চরিত্রে নিজেকে নতুনভাবে উপস্থাপন করি। তবে আমি বাস্তব জীবনে যেমনি মিথ্যা বলি না। তেমনি আমি বিশ্বাস না করলে, ক্যামেরার সামনে একটি সংলাপও বলি না। আমি যখন যে চরিত্রে অভিনয় করি তখন আমি সেই চরিত্রের মানুষটিই হয়ে যাই।’

আঞ্চলিক ভাষায় কথা বলতে পারেন না সাবা। তাই আঞ্চলিক ভাষায় কথা বলতে হয়, এমন চরিত্র তিনি এড়িয়ে চলেন। তিনি বলেন, ‘প্রমিত ভাষায় কথা বলতে বা অভিনয় করতে আমি খুব স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি। কারণ আমি আঞ্চলিক ভাষায় কথা বলতে পারি না। যারা আঞ্চলিক ভাষায় কথা বলেন বা তেমন চরিত্রে কাজ করেন তাদের আমি মন থেকে সম্মান জানাই। কিন্তু আমার ভাণ্ডারে এতো ভাষা নেই। তাই প্রমিত বাংলা ভাষা ছাড়া আমি কথা বলতে পারি না।’

বাংলাদেশ সময়: ১৫০৫ ঘণ্টা, এপ্রিল ০৩, ২০১৮
জেআইএম/বিএসকে

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   চলচ্চিত্র
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache