ঢাকা, রবিবার, ৭ আশ্বিন ১৪২৬, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯
bangla news
লাক্স-কান কথা

জুলিয়েট বিনোশকে দেখে চোখ ফেরানো দায়!

জনি হক, স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৬-০৫-১৩ ৮:৫৮:৪৬ এএম
ছবি - বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি - বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

লাল-কালোর সম্মিলনে নকশা করা শার্টের সঙ্গে কালো প্যান্ট। কান কিংবা নাকে কোনো অলঙ্কার নেই। বয়কাট চুলগুলো অগোছালো। অথচ কী দারুণ সৌন্দর্য ঠিকরে পড়ছে...

কান (ফ্রান্স) থেকে: লাল-কালোর সম্মিলনে নকশা করা শার্টের সঙ্গে কালো প্যান্ট। কান কিংবা নাকে কোনো অলঙ্কার নেই। বয়কাট চুলগুলো অগোছালো। অথচ কী দারুণ সৌন্দর্য ঠিকরে পড়ছে জুলিয়েট বিনোশের! তাই দৃষ্টি ফেরানো ছিলো দায়! কে বলবে তার বয়স ৫২ বছর!

জুলিয়েট বিনোশ যেন ফরাসি আভিজাত্যের প্রতীক। সাদাসিধে থেকেও ঠিকই নিজের দিকে সব আলো কেড়ে নিতে পারেন! তাকে পেয়ে যেন ফরাসি সৌরভ ছড়িয়ে পড়লো প্যালে ডি ফেস্টিভ্যাল ভবনের তিনতলার সংবাদ সম্মেলন কক্ষের বাইরে।

এবারের কান উৎসবে স্বর্ণপাম জেতার লড়াইয়ে প্রতিযোগিতা বিভাগে আছে জুলিয়েট বিনোশ অভিনীত ফরাসি ছবি 'স্লেক বে'। শুক্রবার (১৩ মে) সকাল ৮টায় গ্র্যান্ড থিয়েটার লুমিয়েরে এর উদ্বোধনী প্রদর্শনী হয়েছে। সকাল সাড়ে ৮টায়ও সাল দুবুসিতে এটি দেখা গেছে।

ব্রুনো ডুম পরিচালিত কমেডি ধাঁচের ছবিটির প্রেক্ষাপট ১৯১০ সালের গ্রীষ্মকাল। সেই সময় ইংলিশ চ্যানেলের সাগরপাড়ে বেশ কয়েকজন পর্যটক নিখোঁজ হন। ইন্সপেক্টর মাচিন ও ম্যালফয় এই রহস্যের কিনারা করতে হাজির হন স্লেক বে নামক স্থানে। এখানে জেলে সম্প্রদায়ের বসবাস। তাদের মধ্যে একটি পরিবারকে ঘিরে থাকে যতো কৌতূহল। দুপুর ২টা ও সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় গ্র্যান্ড থিয়েটার লুমিয়েরে আরও দু'বার এর প্রদর্শনী হবে।

শুক্রবার সকাল ১১টায় সংবাদ সম্মেলনে হাজির হন জুলিয়েট বিনোশ। কান চলচ্চিত্র উৎসবে প্রতি বছরই অংশগ্রহণকারীদের সংখ্যা বাড়ছে। যেমন এবার সাড়ে চার হাজার সংবাদকর্মী এসেছেন বিভিন্ন দেশ থেকে। এ কারণে সংবাদ সম্মেলনে জায়গা পাওয়া কঠিন হচ্ছে প্রতিদিনই। তাই বাইরে অপেক্ষায় থাকা, জুলিয়েট বিনোশ বের হতেই মোবাইলের ভিডিও চালু করা। তিনি একটু সামনে এগোতেই 'জুলিয়েট, জুলিয়েট' বলে ডাক। তিনি প্রায় সামনাসামনি চলে এলেন। পঞ্চাশে পা রেখেও কী অসামান্য সুন্দর! কী ফরসা গায়ের রঙ! হালকা বাদামি রঙের চোখজোড়া এখনও তরুণদের কবি বানিয়ে দিতে পারে!

ফরাসি চলচ্চিত্রের সবচেয়ে বড় বিজ্ঞাপন যারা, জুলিয়েট বিনোশ তাদেরই অন্যতম। জ্যঁ-লুক গদার থেকে শুরু করে বিখ্যাত অনেক নির্মাতার সঙ্গে কাজ করেছেন তিনি। স্টিভেন স্পিলবার্গের 'জুরাসিক পার্ক'-এ অভিনয়ের প্রস্তাব ফিরিয়ে জুলিয়েট বেছে নিয়েছেন ক্রিস্তোফ কিসলোস্কির 'ব্লু' (১৯৯৩)। তার খ্যাতি আছে হলিউডেও। অ্যান্থনি মিঙ্গেলার 'দ্য ইংলিশ প্যাশেন্ট' তাকে এনে দেয় অস্কার পুরস্কার। এ ছাড়া লাসে হলস্ট্রমের 'চকোলেট' ছবির জন্য পেয়েছেন অস্কার মনোনয়ন।

কান উৎসবে ২০১০ সালে আব্বাস কিয়ারোস্তামির 'সার্টিফায়েড কপি'র জন্য সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার জয় করেন বিনোশ। তিনিই ইউরোপের একমাত্র অভিনেত্রী যার ঝুলিতে কান, বার্লিন ও ভেনিস চলচ্চিত্র উৎসবের সেরা অভিনেত্রী বিভাগের পুরস্কার আছে।

শুধু চলচ্চিত্রেই নয়, মঞ্চেও দুর্দান্ত অভিনয় দেখিয়েছেন জুলিয়েট বিনোশ। তাছাড়া তিনি দারুণ নাচতেও পারেন। ২০০৮ সালে বাংলাদেশি বংশোদ্ভুত ব্রিটিশ নৃত্যশিল্পী আকরাম খানের সঙ্গে মডার্ন ড্যান্সের প্রযোজনা নিয়ে বিভিন্ন দেশ ঘুরেছেন বিনোশ।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৫৬ ঘণ্টা, মে ১৩, ২০১৬
জেএইচ/আইএ

***এক প্যাকেট বাদাম দুই ইউরো
**মন কেড়ে নেওয়া গল্পগুলো
**কান উৎসবের বাজেট ২ কোটি ইউরো!
**বাংলানিউজের ক্যামেরাবন্দি জুলিয়া রবার্টস ও জর্জ ক্লুনি
**দেখুন কানে কি না হয়!

** পর্দা উঠলো কান উৎসবের
** হেঁটেছি স্বপ্নের লাল গালিচায়
** শুরুর আগেই জমে উঠেছে লড়াই!
** বিচারকদের সামনে বাংলানিউজ
** সারারাত বৃষ্টির পর ‘ক্যাফে সোসাইটি’
** ইস্তাম্বুলে আইসক্রিম কিনলে ওয়াইফাই ফ্রি!
** ব্যাজের সঙ্গে ব্যাগভর্তি কাগজপত্র দিলেন আয়োজকরা
** কান উৎসবের পর্দা ওঠার অপেক্ষা

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

এই বিভাগের সব খবর

Alexa
cache_14 2016-05-13 08:58:46