ঢাকা, রবিবার, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ০০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩

বিনোদন

কাহিনীকার আব্দুল্লাহ জহির বাবুর বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র

সোমেশ্বর অলি, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮১১ ঘণ্টা, অক্টোবর ৩১, ২০১৫
কাহিনীকার আব্দুল্লাহ জহির বাবুর বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র আব্দুল্লাহ জহির বাবু

‘বাংলাদেশের প্রথম ছবি থেকে শুরু করে সব ছবিই নকল’- গণমাধ্যমে এমন উক্তি করে সম্প্রতি সমালোচিত হয়েছেন কাহিনীকার আব্দুল্লাহ জহির বাবু। এমন মন্তব্যের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন বাবুর বাবার (পরিচালক জহিরুল হক) এক সময়ের তিন সহকারীসহ কয়েকজন পরিচালক।

আজ শনিবার (৩১ অক্টোবর) দুপুর সাড়ে ১২টায় এফডিসির পরিচালক সমিতির কার্যালয়ে অভিযোগপত্রটি পেশ করেন তারা।

বাংলাদেশ পরিচালক সমিতির পরিচালক ও সাধারণ সম্পাদক বরাবর লেখা অভিযোগপত্রটিতে উল্লেখ করা হয়, ‘…আমরা এ হেন মন্তব্যের তীব্র নিন্দা জানাই এবং সমিতি কর্তৃক বিষয়টি বিবেচনায় এনে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণের অনুরোধ জানাই। ’

অভিযোগপত্রটিতে স্বাক্ষর করেছেন পরিচালক নেওয়ান নাজমুল, রেজা হাসমত, সারোয়ার হোসেন, আনোয়ার সিরাজী প্রমুখ। এর মধ্যে প্রথম তিনজন সহকারী পরিচালক হিসেবে কাজ করেছিলেন বাবুর বাবা জহিরুল হকের সঙ্গে।  

এ প্রসঙ্গে বিকেলে বাংলানিউজকে সারোয়ার হোসেন বলেন, ‘আমি জহিরুল হক স্যারের সঙ্গে দুই বছর কাজ করেছি। তার কাছ থেকে অনেক কিছু শিখেছি। তিনি কালজয়ী অনেক ছবি তৈরি করেছেন। আমাদের সব সময় গল্পের বই পড়ার জন্য উৎসাহিত করতেন। স্যারের ‘জনি ওস্তাদ’ ছবিটিতে আমি সহকারী হিসেবে কাজ করেছি। এটা আমার সৌভাগ্য। স্যার বেঁচে থাকলে তার ছেলে বাবুর এসব মন্তব্যে খুব মর্মাহত হতেন। আমাদের মনে হচ্ছে, বাবুর মতিভ্রম হয়েছে। তিনি যা বলছেন এগুলো প্রলাপ ছাড়া কিছু নয়। জনপ্রিয়তার মোহে তিনি এ ধরনের বক্তব্য দিচ্ছেন। বাবুর সঠিক বোধোদয় হওয়া দরকার। ’

সম্প্রতি একটি অনলাইন নিউজ পোর্টালে দেওয়া সাক্ষাৎকারে আব্দুল্লাহ জহির বাবু দেশীয় চলচ্চিত্র নিয়ে খোলামেলা অনেক কথা বলেন। এ নিয়ে মিডিয়া ও চলচ্চিত্র অঙ্গনে তোলপাড় চলছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকেও বাবুর মন্তব্য নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা হচ্ছে।

এ ব্যাপারে কথা বলার জন্য সন্ধ্যা ৫টা ৫০ মিনিটে আব্দুল্লাহ জহির বাবুর গ্রামীনফোন নম্বরে কল দিয়েও সংযোগ পাওয়া যায়নি।

বাংলাদেশ সময়: ১৮০০ ঘণ্টা, অক্টোবর ৩১, ২০১৫
এসও/কেবিএন

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa