ঢাকা, বুধবার, ৪ কার্তিক ১৪২৮, ২০ অক্টোবর ২০২১, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

বিনোদন

২৮ বছর ধরে মঞ্চে জনপ্রিয় ‘কঞ্জুস’

তোফাজ্জল লিটন | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪৫২ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৫, ২০১০
২৮ বছর ধরে মঞ্চে জনপ্রিয় ‘কঞ্জুস’

১৯৮২ সালের দিকে ভারতের ন্যাশনাল স্কুল অব ড্রামা (এনএসডি) থেকে বেশ কজন নাট্যকর্মী পড়াশোনা শেষ করে দেশে ফেরেন। উদ্দেশ্য বাংলাদেশে মঞ্চনাটকে নতুন কিছু করতে হবে।

প্রতিষ্ঠা করলেন ‘নাট্যদল’ নামে একটি থিয়েটার। যারা এর প্রতিষ্ঠাতা তাদের অনেকেই আজ নাট্যজগতে প্রতিষ্ঠিত। এর মধ্যে আছেন সৈয়দ জামিল আহমেদ, সালেক খান, তারিক আনাম খান, লিয়াকত আলী লাকী, কামাল উদ্দিন নিলুসহ অনেকে।

নতুন দল। ভালো নাটক করতে না পারলে দর্শক দলকে গ্রহণ করবেন না এমন চিন্তা প্রত্যেকের মাথায় । লেখালেখির অভ্যাসটা তারিক আনামের আগে থেকেই ছিল, তাই দল থেকে তাকে বলা হলো একটি নাটক লিখতে। তিনি নিজে না লিখে বেছে নিলেন ফরাসি নাট্যকার মলিয়েরকে । ‘দ্য মাইজার’ অবলম্বনে  অনুবাদ করলেন ‘কঞ্জুস’ নাটকটি । শুরু হলো রিহার্সেল। মঞ্চস্থ হলো ১৯৮৩ সালের প্রথম  দিকে। পাওয়া গেল দর্শকের অভাবনীয় সাড়া । সেই থেকে ‘কঞ্জুস’ চলছে বাংলাদেশে এখনো ।

কামাল উদ্দিন নিলু নির্দেশিত নাটকটি পুরোটাই  বাংলাদেশী আমেজে। সংলাপ বলা হয় পুরান ঢাকার অঞ্চলিক ভাষায়। জনপ্রিয়তার কারণে অল্প সময়ের মধ্যে চট্টগ্রামসহ দেশের বেশ কটি জায়গায় নাটকটি মঞ্চস্থ হয় । ১০টি শো হওয়ার পর ১৯৮৭ সালে এর সম্প্রচার হয় বিটিভিতে। তারপর ‘নাট্যদল’ এ নাটক মঞ্চস্থ করা বাদ দেয় ।

লিয়াকত আলী লাকী  তখন ‘নাট্যদল’ থেকে অনুমতি নিয়ে ‘লোক নাট্যদল’ থেকে নিজের নির্দেশনায় সম্পূর্ণ নতুনভাবে নিয়মিত মঞ্চস্থ করতে থাকেন নাটকটি । ১৯৮৭ সালে ৮ মে নাটকটি প্রথম মঞ্চে আনে ‘লোক নাট্যদল’ । ২৩ বছর ধরে নাটকটি মঞ্চায়ন করছে দলটি। দেশের বিভিন্ন নাট্যমঞ্চ ছাড়াও এটি মঞ্চস্থ হয়েছে ভারত, তুরস্ক, লন্ডন ও  কোরিয়ায়।

অন্য নির্দেশকের নাটক নতুনভাবে মঞ্চে আনা প্রসঙ্গে লোক নাট্যদলের প্রধান লিয়াকত আলী লাকী বললেন, ‘নাটকটি রূপান্তরের ক্ষেত্রে আমি তখন তারিক আনামকে সহযোগিতা করেছিলাম। তাই নতুনভাবে ভিন্ন আঙ্গিকে নাটকটি মঞ্চে আনা আমার জন্য সহজ হয়েছে। ’

২০০৬ সালে লোক নাট্যদল থেকে কিছু নাট্যকর্মী বের হয়ে গঠন করে ‘লোক নাট্যদল (বনানী) নামে নতুন আরেকটি দল । তারাও নিয়মিত মঞ্চস্থ করছে এ নাটকটি । এ দলে কঞ্জুস নাটকটি নির্দেশনা দিচ্ছেন কামরুন নূর চৌধুরী ।

এমন একটি কমেডি নাটক রূপান্তর প্রসঙ্গে তারিক আনাম খান বলেন ‘যুক্তি এবং বুদ্ধি ছাড়া কমেডি করা সম্ভব নয় । আমি চেষ্টা করেছি তার সমন্বয় করতে। দর্শক এটি গ্রহণ করেছেন। ’ এখনকার কমেডি সম্পর্কে তিনি বলেন, মানুষ এখন কমেডি করে না, হাসানোর চেষ্টা করে, ফলে এটা হয়ে যায় হাস্যকর। ’

২৫ অক্টোবর সোমবার শিল্পকলা একাডেমীর মূল হলে সন্ধ্যা ৭টায় লোক নাট্যদলের ‘কঞ্জুস’ নাটকের ৫৬৯তম প্রদর্শনী হবে ।

 এ সম্পর্কে নাটকটির নির্দেশক এবং  লোক নাট্যদলের প্রধান লিয়াকত আলী লাকী বললেন, ‘বাংলাদেশের সর্বাধিক মঞ্চায়িত এ নাটকটির ৫৬৯তম প্রদর্শনী হবে এবং ২৮ বছর ধরে একটি নাটক মঞ্চস্থ হচ্ছে, এটি বাংলা থিয়েটারের জন্য একটি উল্লেখযোগ্য ঘটনা। এর পেছনে নাট্যকর্মীদের অকান্ত শ্রম এবং দায়বদ্ধতার বিষয়টিও গুরুত্বপূর্ণ। দর্শকদের ভালোবাসার কারণেই এখনো নিয়মিত নাটকটি মঞ্চস্থ হচ্ছে। ৫৬৮তম প্রদর্শনীর দিন বৃষ্টির মধ্যেও পরান ঢাকার জহির রায়হান মিলনায়তনে হলভর্তি দর্শক ছিলেন, অনেকে টিকিট না পেয়ে ফেরত গেছেন, এটা আমাদের জন্য একটি বড় পাওয়া। ’

বাংলাদেশ সময়: ১৫০৩ঘণ্টা, অক্টোবর ২৫, ২০১০

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa