bangla news
বাংলানিউজকে ঊষা গাঙ্গুলী

আমাদের শব্দকোষ কমে যাচ্ছে

860 |
আপডেট: ২০১৪-০৬-২৫ ৩:৩২:০০ এএম
মহড়ায় ঊষা গাঙ্গুলী/ ছবি : রাজীন চৌধুরী/বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

মহড়ায় ঊষা গাঙ্গুলী/ ছবি : রাজীন চৌধুরী/বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

জন্ম রাজস্থানে হলেও বেড়ে উঠেছেন কলকাতার সংস্কৃতির আবহাওয়ায়। পুরোদমে বাঙালি বলা যায় উষা গাঙ্গুলীকে। তিনি একাধারে অভিনয়শিল্পী, নির্মাতা এবং নাট্যকার।

জন্ম রাজস্থানে হলেও বেড়ে উঠেছেন কলকাতার সংস্কৃতির আবহাওয়ায়। পুরোদমে বাঙালি বলা যায় উষা গাঙ্গুলীকে। তিনি একাধারে অভিনয়শিল্পী, নির্মাতা এবং নাট্যকার।

গত মে মাস থেকে ঢাকায় নাগরিক নাট্য সম্প্রায়ের নতুন নাটক ‘নাম গোত্রহীন’-এর কাজ করছেন ঊষা। পাকিস্তানি লেখক সাদাত হাসান মান্টোর তিনটি ছোটগল্প নিয়ে পান্ডুলিপি তৈরির পাশাপাশি নাটকটি নির্দেশনাও দিয়েছেন তিনি। ২৬ জুন বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমীর জাতীয় নাট্যশালা মূল মঞ্চে এর উদ্বোধনী প্রদর্শনী হবে।

ঢাকায় নাটক নির্দেশনার অভিজ্ঞতা, এই বাংলার মঞ্চনাটক এবং নিজের চিন্তা-ভাবনা নিয়ে বাংলানিউজের সঙ্গে কথা বলেছেন ঊষা গাঙ্গুলী। সেই আলাপচারিতার কিছু অংশ তুলে ধরা হলো...

কেমন আছেন এই আষাঢ়ে ঝড় বাদলার দিনে?
ঊষা গাঙ্গুলী : ভালো আছি। কিন্তু আষাঢ়ে বৃষ্টি দেখার সময় পাইনি। কারণ আমার প্রতিটি দিন ঝড়ের মতো করে চলে যাচ্ছে! নাগরিক নাট্য সম্প্রদায়ের কাজটি নিয়ে আমি খুবই রোমাঞ্চিত।

কেন ‘নামগোত্রহীন’, কেনোই বা মান্টো আর আপনার নির্দেশনা?
ঊষা : আরে বাহ! একসঙ্গে এত প্রশ্ন। আচ্ছা বলছি সব এক এক করে। প্রথম কথা হচ্ছে নাগরিক নাট্য সম্প্রদায়ের সঙ্গে আমার সম্পর্কটা দীর্ঘদিনের। কাজ করতে এসেই তাদের সঙ্গে হৃদ্যতা গড়ে উঠেছে। তাদের দাওয়াতে বহুবার ঢাকায় এসে মঞ্চে কাজ করেছি। ওনারাও কলকাতায় গিয়েছেন আমাদের আমন্ত্রণে। আমি আর সারা যাকের তিন দেশ (বাংলাদেশ, ভারত ও পাকিস্তান) নিয়ে একটি নাটক নির্মাণের পরিকল্পনা করছিলাম। কিন্তু সেটা আর হয়নি। তাই আমরা এ কাজটি বেছে নিলাম। আমার মনে হয়েছে মান্টো অসাধারণ প্রতিভাবান। তার কাজ খুব বেশি মঞ্চে আসেনি। আর আমরা যে তিনটি গল্প বেছে নিয়েছি, সেগুলোতে মূলত ব্যক্তি মান্টোকে খুঁজে পাওয়া যাবে। তার লাইফস্টাইল, জীবনদর্শন ও চিন্তার ছাপ পাওয়া যায় এসব গল্পে।

‘নামগোত্রহীন’ নাটকে সারা যাকের, অপি করিম, পান্থ শাহরিয়ার, শ্রিয়া সর্বজয়া-সহ অনেকেই অভিনয় করছেন। এই অভিনয়শিল্পীদের সম্পর্কে আপনার মূল্যায়ন কী?
ঊষা : আসলে কারও সম্পর্কে কিছু বলা কঠিন কাজ। তবে কাজ করতে গিয়ে যে দলটা পেয়েছি সত্যিই তারা সবাই খুব ভালো। আর একটি বিষয়, এখানে যেমন খুব সিনিয়র কিছু শিল্পী পেয়েছি, তেমনি মাঝারি অভিজ্ঞতার শিল্পীও পেয়েছি। যেমন শ্রিয়া সর্বজয়ার এটা প্রথম কাজ। এমন তিনটি শ্রেণীর শিল্পী আমি পেয়েছি যারা অনেক শ্রম দিয়েছেন নাটকটির জন্য।

এখানে এসে কাজ করার অভিজ্ঞতা কেমন?
ঊষা : একবাক্যে বললে খুবই ভালো। প্রায় মাস খানেক ধরে বাংলাদেশে আছি, কিন্তু কখনও মনে হয়নি অন্য কোনো দেশে আছি। মনে হয়েছে আমি কলকাতায় বসেই কাজ করছি। দেশভাগ হয়েছে এটা আমার মনেই হয় না।

আপনার তো ঢাকা এবং ঢাকার বাইরের মঞ্চনাটকের সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে মেশার সুযোগ হয়েছে। সেক্ষেত্রে আপনার দৃষ্টিতে বাংলাদেশে মঞ্চনাটকের চর্চা এখন কোন অবস্থায় আছে?
ঊষা :  ঢাকার থিয়েটার আমার ভালো লাগে। ঢাকার বাইরের দলগুলোর কাজও বেশ ভালো লেগেছে। এবার এসে সুদীপ চক্রবর্তীর ‘দক্ষিণা সুন্দরী’ নাটকটি দেখে আমার ভালো লেগেছে। এখানে তরুণরা অনেক ভালো কাজ করছেন। কিছু কিছু সমস্যা তো থাকবেই।

মঞ্চনাটককে আরও বেশি জনপ্রিয় এবং সর্বসাধারণের উপযোগী করে তোলার জন্য কি করা উচিৎ বলে মনে করেন?
ঊষা :  দেখুন আমরা দীর্ঘদিন আন্দোলন করে আমাদের স্কুলের পাঠ্যসূচিতে থিয়েটার বিষয়টা যুক্ত করতে পেরেছি। এখন আমরা ফল পাচ্ছি। কলকাতায় এখন স্কুলে স্কুলে নাট্যচর্চা হয়। ছোট ছোট বাচ্চারা নাটক লিখছে, নির্দেশনা দিচ্ছে এবং অভিনয় করছে। এর ফলে শিশু বয়স থেকেই একটি প্রজন্মের মননে থিয়েটার ও শিল্পকলার বিষয়টি জড়িয়ে যায়। এখান থেকেই বড় বড় নির্মাতা ও নাট্যকার বেরিয়ে আসতে পারে। বাংলাদেশে স্কুল লেভেলে থিয়েটার চর্চা এবং পাঠ্যবইয়ে থিয়েটার অন্তর্ভুক্ত করতে পারলে ভালো ফল পাওয়া যেতে পারে। নতুন প্রজন্মের বাচ্চাদের ব্যক্তিত্ব তৈরি, একজন মননশীল মানুষ তৈরিতে সহায়ক হবে থিয়েটার। সত্যি বলতে শিল্পচর্চার মানুষ কমে যাচ্ছে। আমরা এখন কথা বলতে পারি না। আমাদের শব্দকোষ কমে যাচ্ছে।

এরপর কি এ ধরণের কোনো কাজে আমরা আপনাকে পাবো?
ঊষা : এখনই বলতে পারছি না। একটা কাজ করলাম, দেখি এর প্রতিক্রিয়া কেমন আসে। আর আমি নিজের কাজ নিয়েও খুব ব্যস্ত থাকি। ফলে সময় বের করাও কঠিন একটা বিষয়।

বাংলাদেশে আছেন কতদিন?
ঊষা : নাটকটির উদ্বোধনী প্রদর্শনী হলেই চলে যাবো। ১০ জুলাই থেকে পাকিস্তানের একটি নাটক নির্দেশনার কাজ শুরু করবো।

বাংলানিউজকে সময় দেওয়ার জন্য ধন্যবাদ।
ঊষা :  আপনাদেরও ধন্যবাদ।

বাংলাদেশ সময়: ১৩৩২ ঘণ্টা, জুন ২৫, ২০১৪

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2014-06-25 03:32:00