ঢাকা, রবিবার, ২২ মাঘ ১৪২৯, ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৩ রজব ১৪৪৪

বিনোদন

আপাতত বাংলাদেশে মুক্তি পাচ্ছে না শাহরুখের ‘পাঠান’

বিনোদন ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭৩৯ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৪, ২০২৩
আপাতত বাংলাদেশে মুক্তি পাচ্ছে না শাহরুখের ‘পাঠান’

চার বছর পর বুধবার (২৫ জানুয়ারি) ভারতে মুক্তি পাচ্ছে বলিউড বাদশা শাহরুখ খানের নতুন সিনেমা ‘পাঠান’। ইতোমধ্যেই ভারতে বেশ আওয়াজ তুলেছে শাহরুখ আর দীপিকা পাড়ুকোনের এই সিনেমাটি।

সাফটা চুক্তির আওতায় বলিউডের সঙ্গে মিলিয়ে একই দিনে ‘পাঠান’ বাংলাদেশেও মুক্তির উদ্যোগ নিয়েছিল বাংলাদেশের অ্যাকশন-কাট এন্টারটেইনমেন্ট।  

সাফটা চুক্তির আওতায় সিনেমাটি বাংলাদেশে মুক্তি পাবে কিনা এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে মঙ্গলবার (২৪ জানুয়ারি) সচিবালয়ে সভায় বসে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. ফারুক আহমেদ। যেখানে উপস্থিত ছিলেন মন্ত্রণালয়ের শীর্ষ কর্তাসহ চলচ্চিত্রকার কাজী হায়াৎ, হল মালিক ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের অ্যাডভাইজার সুদীপ্ত কুমার দাস প্রমুখ। কিন্তু সেখানে দেশে সিনেমাটি মুক্তির বিষয়ে কোন সিদ্ধান্ত হয়নি।  

এ বিষয়ে ওই বৈঠকে উপস্থিত থাকা হল মালিক ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের অ্যাডভাইজার সুদীপ্ত কুমার দাস বলেন, আজকের মন্ত্রণালয়ের আমদানি-রপ্তানিসংক্রান্ত কমিটির বৈঠকে পরিচালক সমিতি ও হল মালিকরা বসেছিলাম। বৈঠকে পাঠান আনার পক্ষে যুক্তি উপস্থাপন করেছি আমরা। বিপরীতে না আনার পক্ষেও যুক্তি দেওয়া হয়েছে। তবে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। যেহেতু এটা আমদানি রপ্তানির বিষয় তাই বাণিজ্য মন্ত্রলায়েরও বিষয় আছে। তাই আমাদের বিষয়ে সিদ্ধান্তের জন্য বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে। দেখা যাক কি সিদ্ধান্ত আসে।

এদিকে, ‘পাঠান’ আমদানির আবেদনকর্তা নির্মাতা অনন্য মামুন বলেন, বৈঠক খুব ফলপ্রসূ হয়েছে। তবে আইনি জটিলতার কারণে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে পারেননি সংশ্লিষ্টরা। আমদানী নীতিমালায় হিন্দি বা উর্দু সিনেমা বাংলাদেশে আনতে মানা আছে। আবার সাফটা চুক্তিতে বাইরের দেশের যেকোনো সিনেমা বাংলাদেশে মুক্তিতে বাঁধা নেই। আমার পাঠান সিনেমা সাফটা চুক্তির মাধ্যমে বাংলাদেশে আনার জন্য আবেদন করেছি। তাই তথ্য মন্ত্রণালয় বাণিজ্য মন্ত্রণালয়কে একটি চিঠি দেবে। কারণ সিনেমা আমদানি ও রফতানি আইন তৈরি করেছে মূলত বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। বাণিজ্য মন্ত্রণালয় বিষয়টি খতিয়ে দেখবে। তারা ক্লিয়ারেন্স দিলেই পাঠান সিনেমাটি বাংলাদেশের দর্শক হলে গিয়ে দেখতে পারবে। আমার বিশ্বাস নিয়মানুযায়ী বাণিজ্য মন্ত্রণালয় পাঠান আনতে আপাত্তি তুলবে না।

যদি বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অনুমতি পায় এরপরও ‘পাঠান’কে বাংলাদেশের সেন্সর বোর্ডের চৌকাঠ পেরিয়ে আসতে হবে। এরপরই এটি প্রদর্শিত হবে সিনেমা হলে।

জানা যায়, সাফটা চুক্তির আওতায় দেশের ‘পাঠান’ আর ভারতে যাওয়ার কথা ছিল শাকিব খানের ‘পাঙ্কু জামাই’ সিনেমাটি।

‘পাঠান’ সিনেমা পরিচালনা করেছেন সিদ্ধার্থ আনন্দ। সিনেমাটির অন্যান্য চরিত্রে দেখা যাবে ডিম্পল কাপাডিয়া, আশুতোষ রানা, গৌতম, একতা কৌরকে। এছাড়াও ক্যামিও চরিত্রে দেখা যাবে সালমান খানকে।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৩৯ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৪, ২০২৩
এনএটি 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa