ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ আশ্বিন ১৪৩০, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৫

বিনোদন

‘দীপ্ত টিভি নব্য রাজাকার’, বন্ধের দাবি

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২০৬ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৯, ২০১৬
‘দীপ্ত টিভি নব্য রাজাকার’, বন্ধের দাবি ছবি: সংগৃহীত

‘বিজয় দিবসে যে টিভি চ্যানেল বিদেশি অপসংস্কৃতিপূর্ণ সিরিয়াল প্রচার করে, তারা নব্য রাজাকার। অবিলম্বে এই চ্যানেল বন্ধ করে দেওয়া উচিত’।

ঢাকা: ‘বিজয় দিবসে যে টিভি চ্যানেল বিদেশি অপসংস্কৃতিপূর্ণ সিরিয়াল প্রচার করে, তারা নব্য রাজাকার। অবিলম্বে এই চ্যানেল বন্ধ করে দেওয়া উচিত’।

দেশি টেলিভিশন চ্যানেলে বাংলা ডাবিং করা বিদেশি অপসংস্কৃতিপূর্ণ সিরিয়াল বন্ধের দাবিতে আয়োজিত শিল্পী ও কলাকুশলীদের আন্দোলন কর্মসূচি থেকে উঠে এলো এমন আওয়াজ।

সোমবার ( ডিসেম্বর ১৯) সকালে রাজধানী তেজগাঁয়ে অবস্থিত দীপ্ত টিভির কার্যালয়ের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করে টিভি শিল্পী-কলাকুশলীদের সম্মিলিত প্লাটফর্ম ফেডারেশন অব টেলিভিশন প্রফেশনাল অর্গানাইজেশন (এফটিপিও)। এই কর্মসূচিতে যোগ দিয়ে বক্তব্য রাখেন দেশের বরেণ্য সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব সৈয়দ হাসান ইমাম, নাট্যব্যক্তিত্ব মামুনুর রশীদ, প্রবীণ অভিনেতা আমিরুল হক চৌধুরী, কে এস ফিরোজ, গাজী রাকায়েত, মাসুম রেজা।

আরও উপস্থিত ছিলেন এস এ হক অলিক, নাদের চৌধুরী, মাহফুজ আহমেদ, চয়নিকা চৌধুরী, জাকিয়া বারী মম, নওশিন, তুষ্টিসহ টেলিভিশন জগতের পরিচিত বহু মুখ।

বিজয়ের মাসে বিজাতীয় অপসংস্কৃতিতে ভরা বিদেশি সিরিয়াল দেখিয়ে দীপ্ত টিভি মুক্তিযুদ্ধের চেতনার সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছে বলে এ সময় উল্লেখ করেন বক্তারা। দীপ্ত টিভিকে নব্য রাজাকার আখ্যা দিয়ে তাই অবিলম্বে চ্যানেলটির সম্প্রচার বন্ধের জন্য সরকারের প্রতি দাবি জানান তারা।

এফটিপিও’র আহ্বায়ক মামুনুর রশীদ বলেন,‘ বাংলাদেশে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার বন্ধ করার জন্য তুরস্ক সরকার চাপ প্রয়োগ করেছিলো। অথচ সেই তুরস্কের একটি সিরিয়াল কীভাবে বাংলাদেশের টিভি চ্যানেলে প্রচার হচ্ছে? সরকারের কাছে এই প্রশ্ন রাখতে চাই।  

সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব সৈয়দ হাসান ইমাম বলেন, ‘মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে এদেশ স্বাধীন হয়েছে।  নিজেদের সংস্কৃতি ধ্বংস করে মুক্তিযুদ্ধের চেতনার বিপরীতে কোন অনুষ্ঠান যেন প্রচার করতে না পারে তার জন্য আইন প্রণয়ন করা হোক। ’

ডিরেক্টরস গিল্ডের সভাপতি গাজী রাকায়েত বলেন, ‘যে চ্যানেল বিজয় দিবসে বাংলাদেশি সংস্কৃতির সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ নয়, এমন অনুষ্ঠান প্রচার করে; সেই চ্যানেলের লাইসেন্স বাতিল করে দেওয়া উচিত। এরা মুক্তিযুদ্ধের বিপক্ষের চ্যানেল। এরা বাঙালি সংস্কৃতি বিরোধী, এরা নব্য রাজাকার।  

উল্লেখ্য, দীপ্ত টিভির ব্যবস্থাপনা পরিচালক কাজী ফার্মস লিমিটেডের কাজী জাহেদুল হাসান, পরিচালক কাজী জাহিন হাসান ও কাজী রাবেদ হাসান।

বাংলাদেশ সময়: ১৮০৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৯, ২০১৬
আরআই

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa