ঢাকা, শনিবার, ১৫ মাঘ ১৪২৮, ২৯ জানুয়ারি ২০২২, ২৫ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

নির্বাচন ও ইসি

উল্লাপাড়ায় ১২টিতে নৌকা, একটিতে বিদ্রোহী প্রার্থীর জয়

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮০১ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৯, ২০২১
উল্লাপাড়ায় ১২টিতে নৌকা, একটিতে বিদ্রোহী প্রার্থীর জয়

সিরাজগঞ্জ: তৃতীয় দফা ইউপি নির্বাচনে সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া উপজেলার ১৩টি ইউনিয়নের ১২টিতে আওয়ামী লীগ প্রার্থীরা বিজয়ী হয়েছেন। অপর একটি ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী হিসেবে জয়লাভ করেছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী।

 

সোমবার (২৯ নভেম্বর) দুপুরে উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তা মাসুদ রানা এ ফলাফলের তথ্য জানান।  

এর আগে রোববার (২৮ নভেম্বর) সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণের পর গভীর রাত পর্যন্ত উপজেলার নির্বাচন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করে ফলাফল পাওয়া যায়নি।  

স্ব স্ব ইউনিয়নে দায়িত্বরত রিটার্নিং কর্মকর্তা স্বাক্ষরিত বেসরকারিভাবে ঘোষিত ফলাফলে জানা যায়, রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম হিরো (প্রতীক- নৌকা) ১০ হাজার ৫৮০ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিদ্রোহী প্রার্থী মনজেল হক সাগর (প্রতীক-ঘোড়া) পেয়েছেন ৬৫১১ ভোট। সলঙ্গায় আওয়ামী লীগ প্রার্থী মোখলেসুর রহমান (প্রতীক-নৌকা) ২১ হাজার ৫১৫ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী ফরহাদ আলী (হাতপাখা) পয়েছেন ৭১৪ ভোট। পঞ্চক্রোশী ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান তৌহিদুল ইসলাম ফিরোজ (প্রতীক-নৌকা) ১২ হাজার ৬০৭ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিদ্রোহী প্রার্থী আরিফুল ইসলাম লিটন (প্রতীক-ঘোড়া) পেয়েছেন ৭১৪৯ ভোট।

সলপ ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার শওকাত ওসমান ১৬ হাজার ৪২৬ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জামায়াত সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থী খন্দকার শহিদুল ইসলাম (প্রতীক-চশমা) পেয়েছেন ১১৭৬ ভোট।  

বাঙ্গালা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান সোহেল রানা পেয়েছেন ৯ হাজার ৭১৮ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিদ্রোহী প্রার্থী আবু হানিফ (প্রতীক-মোটরসাইকেল) পেয়েছেন ৫ হাজার ৭১৪ ভোট।  
উদুনিয়ায় আওয়ামী লীগ প্রার্থী মো. রেজাউল করিম ৯ হাজার ৯৩১ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জামায়াত সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থী মনজিলুর রহমান (প্রতীক-ঘোড়া) পেয়েছেন ৭ হাজার ৫৭৮ ভোট। বড় পাঙ্গাসী ইউনিয়নে আবার বিজয়ী হয়েছেন বর্তমান চেয়ারম্যান হুমায়ুন কবির লিটন। তিনি নৌকা প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৭৮৫১ ভোট। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিদ্রোহী প্রার্থী আবু বক্কার সিদ্দিকী (প্রতীক-মোটরসাইকেল) পেয়েছেন ৪ হাজার ৪৬৮ ভোট। মোহনপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বর্তমান চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ মক্কা ৯ হাজার ৭৬১ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিদ্রোহী প্রার্থী ইকবাল হোসেন (প্রতীক-ঘোড়া) পেয়েছেন ৯ হাজার ৬০ ভোট। দুর্গানগরে আওয়ামী লীগের প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান আফছার আলী ৯ হাজার ২১৬ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিদ্রোহী প্রার্থী তারেকুল ইসলাম (প্রতীক-অটোরিকশা) ৭ হাজার ৯৫১ ভোট। পূর্ণিমাগাঁতী ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের প্রার্থী রেজাউল ইসলাম তপন ১২ হাজার ৮২৩ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিদ্রোহী প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান আল-আমিন সরকার (প্রতীক-মোটরসাইকেল) পেয়েছেন ৭ হাজার ৫২১ ভোট।
 
হাটিকুমরুল ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান হেদায়েতুল আলম ১৮ হাজার ৯৬৩ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী দলের বিদ্রোহী প্রার্থী আরাফাত রহমান (প্রতীক-চশমা) পেয়েছেন ৭ হাজার ১৯ ভোট।  উল্লাপাড়া সদর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান আব্দুস সালেক ১০ হাজার ৩১০ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিদ্রোহী প্রার্থী রফিকুল ইসলাম রতন (প্রতীক-আনারস) পেয়েছেন ১ হাজার ৭৪৭ ভোট। কয়ড়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী গাজী খোরশেদ আলম (প্রতীক-মোটরসাইকেল) ৮ হাজার ৪৩ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগ প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান হেলাল উদ্দিন পেয়েছেন ৩ হাজার ৬৪১ ভোট।  

বাংলাদেশ সময়: ১৭৫৫ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৯, ২০২১
এসআই

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa