ঢাকা, শুক্রবার, ৮ শ্রাবণ ১৪২৮, ২৩ জুলাই ২০২১, ১২ জিলহজ ১৪৪২

তারার ফুল

গুড মর্নিং মিম!

কামরুজ্জামান মিলু, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২০৭ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১০, ২০১৪
গুড মর্নিং মিম! বিদ্যা সিনহা মিম / ছবি: নূর / বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

জানালার পর্দা সরালেই ভোরের আলো আছড়ে পড়ে পুরো রুমজুড়ে। বাইরে দু’একটা পাখিও ডেকে যায় হয়তোবা।

ডানা মেলতে মেলতে শান্ত স্বরে তারা মিমকে বলে যায়, ‘গুড মর্নিং’। আগে হয়তো এসব চোখে পড়তো না বিদ্যা সিনহা মিমের, ইদানিং পড়ছে। কারণ, মনটা তো ফুরফুরে। স্বপ্ন পূরণের কাছাকাছি পৌঁছে গেছেন তিনি।

কোনো রাজকুমারের জন্য নয়, স্বপ্ন দেখেছিলেন চলচ্চিত্রে নিজের জায়গাটার শক্ত অবস্থানের। সেজন্য কষ্টও কম করেননি। নিজের দৈহিক গড়নে খাবারের পাশাপাশি অনুশীলনও করেছেন, করছেন এখনও। এবারের ঈদের একটি টিভি অনুষ্ঠানে প্রথমবারের মতো একক নৃত্যও করেছেন।

মিডিয়ায় কাজের বয়স সাত বছর। এরই মধ্যে নাটক, বিজ্ঞাপনের পাশাপাশি এক এক করে চারটি ছবি মুক্তি পেয়েছে মিমের । এরমধ্যে রয়েছে ‘আমার আছে জল’, ‘আমার প্রাণের প্রিয়া’, ‘জোনাকীর আলো’ ও ‘তারকাঁটা’। বর্তমানে মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে ‘পদ্ম পাতার জল’। আর বর্তমানে তানিয়া আহমেদ পরিচালিত ‘গুড মর্নিং লন্ডন’ ছবির কাজে বেশকিছুদিন ধরে লন্ডনে অবস্থান করছেন।

যাবার আগে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন কলকাতার সংগীতশিল্পী, অভিনয়শিল্পী ও চলচ্চিত্রনির্মাতা অঞ্জন দত্তের নতুন ছবি ‘মন বাকসো’তে। এ ছবিতে ‘মৈত্রী’ নামে একটি চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা যাবে তাকে।

এসব বিষয় নিয়ে কথা বলতে গিয়ে মিম বাংলানিউজকে বলেন, ‘আমি আমার এ ছবিগুলোর কাজের জন্য একটু আলাদা প্রস্তুতি নিচ্ছি। কারণ এখন সবাই আবারো সিনেমা হলে যাচ্ছে। ভালো নির্মাতারা সিনেমা বানাচ্ছেন। সবকিছু মিলে আমার কাছে মন হয় কাজের জন্য এ সময়টা বেশ উপযুক্ত। ’

তার ভাষ্য, ‘গুড মর্নিং লন্ডন’ ছবিতে অভিনয়ের জন্য বেশ কিছু প্রস্তুতি নিয়েছি। চুলের স্টাইলেও পরিবর্তন রয়েছে। গল্পটা এখন বলতে চাই না। আর এ কাজটা শেষ করে দেশে ফিরে ‘পদ্ম পাতার জল’ ছবির বাঁকী কাজ করব। সবকিছু পরিকল্পনা অনুযায়ী কাজ করছি। এরপর পুজা ও ঈদের ফাঁকে কোনো কাজ করব না। ঈদের পর ‘সুইটহার্ট’ ছবির কাজ শুরু করব। ’

‘সুইটহার্ট’ ছবিতে মিমকে দেখা যাবে বাপ্পীর বিপরীতে। এ ছবিটি পরিচালনা করছেন ওয়াজেদ আলী সুমন। অন্যদিকে ঞ্জন দত্তের নতুন ছবি ‘মন বাক্সো’ ছবিতো আছেই। সবকিছু মিলে ছবির বাইরে আর ছোটপর্দায় তেমন কাজ করতে দেখা যাবে না এই অভিনেত্রীকে।

মিম এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘নাটকে যেমন ভিন্ন ভিন্ন চরিত্রে উপস্থাপন হয়েছি। ঠিক তেমনি চলচ্চিত্রেও ভিন্ন ভিন্ন গল্পের চরিত্রে কাজ করতে চাই। আর চলচ্চিত্রের ক্যানভাসটা বেশ বড়। নাটক যেমন ড্রইংরুমের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকে অনেক সময়, কিন্তু চলচ্চিত্রে তো অন্ধকার রুমে মনোযোগের সঙ্গে আবেগ নিয়ে মানুষ ছবিটা দেখেন। তাই এখানে আরও বেশি কৌশলী ও মনোযোগী হয়ে কাজ করতে হয়। ’

বাংলাদেশ সময় : ১৭০০ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১০, ২০১৪

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa