ঢাকা, রবিবার, ২২ মাঘ ১৪২৯, ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৩ রজব ১৪৪৪

নির্বাচন ও ইসি

ইউপি নির্বাচন 

চেয়ারম্যানের ব্যালট টেবিলে রেখে মেম্বারের ব্যালট নিয়ে বুথে যেতে হবে!

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৯৫২ ঘণ্টা, নভেম্বর ১০, ২০২১
চেয়ারম্যানের ব্যালট টেবিলে রেখে মেম্বারের ব্যালট নিয়ে বুথে যেতে হবে!

সিরাজগঞ্জ: সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় আচরণ বিধি লঙ্ঘন করে নির্বাচনী প্রচারণায় নেমেছেন স্থানীয় সংসদ সদস্য তানভীর ইমাম। তার বিরুদ্ধে বিরোধী প্রার্থীদের হুমকি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

 

মঙ্গলবার (৯ নভেম্বর) এমপি তানভীর ইমাম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভার ব্যানারে দলীয় মনোনীত প্রার্থীর পক্ষে তিনটি নির্বাচনী সমাবেশ করেন। দুপুরের দিকে উল্লাপাড়া সদর ইউনিয়নের বাকুয়া গ্রামে দলীয় প্রার্থী আব্দুস সালেক, বিকেলে বড় পাঙ্গাসী ইউনিয়নের হুমায়ুন কবির লিটন এবং সন্ধ্যায় সলপ ইউনিয়নের শওকাত ওসমানের পক্ষে সমাবেশ করেন তিনি। এসব সভায় উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ফয়সাল কাদির রুমি, সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফাসহ দলীয় চেয়ারম্যান প্রার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।  

অভিযোগ রয়েছে এসব সমাবেশ থেকে দলের বিদ্রোহী প্রার্থীদের প্রতি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার না করলে হাত-পা ভেঙ্গে ফেলার হুমকি দিয়ে যাচ্ছেন তিনি।  

বড় পাঙ্গাসী ইউনিয়নে দলের বিদ্রোহী প্রার্থী আবু বকর সিদ্দিক বলেন, মঙ্গলবার বিকেলে হাওড়া এলাকায় সভা করছেন এমপি সাহেব। উল্লাপাড়া সদর ইউনিয়ন পরিষদের স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক চেয়ারম্যান আকমাল হোসেন বলেন, মঙ্গলবার বাকুয়া গ্রামে বিশাল নির্বাচনী সমাবেশ করেছেন এমপি সাহেব।  

নির্বাচনী প্রচারণায় এমপির অংশগ্রহণের বিষয়ে কিছু বলতে অপারগতা প্রকাশ করে হাটিকুমরুল ইউনিয়নের স্বতন্ত্র প্রার্থী আরাফাত রহমান বলেন, এখানে নৌকার প্রার্থী আলম রেজা প্রকাশ্যে বলে বেড়াচ্ছেন চেয়ারম্যানের ব্যালট টেবিলে রেখে মেম্বারের ব্যালট নিয়ে বুথের ভেতরে যেতে হবে ভোটারদের।  

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক স্বতন্ত্র প্রার্থী অভিযোগ করে বলেন, কয়েক দিন ধরে আচরণ বিধি লঙ্ঘন করে এমপি তানভীর ইমাম নির্বাচনী প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন। এমপির লোকজন স্বতন্ত্র প্রার্থী ও সমর্থকদের বিভিন্ন সময় হুমকি-ধামকিও দিয়ে আসছেন। ফলে স্বতন্ত্র প্রার্থী ও ভোটাররা চরম আতঙ্কের মধ্যে রয়েছে বলেও অভিযোগ উঠেছে। তবে এসব বিষয়ে অভিযোগ করতেও ভয় পাচ্ছেন প্রার্থীরা। এখন পর্যন্ত প্রতীক বরাদ্দ না হলেও আওয়ামীলীগের প্রার্থীরা ব্যাপক শো-ডাউন ও প্রচারণা করছে বলে অভিযোগ স্বতন্ত্র প্রার্থীদের। অপরদিকে পুলিশি প্রোটোকল নিয়ে এমপি নির্বাচনী সমাবেশ করছেন।  

উল্লাপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হুমায়ুন কবির বলেন, এমপি সাহেব এলাকায় থাকলে তাকে প্রটেশকন দিতে হয়। তবে তিনি নির্বাচনী মিটিং করছেন কিনা বিষয়টি জানা নেই।  

উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. মাসুদ রানা বলেন, এমপি নির্বাচনী সমাবেশ করেছেন-কেউ যদি এমন অভিযোগ করে তাহলে সেটা তদন্ত করে দেখা হবে।  

জেলা নির্বাচন অফিসার মো. শহীদুল ইসলাম বাংলানিউজকে বলেন, সংসদ সদস্যদের নির্বাচনী সভায় বা প্রচারণায় অংশ নেওয়ার কোনো সুযোগ নেই। এ ব্যাপারে অভিযোগ পেলে আইন অনুযায়ী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।  

এ ব্যাপারে তানভীর ইমাম এমপির সঙ্গে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি তার ব্যক্তিগত সহকারীকে ধরিয়ে দেন। ব্যক্তিগত সহকারী মীর আরিফুল ইসলাম উজ্জ্বল বলেন, এমপি সাহেব কোনো নির্বাচনী সমাবেশ করেন নাই। তিনি দলের তৃণমূলের নেতাদের সঙ্গে পূর্ব নির্ধারিত মত বিনিময় সভা করছেন। এর আগে দলীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এক সভায় তিনি বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থীদের প্রতি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন বলে স্বীকার করেন উজ্জ্বল।  

বাংলাদেশ সময়: ০৯৪০ ঘণ্টা, নভেম্বর ১০ , ২০২১ 
এসআইএস 
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa