ঢাকা, শুক্রবার, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৪ আগস্ট ২০২০, ২৩ জিলহজ ১৪৪১

বিনোদন

এটিএনবাংলা বৃহস্পতিবারের নাটক

‘একটি জীবনের গল্প’

বিনোদন প্রতিবেদক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৩০ ঘণ্টা, এপ্রিল ৬, ২০১১
‘একটি জীবনের গল্প’

চঞ্চল চৌধুরী স্বপ্ন দেখেন নামকরা পরিচালক হওয়ার। আর তার নাটকে অভিনয় করে নায়িকা হওয়ার স্বপ্ন দেখেন হোমায়রা হিমু।

বিষয়টা হয়তো অনেকের কাছেই একটু গোলমেলে লাগছে। আসলে এই গোলমালটা পাকিয়েছেন পরিচালক বিপ্লব কুমার পাল। তিনি তার ‘একটি জীবনের গল্প’ নাটকে চঞ্চল এবং হিমুকে এভাবেই উপস্থাপন করেছেন।
নাটকটি প্রচারিত হবে আগামী ৭ এপ্রিল বৃহস্পতিবার রাত ১১টায়।

এতে দেখা যাবে পরিচালক চঞ্চল চৌধুরী একটি নাটক নির্মাণের জন্য জনপ্রিয় নায়ক-নায়িকাদের নিয়ে শুটিং করতে গিয়ে নানা বিড়ম্বনায় পড়েন । সব বাধা দূর করে নাটক নির্মাণ করেন তিনি। নিজের পরিচালনায় প্রথম নাটক টেলিভিশনে দেখতে নিজ গ্রামে যান চঞ্চল। গ্রামের লোকজন নিয়ে নাটক দেখতে গিয়ে ঘটে যায় আরেক ঘটনা।

‘একটি জীবনের গল্প’ প্রসঙ্গে চঞ্চল চৌধুরী বলেন, ‘নাটকটির গল্প বেশ ভালো। নাটকের শুটিং-এর সময় যেসব ঘটনা ঘটে তাই তুলে ধরা হয়েছে। আমি পরিচালকের চরিত্রে অভিনয় করি। আশাকরি নাটকটি সবার ভালো লাগবে। ’ নাটকটিতে অভিনয় প্রসঙ্গে হুমায়রা হিমু বলেন, ‘গল্পটি পছন্দ হওয়ায় নাটকটিতে অভিনয় করেছি। দর্শকরা নাটকটি দেখে মজা পাবেন। ’ নাটকটিতে আরো অভিনয় করেছেন তিনু করিম, রিমু খন্দকার, শামীম, মাহাদী হাসান পিয়াল, লিজা, আলতাফ, নিকোলাস, অমা সরকার, মম সরকার, পলাশ, টিটু প্রমুখ।

নাটকটি প্রসঙ্গে নাট্যকার-পরিচালক বিপ্লব কুমার পাল জানান, সৃষ্টিশীল কিছু করার ইচ্ছে মোবারকের (চঞ্চল চৌধুরী)। বাবা-মা হারা এই যুবক জীবনের প্রয়োজনে গ্রাম ছেড়ে আসেন রাজধানীতে। পড়াশোনাও করেছে। সফলতা না পাওয়ায় বন্ধুরা তাকে পাত্তা দিতেন না। ভালোবাসার মানুষটিও তাকে তাচ্ছিল্য করতেন। অবশেষে সুদিন আসে মোবারকের জীবনে। টেলিভিশন নাটক পরিচালনা করে তিনি। প্রথম নাটক পরিচালনা করতে গিয়ে নানা বিড়ম্বনার মুখোমুখি হন। শুটিং ইউনিটে ঘটে যায় মজার মজার ঘটনা।

নাটকে অভিনয় প্রসঙ্গে চঞ্চল চৌধুরী বলেন, ‘প্রচুর নাটকে অভিনয় করছি। ‘একটি জীবনের গল্প’ নাটকটি আমার ভালো লাগার একটি। গ্রামের এক ছেলে সংগ্রাম করে সোনালী জগতে টিকে থাকার চেষ্টা করে তা গল্পে ফুটে তোলা হয়েছে। তাছাড়া বাস্তব চিত্র উঠে এসেছে এ নাটকে। ’

নাটকটির গল্প সর্ম্পকে পরিচালক বিপ্লব কুমার পাল জানান, গ্রামের একজন শিক্ষিত ছেলে চঞ্চল চৌধুরী স্বপ্ন দেখেন  একজন বড় পরিচালক হবার। অপরদিকে হিমু নায়িকা হবার স্বপ্ন দেখেন। তাই চঞ্চলের সঙ্গে সখ্যতা গড়ে তোলার চেষ্টা করেন হিমু। গ্রামের জমি বিক্রি করে চঞ্চল শহরে আসেন নাটক বানাবে বলে। নাটক বানাতে গিয়ে মুখোমুখি হন নানান বিচিত্র অভিজ্ঞতার।  

বাংলাদেশ সময় ১৮৫০, এপ্রিল ৫, ২০১১

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa