bangla news
লাক্স-কান কথা

স্টিভেন স্পিলবার্গের খুব সামনে

জনি হক, স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৬-০৫-১৪ ১:২০:১৬ পিএম
ছবি - বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি - বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

স্টিভেন স্পিলবার্গ এসে যেখানে বসবেন ঠিক সেই চেয়ার বরাবর দাঁড়িয়ে থাকলাম। তিনি এই ঘরটাতে ঢোকা মাত্রই ভিডিও করবো, ছবি তুলবো।

কান (ফ্রান্স) থেকে: স্টিভেন স্পিলবার্গ এসে যেখানে বসবেন ঠিক সেই চেয়ার বরাবর দাঁড়িয়ে থাকলাম। তিনি এই ঘরটাতে ঢোকা মাত্রই ভিডিও করবো, ছবি তুলবো। সুযোগ পেলে সেলফিটাও বাদ দেবো না। এই জায়গায় দাঁড়ানোর জন্য দুপুর ১টা (বাংলাদেশ সময় বিকেল পাঁচটা) থেকে লাইনে দাঁড়িয়েছি। তখন পেছনে আর কেউ নেই।

ঠিক এক ঘণ্টা পর ঢোকা গেলো। চেয়ারে বসার পরিবর্তে মঞ্চের ঠিক নিচে হেলান দিয়ে দাঁড়িয়ে রইলাম। শনিবার (১৪ মে) দুপুর পৌনে ৩টায় সংবাদ সম্মেলন কক্ষে ঢুকলেন সেলুলয়েডের জাদুকর স্টিভেন স্পিলবার্গ। সঙ্গে এলেন রেবেকা হল, মার্ক রাইল্যান্স, পেনেলোপি উইলটন, জিমেইন ক্লেমেন্ত, শিশুশিল্পী রুবি বার্নহিল, প্রযোজকদ্বয় ক্যাথলিন কেনেডি ও ফ্রাঙ্ক মার্শাল। তাদের দেখার সময় কই!

পরিচালকও যে তারকা হতে পারেন, স্পিলবার্গই সম্ভবত গোটাবিশ্বে এর সবচেয়ে জ্বলজ্বলে উদাহরণ। থাকেন ক্যামেরার পেছনে, অথচ ক্যামেরার সামনের শিল্পীদের চেয়েও তাকে ঘিরে থাকে যতো কৌতূহল। বিশ্ব চলচ্চিত্রের ইতিহাসে তার মতো এতো জনপ্রিয় পরিচালক বিরল। সংবাদ সম্মেলনে বিভিন্ন দেশের সাংবাদিকদের ছবি তোলা আর অটোগ্রাফ নেওয়ার চিত্র দেখে বুঝতে বাকি রইলো না।কৈশোরে ঢাকার মধুমিতা প্রেক্ষাগৃহে স্টিভেন স্পিলবার্গের বিখ্যাত ছবি 'সেভিং প্রাইভেট রায়ান' দেখেছিলাম। এই ছবি ও  'শিন্ডলার্স লিস্ট' (১৯৯৩) সেরা পরিচালক হিসেবে অস্কার পুরস্কার এনে দিয়েছে তাকে। তার বিখ্যাত ছবির তালিকায় আরও রয়েছে 'ক্লোজ এনকাউন্টার্স অব দ্য থার্ড কাইন্ড' (১৯৭৭), 'এম্পায়ার অব দ্য সান' (১৯৮৭),'অ্যামিস্টাড' (১৯৯৭), 'এ.আই. আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স' (২০০১), 'মিউনিখ' (২০০৫), 'ওয়ার হর্স' (২০১১), 'ব্রিজ অব স্পাইস' (২০১৫), 'ইন্ডিয়ানা জোন্স' সিরিজ প্রভৃতি।

কান উৎসবে প্রতিযোগিতা বিভাগের বাইরে স্থান পেয়েছে স্টিভেন স্পিলবার্গের নতুন ছবি 'দ্য বিএফজি'। ৪১টি ভাষায় অনূদিত রোয়াল্ড ডালের শিশুতোষ গ্রন্থ অবলম্বনে তৈরি হয়েছে এটি।  'বিএফজি' মানে 'বিগ ফ্রেন্ডলি জায়ান্ট'। ছবিটির গল্পে দেখা যায়, সোফি নামের একটি বালিকার সঙ্গে বিশালাকার মানুষের পরিচয় হয়, তার নামই বিএফজি। ততোদিনে মানুষের পৃথিবীতে ঢুকে পড়েছে বিএফজির মতো বিশাল দৈত্যরা। কিন্তু তারা বন্ধুসুলভ নয়। উল্টো মানুষ খেয়ে ফেলে! তাই সোফি ও বিএফজি মিলে মানুষখেকো মন্দ দৈত্যদের বন্দি করার রোমাঞ্চকর অভিযানে নামে।

ছবিটি দেখলে আবার বোঝা যাবে, কেন স্পিভেন স্পিলবার্গকে বিজ্ঞানীদের চেয়েও বেশি কিছু মনে করা যায়। তিনি যা বানান, তা-ই বিখ্যাত হয়ে যায়। এবারও যে ব্যতিক্রম হচ্ছে না তা আগাম বলে দেওয়া যায়। সিরিয়াস বিষয় নিয়ে টানা দুটি ছবি (লিংকন, ব্রিজ অব স্পাইস) নির্মাণের পর একটু বাণিজ্যিক ছোঁয়া আছে এমন ছবি বানালেন তিনি। কান উৎসবের ৬৯তম আসরে এরই মধ্যে প্রশংসা কুঁড়িয়েছে 'দ্য বিএফজি'।দক্ষিণ ফ্রান্সের শহরটিতে তিন বছর আগে এসেছিলেন স্পিলবার্গ। ৬৬তম কান চলচ্চিত্র উৎসবে প্রতিযোগিতা বিভাগের বিচারকদের সভাপতি ছিলেন তিনি।

হলিউডে নতুন ধারা প্রবর্তনের অগ্রদূত বলা হয়ে থাকে স্পিলবার্গকে। হলিউডে আধুনিক ব্লকবাস্টার চলচ্চিত্র নির্মাণের পেছনে তার শুরুর দিককার কল্পবিজ্ঞান ও অ্যাডভেঞ্চারধর্মী ছবিগুলোকে ধরা হয় আদর্শ।

স্পিলবার্গের বানানো 'জজ' (১৯৭৫), 'ই.টি. দ্য এক্সট্রা টেরেস্ট্রিয়াল' (১৯৮২) ও 'জুরাসিক পার্ক' (১৯৯৩) বক্স অফিসে রেকর্ড গড়েছিলো। স্পিলবার্গ পরিচালিত ছবিগুলোর বিশ্বব্যাপী মোট আয়ের পরিমাণ ৯০০ কোটি মার্কিন ডলার। আর কোনো পরিচালকের ছবি এতো ব্যবসা করেনি। তার নিজের সম্পদের পরিমাণই ৩০০ কোটি ডলার।চার দশকেরও বেশি সময়ের চলচ্চিত্র জীবনে বিভিন্ন ভাবনা ও ঘরানার ছবি বানিয়েছেন স্পিলবার্গ। সংবাদ সম্মেলনে সেকথা জানিয়ে তিনি বললেন, ছবি বানাতে গিয়ে '৪৪ বছরে অনেক মানুষের সঙ্গে পরিচয় হয়েছে। তাদের সহকর্মী হতে পেরে আমি গর্বিত।'

হলিউডের ড্রিমওয়ার্কস স্টুডিওর সহ-প্রতিষ্ঠাতা স্পিলবার্গ। নিজের ড্রিম অর্থাৎ স্বপ্ন বিষয়ে তিনি বললেন, 'এখনও আমি স্বপ্ন নিয়ে কাজ করছি। আমার স্বপ্ন এখনও থামেনি, এটি চলমান প্রক্রিয়া। স্বপ্নেরা থামে না।'

বাংলাদেশ সময়: ২৩০৮ ঘণ্টা, মে ১৪, ২০১৬
জেএইচ/আইএ

** লালগালিচায় তৌকীর-বিপাশা
**প্রস্তুতি ছাড়াই কান মাতালেন ঐশ্বরিয়া
** পাগলা হাওয়ার তোড়ে...
** এই রাত ক্লুনি-আমালের!
***আরাধ্যকে নিয়ে কানে ঐশ্বরিয়া

***জুলিয়া রবার্টসের পায়ে জুতা নেই!
***তোমরা ভুলে গেছো মল্লিকার নাম!
***জুলিয়েট বিনোশকে দেখে চোখ ফেরানো দায়!
***এক প্যাকেট বাদাম দুই ইউরো
**মন কেড়ে নেওয়া গল্পগুলো
**কান উৎসবের বাজেট ২ কোটি ইউরো!
**বাংলানিউজের ক্যামেরাবন্দি জুলিয়া রবার্টস ও জর্জ ক্লুনি
**দেখুন কানে কি না হয়!

** পর্দা উঠলো কান উৎসবের
** হেঁটেছি স্বপ্নের লাল গালিচায়
** শুরুর আগেই জমে উঠেছে লড়াই!
** বিচারকদের সামনে বাংলানিউজ
** সারারাত বৃষ্টির পর ‘ক্যাফে সোসাইটি’
** ইস্তাম্বুলে আইসক্রিম কিনলে ওয়াইফাই ফ্রি!
** ব্যাজের সঙ্গে ব্যাগভর্তি কাগজপত্র দিলেন আয়োজকরা
** কান উৎসবের পর্দা ওঠার অপেক্ষা

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

এই বিভাগের সব খবর

Alexa
cache_14 2016-05-14 13:20:16