ঢাকা, মঙ্গলবার, ১০ কার্তিক ১৪২৮, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

বিনোদন

ঈদের নাটকের ১০ ব্যস্ত নির্মাতা

বিপুল হাসান | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১২১ ঘণ্টা, নভেম্বর ১, ২০১০
ঈদের নাটকের ১০ ব্যস্ত নির্মাতা

প্রতি ঈদকে সামনে রেখে বিভিন্ন টিভি চ্যানেলের জন্য বিশেষ নাটক আর টেলিফিল্ম নির্মাণের ধুম পড়ে। মহাব্যস্ত হয়ে পড়েন নির্মাতা-কলাকুশলী আর তারকারা।

এবারের কোরবানির ঈদেও এর ব্যতিক্রম হয়নি। এই ঈদেও প্রতিটি চ্যানেল প্রচার করবে পাঁচ থেকে সাত দিনের বিশেষ অনুষ্ঠানমালা। আর এসব অনুষ্ঠানের প্রধান আকর্ষণ হলো নাটক ও টেলিফিল্ম।

নির্মাতাদের অনেকেই এরই মধ্যে তাদের প্রডাকশন জমা দিয়ে দিয়েছেন, কেউ পোস্ট-প্রডাকশনের কাজ করছেন, কারো আবার এখনও বাকি রয়ে গেছে শুটিং। আসুন, কয়েকজন আলোচিত নির্মাতার খোঁজখবর জেনে নেওয়া যাক।

সালাউদ্দিন লাভলু

এই ঈদে একাধিক চ্যানেলে গত ঈদের মতোই প্রচারিত হবে সালাউদ্দিন লাভলুর একক নাটক, টেলিফিল্মের পাশাপাশি বিশেষ ধারাবাহিক নাটক। লাভলু নির্মিত ৬ পর্বের ধারাবাহিক নাটক ‘গরীবের বন্ধু’ প্রচারিত হবে আরটিভিতে। বৃন্দাবন দাস রচিত এ নাটকে অভিনয় করেছেন মোশাররফ করিম, চঞ্চল আশরাফ, আমিরুল হক চৌধুরী, খুশি কবীর, শামীম জামান প্রমুখ।

এছাড়া সালাউদ্দিন লাভলু পরিচালিত আরো তিনটি একক নাটক ও টেলিফিল্ম প্রচারিত হবে বিভিন্ন চ্যানেলে। এর মধ্যে চ্যানেল আইতে যাবে ফারুক হোসেন রচিত নাটক ‘গন্তব্যের দিকে’। অভিনয়ে রয়েছেন মোশাররফ করিম, জ্যোতিকা জ্যোতি, আমানুল হক প্রমুখ। বাংলাভিশনে যাবে ‘সোনার হরিণ’। বৃন্দাবন দাস রচিত এ নাটকে অভিনয় করেছেন ফেরদৌসী মজুমদার, চঞ্চল চৌধুরীসহ অনেকে। এটিএন বাংলায় যাবে একটি টেলিফিল্ম। ‘ভেজাল মন্ডল’ নামের এ টেলিফিল্মে অভিনয় করেছেন আমিরুল হক চৌধুরী, মোশাররফ করিম,”ঞ্চল চৌধুরী, খুশি কবীর প্রমুখ।

তৌকীর আহমেদ

এবারের ঈদকে সামনে রেখে তৌকীর আহমেদ চারটি নাটক নির্মাণ করেছেন। নাটক চারটি লিখেছেন বিপাশা হায়াত, তবে একটিতেও তিনি অভিনয় করেননি। তৌকীর আহমেদ পরিচালনার পাশাপাশি নাটকে অভিনয়ও করেছেন। বিটিভিতে প্রচারিত হবে এই নাট্যকার-নির্মাতা জুটির নাটক ‘পূবালী বাতাস’। এতে অভিনয় করেছেন তৌকীর আহমেদ, মৌসুমী বিশ্বাস, নাজমুল হুদা বাচ্চু ও পরেশ আচার্য। এটিএন বাংলায় প্রচারিত হবে ‘এন্টি কক’ নামের একটি নাটক। এ নাটকে তৌকীর আহমেদের সঙ্গে অভিনয় করেছেন ঈশিতা। বৈশাখী চ্যানেলে যাবে নাটক ‘স্বপ্নওয়ালা’। এ নাটকের প্রধান দুটি চরিত্রে অভিনয় করেছেন তৌকীর আহমেদ ও মৌসুমী বিশ্বাস। চ্যানেল আইয়ের জন্য আরো একটি নাটক নির্মাণ করছেন তৌকীর আহমেদ। নাম চূড়ান্ত না হওয়া এ নাটকে তৌকীর আহমেদের বিপরীতে অভিনয় করেছেন ঈশিতা।

রেদোয়ান রনী

গত ঈদের মতোই এবারও দেশ টিভির জন্য সাত পর্বের একটি বিশেষ ধারাবাহিক নাটক নির্মাণ করেছেন রেদোয়ান রনী। ‘জিম্মি’ নামের এই ধারাবাহিকটি ঈদের দিন থেকে টানা সাত দিন প্রচারিত হবে। রেদোয়ান রনীর নিজের লেখা এ নাটকে অভিনয় করেছেন মোশাররফ করিম, রাহা, সাজু খাদেম, ফারুক আহমেদ, মিশুসহ আরো অনেকে। বাংলাভিশনে দেখানো হবে টেলিফিল্ম ‘বেহেলা’। রেদোয়ান রনীর চিত্রনাট্য ও পরিচালনায় এতে অভিনয় করেছেন মাহফুজ আহমেদ, সুমাইয়া শিমু, স্যামুয়েল, চৈতি প্রমুখ। চ্যানেল আইতে প্রচারিত হবে এই নির্মাতার নাটক ‘অপরাজিতা’। এতে প্রধান দুটি চরিত্রে অভিনয় করেছেন মৌসুমী ও মাহফুজ আহমেদ। আরটিভিতে প্রচারিত হবে নাটক ‘সারমেয়’। ইকবাল হোসেন চৌধুরীর রচনায় এতে অভিনয় করেছেন জেনি, জয়রাজ, চাষী প্রমুখ।

মোস্তফা কামাল রাজ

প্রথম চলচ্চিত্র ‘প্রজাপতি’ নিয়ে ব্যস্ত থাকার মাঝেই এই ঈদের জন্য চারটি নাটক নির্মাণ করেছেন মোস্তফা কামাল রাজ। আরটিভিতে যাবে তার ‘ক্রাইম রিপোর্টার’ নামের একটি নাটক। অনুরূপ আইচের রচনায় এতে প্রধান দুই চরিত্রে দেখা যাবে মাহফুজ আহমেদ ও বিন্দুকে। এটিএন বাংলার জন্য নির্মাণ করেছেন নিজের লেখা নাটক ‘ইটস কমপ্লিকেটেড’। এতে অভিনয় করেছেন হাসান মাসুদ, সুমাইয়া শিমুসহ অনেকে। এনটিভিতে দেখানো হবে রাজের রচনা ও পরিচালনায় ‘দ্বিধা’ নামের একটি নাটক। অভিনয়ে রয়েছেন মৌসুমী, মোশাররফ করিম, তিশা প্রমুখ। একুশে টেলিভিশনে যাবে নাটক ‘কনফিডেন্ট’। অভিনয় করেছেন তিশা, মিশু, ফারুক আহমেদ, কল্যাণ প্রমুখ।

সুমন আনোয়ার

এই ঈদে সুমন আনোয়ার পরিচলিত চারটি নাটক যাবে বিভিন্ন চ্যানেলে। এর মধ্যে বিটিভিতে প্রচারিত হবে ‘তিথির প্রত্যাবর্তন’। নির্মাতার নিজের লেখা এ নাটকে অভিনয় করেছেন আহমেদ রুবেল, ওয়াহিদা মল্লিক জলি, খালেকুজ্জামান, তাসমিয়া প্রমুখ। দেশ টিভির জন্য নির্মাণ করেছেন টেলিফিল্ম ‘গল্পের ইতিকথা’। অভিনয় করেছেন ফারহানা মিলি, হিল্লোল, আহমেদ রুবেল, রহমত আলী, তাসমিয়া হোসেন প্রমুখ। বৈশাখীতে প্রচারিত হবে সুমন আনোয়ারের রচনা ও পরিচালনায় নাটক ‘জোড়া শালিক’। অভিনয়ে রয়েছেন মীর সাব্বির, বিজরী বরকতউল্লাহ, ফারুক আহমেদ, তাসমিয়া, ডা. এজাজুল ইসলাম প্রমুখ। শুভাশিস সিনহার রচনায় মনিপুরী জীবন নিয়ে সুমন নির্মাণ করেছেন ‘হৃদি বৃন্দাবনে’ নামের একটি নাটক। সিলেটের কমলগঞ্জের মনিপুরী আদিবাসী অঞ্চলে চিত্রায়িত এ নাটকে অভিনয় করেছেন হিল্লোল, জ্যোতি, তাসমিয়া ও ৩০ জন এলাকাবাসী। এটি প্রচারিত হবে বাংলাভিশনে।

চয়নিকা চৌধুরী

এবারের ঈদে চয়নিকা চৌধুরী পরিচালিত পাঁচটি নাটক ও একটি টেলিফিল্ম বিভিন্ন চ্যানেলে দেখানো হবে। এর মধ্যে বিটিভিতে যাবে ‘তোমার কাছে ফেরা’। নজরুল ইসলামের রচনায় এতে প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন অপূর্ব ও রোমানা। চয়নিকা চৌধুরী নির্মিত অকালপ্রয়াত ফ্যাশন ডিজাইনার শাহরুখ শহীদের লেখা ‘সায়া‎হ্নে’ নাটকটি প্রচারিত হবে আরটিভিতে। অভিনয় করেছেন অপূর্ব, তিন্নি, শর্মিলী আহমেদ প্রমুখ। এনটিভিতে দেখানো হবে ‘ভালোবাসি তোমাকেই’। কামরুল হাসান রচিত এ নাটকে অভিনয় করেছেন মাহফুজ আহমেদ, তিন্নি, শর্মিলী আহমেদ। একুশে টিভির জন্য নির্মাণ করেছেন নাটক ‘পরশ পাথর’। নজরুল ইসলাম রচিত এ নাটকে অভিনয় করেছেন আনিসুর রহমান মিলন, অপূর্ব ও সারিকা। বৈশাখী টিভিতে দেখানো হবে ‘মুগ্ধ নীলিমার প্রান্তে’। অভিনয়ে রয়েছেন আনিসুর রহমান মিলন, অপূর্ব ও বিন্দু।

আর চয়নিকা চৌধুরীর বহুল আলোচিত টেলিফিল্ম ‘পালিয়ে গিয়ে বিয়ে’ প্রচার হবে বাংলাভিশনে। এতে অভিনয় করেছেন অপূর্ব, প্রভা, চঞ্চল চৌধুরী ও মিশু।

ইফতেখার আহমেদ ফাহমী

ঈদে বিভিন্ন চ্যানেলে নির্মাতা ইফতেখার আহমেদ ফাহমীর তিনটি এক পর্বের নাটক ও একটি বিশেষ ধারাবাহিক প্রচারিত হবে। তবে দেশ টিভির জন্য সাত পর্বের একটি ধারাবাহিক নির্মাণের কাজ এখনো শুরু করতে পারেননি তিনি। শেষ করেছেন দুটি নাটক ও একটি টেলিফিল্মের কাজ। বাংলাভিশনে দেখানো হবে ফাহমীর রচনা ও পরিচালনায় ‘হাইওয়ে টু হ্যাভেন’। অভিনয় করেছেন পার্থ বড়ুয়া, সুজানা, বাবর, চাষী প্রমুখ। একুশে টেলিভিশনে যাবে ‘সেলুলয়েড ম্যান’ নামের একটি নাটক। চ্যানেল আইয়ের জন্য তিনি নির্মাণ করছেন টেলিফিল্ম ‘রিং’। আনিসুল হকের রচনায় এতে অভিনয় করেছেন মারজুক রাসেল, সোহেল খানসহ আরো অনেকে।

হিমেল আশরাফ

ঈদে হিমেল আশরাফের তিনটি নাটক প্রচারিত হবে। এর মধ্যে বৈশাখী টিভিতে যাবে আনিসুল হকের রচনায় ‘প্রেমের নাম বেদনা’। অভিনয়ে রয়েছেন সজল, সারিকা, চঞ্চল চৌধুরীসহ অনেকে। আরটিভিতে প্রচারের জন্য নির্মাণ করেছেন নাটক ‘বর্ণচোরা’। ইকবাল হোসেন চৌধুরীর রচনায় এতে প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন মাহফুজ আহমেদ ও মৌসুমী বিশ্বাস। এনটিভির জন্য নির্মাণ করেছেন আনিসুল হকের রচিত ‘স্নেহ’। অভিনয় করেছেন জিতু আহসান, মৌসুমী বিশ্বাস প্রমুখ।
 
মেজবাউর রহমান সুমন

ঈদে মেজবাউর রহমান সুমন পরিচালিত দুটি নাটক প্রচার হবে। ঈদের দ্বিতীয় দিন আরটিভিতে প্রচারিত হবে ‘ফেরার পথ নাই, থাকে না কোনোকালে’। এতে অভিনয় করেছেন জয়া আহসান, অনিমেষ আইচ, সেঁওতি, তন্দ্রা প্রমুখ। চ্যানেল আইতে প্রচারিত হবে নাটক ‘চা অথবা কফির গল্প’। এতে অভিনয় করেছেন কান্তা মাসুদ, ফারহানা মিলি, ইন্তেখাব দিনারসহ অনেকে।

অরণ্য আনোয়ার

এই ঈদে নাট্যকার নির্মাতা অরণ্য আনোয়ার দুটি নাটক নির্মাণ করেছেন। ‘অপূর্বের সঙ্গে তাহাদের মধুচন্দ্রিমা’ নামের একটি নাটক নির্মাণ শেষ করেছেন। এতে অভিনয় করেছেন অপূর্ব, সালাউদ্দিন লাভলু, ফারহা রুমা, সাজু খাদেম প্রমুখ। বিটিভিতে প্রচারের জন্য অরণ্য করেছেন ‘চতুর্থজন’। অভিনয় করেছেন অপূর্ব, স্বাগতা, সাজু খাদেম, হাসান মাসুদ প্রমুখ।

আরো নাটক, আরো নির্মাতা

এবারের ঈদে বিটিভিতে প্রচারের তালিকায় আছে মামুনুর রশীদ, আবুল হায়াত, ফেরদৌস হাসান প্রমুখ খ্যাতিমান নির্মাতার নাটক। চ্যানেল আইতে ঈদের প্রস্তুতি হিসেবে রয়েছে হুমায়ূন আহমেদ, আফজাল হোসেন, রেজানুর রহমান, গীতালি হাসান, আমজাদ হোসেন প্রমুখ নির্মাতার নাটক ও টেলিফিল্ম।

এনটিভির জন্য নাটক নির্মাণ করছেন ফেরদৌস হাসান রানা, গোলাম সোহরাব দোদুল, অনিমেষ আইচ, এসএ হক অলিক, এজাজ মুন্না, দীপঙ্কর দীপন, মাসুদ হাসান উজ্জ্বলসহ কয়েকজন।

এটিএন বাংলার জন্য নাটক ও টেলিফিল্ম নির্মাণ করছেন জাহিদ হাসান, আবুল হায়াত, মাহফুজ আহমেদ, শাহরিয়ার নাজিম জয়সহ প্রমুখ অভিনেতা-পরিচালক।

আরটিভিতে প্রচারের জন্য নোমান রবিন, মিলন ভট্টাচার্য, শাহরিয়ার নাজিম জয়সহ একাধিক পরিচালক নাটক নির্মাণ করছেন।  

আসছে ঈদে বিভিন্ন চ্যানেলে আরো যাদের পরিচালনায় নাটক প্রচার হবে তারা হলেন নুরুল আলম আতিক, মাতিয়া বানু শুকু, বদরুল আনাম সৌদ,  সকাল আহমেদ, কায়সার আহমেদ, জুয়েল মাহমুদ, আশরাফী মিঠ, সাগর জাহান, দেবাশীষ বড়ুয়া দ্বীপসহ অনেকে।

বাংলাদেশ স্থানীয় সময় ১৯৩৫, নভেম্বর ০১, ২০১০

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa