ঢাকা, শনিবার, ৯ চৈত্র ১৪২৫, ২৩ মার্চ ২০১৯
bangla news

ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে পুরস্কার পেলেন যারা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৭-০১-২১ ১২:৫৩:১৩ এএম
তৌকীর আহমেদের ‘অজ্ঞাতনামা’কে দেওয়া হয় স্পেশাল মেনশন, ছবি: রাজীন চৌধুরী-বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

তৌকীর আহমেদের ‘অজ্ঞাতনামা’কে দেওয়া হয় স্পেশাল মেনশন, ছবি: রাজীন চৌধুরী-বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

পঞ্চদশ ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের সমাপনী দিনে শ্রেষ্ঠত্বের বিচারে পুরস্কৃত করা হলো ২৫টি ছবিকে। উৎসবে প্রদর্শিত ছবিগুলোর মধ্য থেকে বিচারকদের ভোটে বিজয়ীদের পুরস্কার দেওয়া হয়। শুক্রবার (২০ জানুয়ারি) বিকেলে জাতীয় জাদুঘরের প্রধান মিলনায়তনে এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর।

রেইনবো চলচ্চিত্র সংসদ আয়োজিত নয়দিনের এ উৎসবে চারটি বিভাগে পুরস্কৃত হয়েছে বাংলাদেশের ছবি। সেরা চলচ্চিত্র হিসেবে স্পেশাল মেনশন পেয়েছে নাদের চৌধুরী পরিচালিত সরকারি অনুদানের ছবি ‘লালচর’।

নারী চলচ্চিত্রকার বিভাগে সেরা চলচ্চিত্র হয়েছে কান উৎসবে প্রদর্শিত ও পুরস্কৃত ইরানের ইদা পানাহানদেহ পরিচালিত ‘নাহিদ’। সেরা প্রামাণ্যচিত্র হয়েছে বাংলাদেশের শবনম ফেরদৌসীর ‘জন্মসাথী’।

স্বল্প ও মুক্ত চলচ্চিত্র বিভাগে ভারতের শিবপ্রসাদ কে ভি পরিচালিত ‘আপ্পুপ্পানথাড়ি’র পাশাপাশি স্পেশাল মেনশন পেয়েছে বাংলাদেশের তারেক আজিজ নিশক পরিচালিত স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘প্যারালাল জার্নি’।

এশিয়ান ফিল্ম প্রতিযোগিতা বিভাগে সেরা অভিনেত্রী হয়েছে ফিলিস্তিনের মাইশা আবদ এলহাদি। সেরা অভিনেতা ইরানের ফারহাদ আসলানি, সেরা পরিচালক ইরানের পারভিজ শাহবাজি এবং সেরা চলচ্চিত্র নির্বাচিত হয়েছে ইরানের ‘ডটার’। এ ছাড়া তৌকীর আহমেদের ‘অজ্ঞাতনামা’ চলচ্চিত্রকে স্পেশাল মেনশন দেওয়া হয়।

‘লালচর’ ছবির জন্য পুরস্কার নিচ্ছেন নাদের চৌধুরী, ছবি-রাজীন চোধুরী-বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কমএকনজরে বিজয়ী তালিকা
সেরা শিশুতোষ ছবি (বাদল রহমান পুরস্কার): সেভেন স্যাকস অব রাইস (ফিলিপাইন)
অডিয়েন্স অ্যাওয়ার্ড: সোনার বরণ পাখি (ভারত)
সেরা চলচ্চিত্র: রেড গার্ডেন (আজারবাইজান, রাশিয়া)
স্পেশাল মেনশন (চলচ্চিত্র): লালচর (বাংলাদেশ)
সেরা প্রামাণ্য চলচ্চিত্র: আইল্যান্ডস অব দ্য মঙ্কস (নেদারল্যান্ডস)
স্পেশাল মেনশন (প্রামাণ্য চলচ্চিত্র): দ্য স্পেশাল চেয়ার (ইতালি)
সেরা স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র: দ্য সেমেটারি মেন (ইরান)

নারী চলচ্চিত্র নির্মাতার বিভাগ
সেরা চলচ্চিত্র: নাহিদ (ইরান)
স্পেশাল মেনশন (চলচ্চিত্র): আনটিল আই লুস মাই ব্রেদ (তুরস্ক, জার্মানি)
সেরা স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র: সেমেলে (সাইপ্রাস)
স্পেশাল মেনশন (স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র): চন্দ্র (ইরান, নেপাল)
সেরা প্রামাণ্য চলচ্চিত্র: জন্মসাথী (বাংলাদেশ)
স্পেশাল মেনশন (প্রামাণ্য চলচ্চিত্র): সাসপেন্ডেড টাইম (আর্জেন্টিনা, মেক্সিকো)

স্বল্পদৈর্ঘ্য ও মুক্ত চলচ্চিত্র
সেরা স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র: ইয়ামান (সিরিয়া)
স্পেশাল মেনশন (স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র): আপ্পুপ্পানথাড়ি (ভারত) ও প্যারালাল জার্নি (বাংলাদেশ)
সেরা প্রামাণ্য চলচ্চিত্র: অ্যা পলিটিক্যাল লাইফ (মিয়ানমার) ও ভাগিয়ালে বাচেকাহারু (নেপাল)

এশিয়ান চলচ্চিত্র বিভাগ
ফিপরেস্কি জুরি অ্যাওয়ার্ড (সেরা চলচ্চিত্র): দ্য ডার্ক উইন্ড (ইরাক, জার্মানি, কাতার)
ইন্টারন্যাশনাল জুরি অ্যাওয়ার্ড (সেরা চিত্রগ্রহণ): কোল্ড অব কালান্দার (তুরস্ক)
সেরা চিত্রনাট্য: লাইফ অ্যান্ড অ্যা ডে (ইরান) ও সোনার ক্যানার (তুরস্ক)
সেরা অভিনেত্রী: মাইসা আবদ এলহাদি (থ্রি থাউজেন্ড নাইটস, ফিলিস্তিন, লেবানন)
সেরা অভিনেতা: ফারহাদ আসলানি (ডটার, ইরান)
সেরা পরিচালক: পারভিজ শাহবাজি (ম্যালেরিয়া, ইরান)
সেরা চলচ্চিত্র: ডটার (ইরান)
স্পেশাল মেনশন: অজ্ঞাতনামা (বাংলাদেশ)

বাংলাদেশ সময়: ১১৫১ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২১, ২০১৭
এসও/জেএইচ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14