ঢাকা, রবিবার, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৭, ০৯ আগস্ট ২০২০, ১৮ জিলহজ ১৪৪১

বিনোদন

নিজের সঙ্গে লড়াই ভালো লাগে না: শাকিব খান

বিনোদন প্রতিবেদক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮১১ ঘণ্টা, জুলাই ৩০, ২০১২
নিজের সঙ্গে লড়াই ভালো লাগে না: শাকিব খান

ঢালিউডে গত কয়েক বছরের মতো এবারের ঈদেও থাকছে শীর্ষনায়ক শাকিব খানের একচেটিয়া প্রাধান্য। আসছে ঈদে শাকিব খান অভিনীত ৪টি ছবি মুক্তি পাচ্ছে।

বক্স অফিসে ব্যবসায়িক সাফল্যের জন্য শাকিব খান এবার নিজেই নিজের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

শাকিব খান অভিনীত ঈদের ৪টি ছবি মুক্তি চূড়ান্ত হয়ে গেছে। ছবিগুলো হলো-  এফআই মানিক পরিচালিত ‘মাই নেম ইজ সুলতান’, বদিউল আলম খোকন পরিচালিত ‘ডন নাম্বার ওয়ান’, সোহানুর রহমান সোহান পরিচালিত ‘সে আমার মন কেড়েছে’ এবং সাফিউদ্দিন সাফি পরিচালিত ‘ঢাকার কিং’। এফডিসির জহির রায়হান কালার ল্যাবে এ মুহূর্তে ছবি চারটির প্রিন্ট চলছে। Shakib-Khan

যদিও চলচ্চিত্র প্রযোজক পরিবেশক সমিতি প্রথমে সিদ্ধান্ত নিয়েছিল, ঈদে শাকিব খানের দুটি আর অন্য নায়কের তিনটি মোট পাঁচটি ছবি রিলিজ দেওয়া হবে। কিন্তু প্রযোজকদের অব্যাহত চাপে শেষ পর্যন্ত এই সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসতে হয়।

প্রযোজক-পরিবেশক সমিতি সূত্রে জানা গেছে, সব মিলিয়ে এবারের ঈদে মোট আটটি ছবি মুক্তি পাচ্ছে। এর মধ্যে শাকিব খানের চারটি।

অন্য নায়কদের অভিনীত চারটি ছবি হলো- এমএ জলিল অনন্ত প্রযোজিত-অভিনীত ও অনন্য মামুন পরিচালিত ‘মোস্ট ওয়েলকাম’, তরুণ পরিচালক আশরাফুর রহমান পরিচালিত ‘তুমি আসবে বলে’, বাসু চাটার্জি পরিচালিত ‘হঠাৎ সেদিন’ এবং শাজাহান চৌধুরী পরিচালিত সরকারি অনুদানে নির্মিত ‘আত্মদান’। এর মধ্যে শেষের উল্লিখিত দুটি ছবির ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার হবে চ্যানেল আইতে।

আসন্ন ঈদে চারটি ছবি মুক্তি প্রসঙ্গে শাকিব খান বাংলানিউজকে বলেন, “সত্যি বলতে কী, আমি নিজেও চাই না কোনো উৎসবে আমার দুটির বেশি ছবি মুক্তি পাক। নিজের সঙ্গে লড়াই করতে আর ভালো লাগে না। কারণ এমনিতে চলচ্চিত্রের দর্শক সীমিত হয়ে গেছে। এখন একই উৎসব কেন্দ্র করে যদি আমার চারটি ছবি মুক্তি পায় তাহলে দর্শক কোনটি রেখে কোনটি দেখবে। দর্শকের মধ্যে বিভ্রান্তির সম্ভাবনা থাকে। আমাদের দেশে এমন দর্শক খুব কমই আছে, যিনি বিশেষ কোনো উপলক্ষে মুক্তি পাওয়া এক নায়কের চারটি ছবিই দেখার জন্য সিনেমা হলে উপস্থিত হবেন। ”

শাকিব খান আরও বললেন, “আবার প্রযোজকদের স্বার্থও দেখা উচিত। ব্যবসায়িকভাবে এখন ৮০ শতাংশ ছবিই সাফল্যের মুখ দেখতে ব্যর্থ হচ্ছে। ঈদে মুক্তি পাওয়া ছবিগুলোর ব্যবসায়িক সাফল্য পাওয়ার সম্ভাবনা থাকে বেশি। কারণ আমাদের দেশে একশ্রেণির দর্শক আছেন, যারা কেবল ঈদ বা বিশেষ কোনো উৎসবেই কেবল সিনেমা দেখতে হলে আসেন। প্রযোজকরা তাদের বিনিয়োগ করা টাকা উঠে আসার নিশ্চয়তার জন্যই ঈদে ছবি মুক্তি দিতে তৎপর হন। তাদের এই তৎপরতা অবশ্যই যুক্তিসঙ্গত। কারণ বিনিয়োগ করা টাকা ফেরত না পেলে নতুন ছবি তৈরি করবেন কী করে?”

শাকিব খান জানালেন, চলতি বছর থেকে তিনি কোয়ানটিটির চেয়ে কোয়ালিটির প্রতি বেশি নজর দিচ্ছেন। তাই ইদানিং তিনি বেছে বেছে কাজ করছেন।


বাংলাদেশ সময় ১৭১০, জুলাই ৩০, ২০১২
সম্পাদনা: বিপুল হাসান, বিভাগীয় সম্পাদক/রানা রায়হান, অ্যাসিসট্যান্ট আউটপুট এডিটর

 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa