ঢাকা, সোমবার, ২ বৈশাখ ১৪৩১, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৫ শাওয়াল ১৪৪৫

বিনোদন

ঢালিউড সালতামামি ২০১৬

ব্যবসাসফল, প্রশংসিত ও আলোচিত ছবিগুলো

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২৪১ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৩, ২০১৬
ব্যবসাসফল, প্রশংসিত ও আলোচিত ছবিগুলো চঞ্চল চৌধুরী, শাকিব খান ও শ্রাবন্তী (ছবি সংগৃহীত)

দেশীয় চলচ্চিত্রের জন্য ২০১৬ ভালোয় ভালোয় কেটেছে। ব্যবসাসফল ছবির সংখ্যা হাতেগোনা হলেও এর মধ্যে দুটি চলচ্চিত্র ইতিহাস গড়েছে আয়ে। আশার কথা হলো, গতানুগতিক মসলাদার বাণিজ্যিক ছবির পাশাপাশি নতুন ঢঙের চলচ্চিত্রও ব্যবসা করেছে রমরমিয়ে।

দেশীয় চলচ্চিত্রের জন্য ২০১৬ ভালোয় ভালোয় কেটেছে। ব্যবসাসফল ছবির সংখ্যা হাতেগোনা হলেও এর মধ্যে দুটি চলচ্চিত্র ইতিহাস গড়েছে আয়ে।

আশার কথা হলো, গতানুগতিক মসলাদার বাণিজ্যিক ছবির পাশাপাশি নতুন ঢঙের চলচ্চিত্রও ব্যবসা করেছে রমরমিয়ে।
 
এ বছরের ১ জানুয়ারি মুক্তিপ্রাপ্ত ‘মাটির পরী’ দিয়ে লাভ-লোকসানের খাতা খোলা হয় ঢালিউডে। আগামী ৩০ ডিসেম্বর ‘মুখোশ মানুষ’ ও ‘মিসড কল’ মুক্তির মধ্য দিয়ে সম্পন্ন হবে পুরনো বছরের হিসাব-নিকাশ।
 
ব্যবসায়িক ফল, আলোচনা, তারকা উপস্থিতি, দেশ-বিদেশে অর্জিত পুরস্কারসহ নানা দিক বিবেচনা করে সালতামামিতে বাংলানিউজ তৈরি করেছে পাঁচটি করে ব্যবসাসফল, প্রশংসিত ও আলোচিত ছবির তালিকা।
 
ব্যবসাসফল ৫ ছবি
১. আয়নাবাজি (চঞ্চল চৌধুরী, পার্থ বড়ুয়া, নাবিলা)
অমিতাভ রেজা পরিচালিত এ ছবিতে তথাকথিত কোনো তারকা না থাকলেও জমিয়ে ব্যবসা করেছে। ঢাকাসহ সারাদেশেই দর্শকরা হুমড়ি খেয়ে পড়েছে এটি দেখতে। ‘মনপুরা’র পর এমন নজির আর দেখা যায়নি বলে মন্তব্য করেছেন অনেকে। টাকার সঙ্গে ‘আয়নাবাজি’র জন্য প্রশংসাও কম আসেনি। ৬৯তম কান চলচ্চিত্র উৎসবের বাণিজ্যিক শাখা মার্শে দ্যু ফিল্মে অংশ নেওয়ার পাশাপাশি বিভিন্ন দেশের উৎসবে পুরস্কৃত হয়েছে ছবিটি।
 
২. শিকারি (শাকিব খান, শ্রাবন্তী)
জাজ মাল্টিমিডিয়া ও কলকাতার এসকে মুভিজের যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত ছবিটি তুমুল ব্যবসা করেছে। এর মূল কৃতিত্ব নিঃসন্দেহে শাকিব খানের উপস্থিতি। তাকে নতুন রূপে পাওয়া গেছে এতে। জাকির হোসেন সীমান্ত ও কলকাতার জয়দেব মুখার্জি পরিচালিত ছবিটিতে কলকাতার শ্রাবন্তীর সঙ্গে শাকিবের রসায়ন জমেছে বেশ।
 
৩. বাদশা-দ্য ডন (জিৎ, নুসরাত ফারিয়া)
এটিও জাজ মাল্টিমিডিয়া এবং কলকাতার এসকে মুভিজের যৌথ প্রযোজনায় তৈরি হয়েছে। এর মাধ্যমে প্রথমবার দুই বাংলার ছবিতে অভিনয় করেছেন জিৎ। তার সঙ্গে নুসরাত ফারিয়ার জুটিতে দর্শকরা যে মজেছেন তা আব্দুল আজিজ ও কলকাতার বাবা যাদব পরিচালিত ছবিটির ব্যবসায়িক সাফল্যই বলে দিচ্ছে।
 
৪. বসগিরি (শাকিব খান, বুবলী)
ঢাকাইয়া চরিত্রে শাকিব খানের জমাটি অভিনয়ের সুবাদে ‘বসগিরি’ ভালো ব্যবসা করেছে। শামীম আহমেদ রনির পরিচালনায় এ ছবিতে তার সঙ্গে বড়পর্দায় অভিষেক হয় বুবলীর। টানা কয়েকটি ছবিতে তাদের চুক্তিবদ্ধ হওয়ার ঘটনা সাড়া ফেলে এ বছর। বলা হচ্ছে, অপু বিশ্বাসের পর বুবলীকে ক্যারিয়ার গড়তে শাকিবের সহযোগিতা লক্ষণীয়।
 
৫. রাজা ৪২০ (শাকিব, অপু বিশ্বাস)
ঢালিউডের জনপ্রিয় জুটি শাকিব খান ও অপু বিশ্বাসকে দর্শকরা বিভিন্ন ছবিতে পেয়েছে এ বছর। এর মধ্যে উত্তম আকাশ পরিচালিত ‘রাজা ৪২০’ মোটামুটি ভালোই ব্যবসা করেছে। কমেডি ধাঁচের ছবিটিতে শাকিবের অভিনয় দেখে তার নিয়মিত দর্শকরা যে মজা পেয়েছেন তা বলাবাহুল্য।
 
প্রশংসিত ৫ ছবি
১. অজ্ঞাতনামা (মোশাররফ করিম, নিপুণ, শহীদুজ্জামান সেলিম, ফজলুর রহমান বাবু)
তৌকীর আহমেদ পরিচালিত ছবিটি ৬৯তম কান চলচ্চিত্র উৎসবের বাণিজ্যিক শাখা মার্শে দ্যু ফিল্মে অংশ নেওয়ার পাশাপাশি বিভিন্ন দেশের উৎসবে পুরস্কৃত হয়েছে। ‘দ্য গডেস অন দ্য থ্রোন’ শীর্ষক কসোভোর চলচ্চিত্র উৎসবে ছবিটির জন্য সেরা পরিচালকের পুরস্কার জেতেন তৌকীর। সেখানে সেরা চিত্রনাট্যকারের পুরস্কারও এসেছে তার হাতে। ‘অজ্ঞাতনামা’র জন্য ওয়াশিংটন ডিসি সাউথ এশিয়ান ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের পঞ্চম আসরে সেরা পরিচালকের পুরস্কার জেতেন তিনি।
 
ইতালির গালফ অব নেপলস ইনডিপেনডেন্ট ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে ছবিটি অর্জন করে জুরি মেনশন অ্যাওয়ার্ড। অস্কারের ৮৯তম আসরের বিদেশি ভাষার ছবির বিভাগে বাংলাদেশ থেকে পাঠানো হয় এটি। মধ্যপ্রাচ্যে বাংলাদেশি শ্রমিকদের মানবেতর জীবনযাপনকে বিষয়বস্তু করে সাজানো হয়েছে এর গল্প।
 
২. শঙ্খচিল (প্রসেনজিৎ, কুসুম শিকদার, সাঁঝবাতি)
ভারতের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে সেরা বাংলা ছবির পুরস্কার পেয়েছে গৌতম ঘোষের ‘শঙ্খচিল’। এর বিষয়বস্তু পৃথিবীজুড়ে মানুষকে আলাদা করা সীমান্তের প্রতি তীব্র প্রতিবাদ। সীমান্তে মানুষ হত্যার বিষয়টিও স্থান পেয়েছে এতে।
 
ছবিটিতে প্রসেনজিতের সঙ্গে প্রথমবার অভিনয় করেছেন কুসুম সিকদার। তাদের মেয়ের চরিত্রে নবাগতা সাঁঝবাতির অভিনয় প্রশংসা কুড়িয়েছে। প্রযোজনা করেছে আশীর্বাদ চলচ্চিত্রের হাবিবুর রহমান খান, ইমপ্রেস টেলিফিল্ম লিমিটেডের ফরিদুর রেজা সাগর এবং কলকাতার প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় ও মৌ রায়চৌধুরী।
 
৩. আন্ডার কনস্ট্রাকশন (শাহানা গোস্বামী, রাহুল বোস, রিকিতা নন্দিনী শিমু)
‘মেহেরজান’ ছবির সুবাদে আলোচিত পরিচালক রুবাইয়াত হোসেনের দ্বিতীয় ছবি ‘আন্ডার কনস্ট্রাকশন’ বিভিন্ন দেশের বেশকিছু উৎসবে পুরস্কৃত হয়েছে।
 
এতে রুনা চরিত্রে অভিনয় করেছেন বলিউড অভিনেত্রী সাহানা গোস্বামী (রা.ওয়ান, রক অন, মিডনাইট চিলড্রেন)। ভারতীয় অভিনেতা রাহুল বোসকে দেখা যাবে নাট্যদলের তত্ত্বাবধায়ক চরিত্রে। এবারই প্রথম বাংলাদেশি ছবিতে কাজ করলেন তারা। বাংলাদেশের অভিনয়শিল্পীরা হলেন মিতা চৌধুরী, শাহাদাৎ হোসেন, তৌফিকুল ইসলাম ইমন, টোকাই নাট্যদলের রিকিতা নন্দিনী শিমু প্রমুখ।
 
শব্দদূষণ আর কংক্রিটের ঢাকায় মধ্যবিত্ত ও উচ্চমধ্যবিত্ত এবং গার্মেন্টস শ্রমিক নারীরা পুরুষতান্ত্রিক সমাজের বাসনার জালে আটকে থাকে। সেখান থেকে বের হওয়ার দ্বন্দ্বে জর্জরিত নারী জীবনের আত্মানুসন্ধানের গল্প বলা হয়েছে এতে। এর রয়া চরিত্রে অভিনয় করেছেন বলিউড অভিনেত্রী শাহানা গোস্বামি। অতিথি চরিত্রে আছেন ভারতীয় অভিনেতা রাহুল বোস। এ ছাড়াও দেখা গেছে বাংলাদেশের মিতা চৌধুরী, রিকিতা নন্দিনী শিমুকে। প্রযোজনায় খনা টকিজ।
 
৪. কৃষ্ণপক্ষ (রিয়াজ, মাহিয়া মাহি, ফেরদৌস)
এর মাধ্যমে চলচ্চিত্র পরিচালনায় আত্মপ্রকাশ করেন মেহের আফরোজ শাওন। তার নির্মাণশৈলী প্রশংসিত হয়েছে। হুমায়ূন আহমেদের ‘কৃষ্ণপক্ষ’ উপন্যাস অবলম্বনে তৈরি হয়েছে এটি। এতে উঠে এসেছে মুহিব ও অরুর প্রেম এবং তাদের জীবনের কথা।
 
‘কৃষ্ণপক্ষ’ প্রযোজনা করেছে ইমপ্রেস টেলিফিল্ম লিমিটেড। এ ছবির মাধ্যমে প্রথমবার চেনাজানা নাচ-গানের ফর্মূলার বাইরে এসে অভিনয় করেন মাহিয়া মাহি। তাকে দেখা গেছে রিয়াজের বিপরীতে। এ ছাড়াও অভিনয় করেন ফেরদৌস, তানিয়া আহমেদ, মৌটুসী বিশ্বাস, আজাদ আবুল কালাম, পূজা চেরি, ফারুক আহমেদ।
 
৫. অস্তিত্ব (আরিফিন শুভ, নুসরাত ইমরোজ তিশা)
প্রতিবন্ধীদের গল্প নিয়ে নির্মিত ‘অস্তিত্ব’ বিষয়বস্তুর জন্য প্রশংসিত হয়েছে। প্রতিবন্ধী শিশুদেরকে সমাজে বোঝা মনে করা হলেও তারা সাধারণ শিশুদের মতোই- মূলত এই বার্তা ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছে এতে।
 
ড্রিমবক্স লিমিটেড প্রযোজিত এ ছবির মাধ্যমে প্রথমবার চলচ্চিত্রে জুটি বাঁধেন আরিফিন শুভ ও তিশা। অনন্য মামুন পরিচালিত ছবিটি থেকে অর্জিত অর্থের পুরোটাই প্রতিবন্ধী শিশুদের আবাসন প্রকল্পে ব্যয় করা হচ্ছে।
 
আলোচিত ৫ ছবি
১. সম্রাট (শাকিব খান, অপু বিশ্বাস, ইন্দ্রনীল সেনগুপ্ত; পরিচালনায় মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ)
২. পূর্ণদৈর্ঘ্য প্রেম কাহিনি টু (শাকিব খান, জয়া আহসান, ইমন; পরিচালনায় সাফিউদ্দিন সাফি)
৩. আইসক্রিম (নাজিফা তুষি, রাজ, উদয়; পরিচালনায় রেদওয়ান রনি)
৪. রানা পাগলা-দি মেন্টাল (শাকিব খান, নুসরাত ইমরোজ তিশা, আঁচল; পরিচালনায় শামীম আহমেদ রনি)
৫. রক্ত (পরীমনি, রোশান; পরিচালনায় সুমন)
 
বাংলাদেশ সময়: ০৪৩৮ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৪, ২০১৬
জেএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।