bangla news
ফ্রান্স থেকে জনি হক

কান উৎসবের পর্দা ওঠার অপেক্ষা

জনি হক, স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৬-০৫-১০ ২:৪৯:৪৯ পিএম
ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

রূপালি আলোয় ঝলমল করে উঠতে যাচ্ছে ফ্রান্সের দক্ষিণাঞ্চল কান। উৎসবের দৌলতে এই শহর হয়ে গেছে চলচ্চিত্রপ্রেমীদের তীর্থস্থান। প্রতিবারের মতো ৬৯তম কান চলচ্চিত্র উৎসবকে ঘিরে তামাম দুনিয়ার সেলুলয়েডের রথী-মহারথীদের অংশগ্রহণ দেখা যাবে।

কান (ফ্রান্স) থেকে : রূপালি আলোয় ঝলমল করে উঠতে যাচ্ছে ফ্রান্সের দক্ষিণাঞ্চল কান। উৎসবের দৌলতে এই শহর হয়ে গেছে চলচ্চিত্রপ্রেমীদের তীর্থস্থান। প্রতিবারের মতো ৬৯তম কান চলচ্চিত্র উৎসবকে ঘিরে তামাম দুনিয়ার সেলুলয়েডের রথী-মহারথীদের অংশগ্রহণ দেখা যাবে। তাই বিশ্ব চলচ্চিত্রের এই মহাযজ্ঞের দিকেই এখন সবার নজর। আয়োজকরাও সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছেন।

কান উৎসবের মূলকেন্দ্র প্যালে ডি ফেস্টিভ্যাল ভবনের পাশেই গ্র্যান্ড থিয়েটার লুমিয়ের। বিশাল এই প্রেক্ষাগৃহে বুধবার (১১ মে) সন্ধ্যা সোয়া সাতটায় (বাংলাদেশ সময় রাত সোয়া ১১টা) এ আয়োজনের উদ্বোধন হবে। এটি উপস্থাপনা করবেন ফরাসি অভিনেতা লঁরা লফে।

উদ্বোধনের পর রাত আটটায় (বাংলাদেশ সময় রাত ১২টা) একই প্রেক্ষাগৃহে দেখানো হবে এবারের উদ্বোধনী ছবি উডি অ্যালেনের ‘ক্যাফে সোসাইটি’। প্রতিযোগিতা বিভাগের বাইরে স্থান পাওয়া ছবিটির পয়লা প্রদর্শনী সাল দুবুসি প্রেক্ষাগৃহে সকাল ১০টায় (বাংলাদেশ সময় দুপুর ২টা) দেখার সুযোগ পাবেন সংবাদকর্মীরা।

‘ক্যাফে সোসাইটি’র গল্প এক তরুণকে ঘিরে। ১৯৩০-এর দশকে চলচ্চিত্র শিল্পে কাজ করার আশায় হলিউডে পা রাখে সে। এরপর এক তরুণীর প্রেমে পড়ে। এই মেয়েটিও হলিউডের উঠতি তারকা।

গত বছরের কান উৎসবেও ছিলেন উডি অ্যালেন, ওইবার দেখেছি তার ‘ইরেশনাল ম্যান’। এবারও আলোচনায় ৮০ বছর বয়সী বর্ষীয়ান এই মার্কিন নির্মাতা। এ নিয়ে তৃতীয়বারের মতো কানের পর্দা উঠবে কোনো নির্মাতার ছবির মাধ্যমে। এরআগে, তার ‘হলিউড এন্ডিং’ (২০০২) ও ‘মিডনাইট ইন প্যারিস’ (২০১১) এ উৎসবের উদ্বোধনী ছবির মর্যাদা পায়।

সব মিলিয়ে ১৪বার কান উৎসবের প্রতিযোগিতা বিভাগের বাইরে স্থান পেলো মার্কিন পরিচালক, চিত্রনাট্যকার, অভিনেতা, লেখক ও কমেডিয়ান উডি অ্যালেনের ছবি।

উডি অ্যালেন রসিক মানুষ। গতবার সংবাদ সম্মেলনে সংবাদকর্মীদের প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়ে হাস্যরসধর্মী কথাবার্তা বলে জমিয়ে রেখেছিলেন আলোচনা। এবারও ব্যতিক্রম হবে না আশা আছে। সংবাদকর্মীদের 'ক্যাফে সোসাইটি' দেখানো শেষে দুপুর সাড়ে ১২টায় (বাংলাদেশ সময় বিকেল সাড়ে চারটা) এর কলাকুশলীরা হাজির হবেন সংবাদ সম্মেলনে।

এখানে উডির সঙ্গে আসবেন ছবিটির অভিনয়শিল্পী ক্রিস্টেন স্টুয়ার্ট, জেসি আইজেনবার্গ, ব্লেক লিভলি, কোরি স্টল ও চিত্রগ্রাহক ভিত্তোরিও স্তোরারো।

এবার প্রতিযোগিতা বিভাগের বাইরে দেখানো হবে আরও চারটি ছবি। এর মধ্যে তিনটিই যুক্তরাষ্ট্রের। এগুলো হলো স্টিভেন স্পিলবার্গের ‘ডিজনি’স দ্য বিএফজি’, জোডি ফস্টারের ‘মানি মনস্টার’ (জর্জ ক্লুনি, জুলিয়া রবার্টস) এবং শেন ব্ল্যাকের ‘দ্য নাইস গাইস’ (রাসেল ক্রো, রায়ান গসলিং)। বাকি ছবিটি দক্ষিণ কোরিয়ার না হং-জিনের ‘গোকসাঙ’।

৬৯তম কান উৎসবে মূল প্রতিযোগিতা বিভাগে স্থান পেয়েছে মোট ২১টি ছবি। এর মধ্যে বুধবার সন্ধ্যা সাতটায় (বাংলাদেশ সময় রাত ১১টা) সাল দুবুসিতে ক্রিস্টি পুইউ পরিচালিত 'সিয়েরা নেভাদা'র (রোমানিয়া) প্রথম প্রদর্শনী হবে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠান দেখতে গিয়ে কেউ এতে অংশ নিতে না পারলেও অসুবিধা নেই।রাত ৯টায় (বাংলাদেশ সময় রাত ১টা) সাল বাজিন প্রেক্ষাগৃহে ফের দেখানো হবে ছবিটি। এর দৈর্ঘ্য ২ ঘণ্টা ৫৩ মিনিট।

উৎসবে বিচারকদের সভাপতি থাকছেন অস্ট্রেলীয় পরিচালক, চিত্রনাট্যকার ও প্রযোজক জর্জ মিলার। তার নেতৃত্বে বিচারকের দায়িত্ব পালন করবেন ফরাসি পরিচালক ও লেখক আহনু ডিপলিশা, মার্কিন অভিনেত্রী ক্রির্সটেন ডান্সট, ইতালিয়ান অভিনেত্রী, পরিচালক, লেখক ও প্রযোজক ভ্যালেরিয়া গোলিনো, ডেনমার্কের অভিনেতা ম্যাডস মিকেলসেন, হাঙ্গেরির পরিচালক ও লেখক লাজলো নেমেস, ফরাসি অভিনেত্রী ও গায়িকা ভ্যানেসা প্যারাডিস, ইরানি নারী প্রযোজক কাতাইয়ু শাহাবি এবং কানাডিয়ান অভিনেতা ডোনাল্ড সাদারল্যান্ড। তাদের বিচারেই চূড়ান্ত হবে উৎসবের সর্বোচ্চ পুরস্কার স্বর্ণপাম জয়ী ছবি।

বুধবার(১১ মে) দুপুর আড়াইটায় (বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টা) বিচারকরা হাজির হবেন সংবাদ সম্মেলনে।

আনসার্টেন রিগার্ড বিভাগের এবার নির্বাচিত হয়েছে ১৮টি ছবি। এতে জুরি প্যানেলের সভাপতি জার্মান অভিনেত্রী মার্থা কেলার। তার নেতৃত্বে বিচারকদের দায়িত্ব পালন করবেন অস্ট্রিয়ার পরিচালক জেসিকা হসনার, মেক্সিকান অভিনেতা, পরিচালক ও প্রযোজক দিয়েগো লুনা, সুইডিশ পরিচালক রুবেন ওস্টলান্ড ও ফরাসি অভিনেত্রী সেলিন স্যালেট।

কানে সিনেফন্ডেশন ও স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র বিভাগ চালু হয় ১৯৯৮ সালে। এবার এগুলোর বিচারকদের সভাপতির দায়িত্ব পালন করবেন জাপানিজ পরিচালক-লেখক নাওমি কাওয়াসে। তার নেতৃত্বে বিচারক থাকছেন ফরাসি-কানাডিয়ান অভিনেত্রী মারিয়া হোসে ক্রোজ, ফরাসি পরিচালক, চিত্রনাট্যকার জ্যঁ-মারি ল্যারিউ, রোমানিয়ান পরিচালক ও চিত্রনাট্যকার রাডু মানটিন এবং আর্জেন্টাইন পরিচালক, নাট্যকার ও লেখক সান্তিয়াগো লোজা।

এবার উৎসব চলবে ২২ মে পর্যন্ত। ওইদিন সমাপনী আয়োজনে সম্মানসূচক স্বর্ণপাম (পাম দ'র) দেওয়া হবে ফরাসি কমেডিয়ান জ্যঁ-পিয়েরে লিওকে। ফ্রাসোয়া ত্রুফো তার প্রথম ছবি 'দ্য ফোর হান্ড্রেড ব্লৌস'-এ (১৯৫৯) নায়ক করেছিলেন তাকে। এর সুবাদে ওই বছর প্রথমবার কান উৎসবে অংশ নেন লিও।

কান উৎসবের অন্যতম আকর্ষণ লালগালিচা। এতে রূপবতী অভিনেত্রীদের পা মাড়ানো দেখতে উদগ্রীব হয়ে আছেন দর্শকরা। বাহারি ফ্যাশনেবল পোশাক পরে বিশ্বের খ্যাতিমান অভিনেত্রী, গায়িকা ও মডেলরা লালগালিচায় হেঁটে বেড়াবেন। শিল্প আর সুন্দরের এই সম্মিলন হয় বলেই কান উৎসব পেয়েছে বৈশ্বিক মাত্রা।

এদিকে, এবারের আয়োজনকে ঘিরে উৎসবের ডিজিটাল মিডিয়াকে পুরোপুরি নতুনভাবে সাজানো হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে ওয়েবসাইটের পাঁচটি শাখা ও একটি মোবাইল অ্যাপ চালু করা। নতুন ওয়েবসাইটে ঘণ্টায় ঘণ্টায় নতুন খবর, সাক্ষাৎকার ও ছবি থাকবে। উৎসব উপলক্ষে বের করা হয়েছে অ্যাপ। এটি ডাউনলোড করা যাবে গুগল প্লে ও অ্যাপ স্টোর থেকে।

বাংলাদেশ সময়: ০০৫৮ ঘণ্টা, মে ১১, ২০১৬
জেএইচ/পিসি

**
ব্যাজের সঙ্গে ব্যাগভর্তি কাগজপত্র দিলেন আয়োজকরা

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

এই বিভাগের সব খবর

Alexa
cache_14 2016-05-10 14:49:49