ঢাকা, শুক্রবার, ১৩ মাঘ ১৪২৮, ২৮ জানুয়ারি ২০২২, ২৪ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

নির্বাচন ও ইসি

‘আইজ্জাতো সিল নাই, মেশিনে ভোট দিসি’

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০৫৫ ঘণ্টা, নভেম্বর ২, ২০২১
‘আইজ্জাতো সিল নাই, মেশিনে ভোট দিসি’

ফেনী: আইজ্জাতো (আজ) সিল নাই, মেশিনে ভোট দিসি। কোনো ঝামেলা নাই, এক্কেরে সহজ।

ইভিএমে ভোট দেওয়া নিয়ে এভাবেই প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করছিলেন ষাটোর্ধ্ব বৃদ্ধ রাবেয়া বেগম। ছাগলনাইয়া পৌর শহরের শিশু পরিবার কেন্দ্রে সকাল ৮টা ১৫ মিনিটের দিকে কথা হয় তার সঙ্গে।

ইলেকট্রনিক্স ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) প্রথমবারের মতো ভোট দিয়েছে ছাগলনাইয়া পৌর সভার বাসিন্দারা। নির্বাচনে সর্বাত্মক নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে নির্বাচন কমিশন ও সংশ্লিষ্টরা।  

‘ক’ শ্রেণির এ পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় রয়েছেন দুজন। তারা হলেন- আওয়ামী লীগ মনোনীত বর্তমান মেয়র ও পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহাম্মদ মোস্তফা এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী নুর মোহাম্মদ জাকের হয়দার সুমন। জাকের হয়দার স্বতন্ত্র প্রার্থী হলেও তিনি ছাগলনাইয়া উপজেলা যুবলীগের সিনিয়র সদস্য, পৌর ছাত্রলীগের সাবেক আহ্বায়ক ও জাতীয় একটি দৈনিক পত্রিকার স্থানীয় প্রতিনিধি।

মেয়র পদে দলীয় প্রার্থী থাকলেও কাউন্সির পদে নেই কোনো দলীয় প্রার্থী। আর এ কারণেই তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হচ্ছে এ পদের ভোট। ৯টি সাধারণ ওয়ার্ডে ৪১ জন ও তিনটি সংরক্ষিত মহিলা ওয়ার্ডে ১১ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতায় রয়েছেন।

৯টি সাধারণ ওয়ার্ডের মধ্যে ১ নম্বর ওয়ার্ডে ৪ জন, ২ নম্বর ওয়ার্ডে ৩ জন, ৩ নম্বর ওয়ার্ডে ৪ জন, ৪ নম্বর ওয়ার্ডে ৩ জন, ৫ নম্বর ওয়ার্ডে ৬ জন, ৬ নম্বর ওয়ার্ডে ৮ জন, ৭ নম্বর ওয়ার্ডে ৫ জন, ৮ নম্বর ওয়ার্ডে ৪ জন ও ৯ নম্বর ওয়ার্ডে ৪ জন।  

এছাড়া ১ নম্বর (১, ২, ৩) সংরক্ষিত মহিলা ওয়ার্ডে ৪ জন, ২ নম্বর (৪, ৫, ৬) সংরক্ষিত মহিলা ওয়ার্ডে ৩ জন, ৩ নম্বর (৭, ৮, ৯) সংরক্ষিত মহিলা ওয়ার্ডে ৪ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতায় রয়েছেন।

২০০২ সালে ছাগলনাইয়া পৌরসভার যাত্রা শুরু হয়। দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম আয়তনের পৌরসভাটির আয়তন ২৮.৫০ বর্গকিলোটার এবং ৬৫ হাজারের অধিক জনসংখ্যা অধ্যুষিত। আসন্ন নির্বাচনে ৩৫ হাজার ৬৫৯ জন ভোটার। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১৮ হাজার ৬৫ জন। মহিলা ১৭ হাজার ৫৪ জন। ভোট কেন্দ্র ১৩টি, কক্ষ ৯৩টি, অস্থায়ী কক্ষ ৪টি।  

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ নাছির উদ্দিন পাটোয়ারী বলেন, নির্বাচন সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ করতে সব ধরনের প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে। মাঠে মোতায়েন থাকবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।  

ছাগলনাইয়া উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা জসিম উদ্দিন বলেন, ৯টি ওয়ার্ডের মোট ১৩ কেন্দ্রের সবগুলো অধিক গুরুত্বপূর্ণ কেন্দ্র হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে নির্বাচন অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে ইতোমধ্যে প্রয়োজনীয় সব ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

এতে পুলিশ, র‍্যাব বিজিবি ও আনসারসহ ৪ শতাধিক আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য নিয়োজিত থাকবে। এছাড়া ১০ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও একজন জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ করা হয়েছে। মঙ্গলবার সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোটাররা ইভিএমের মাধ্যমে নিজেদের মূল্যবান ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন।  

ইভিএমে ভোটের অভিজ্ঞতার বিষয়ে জানতে চাইলে ভোটাররা বলেন, আগে কঠিন মনে হলেও ভোট দিতে এসে প্রক্রিয়াটিকে সহজই মনে হয়েছে। ছাগলনাইয়া শিশু পরিবার কেন্দ্রে কথা হয় মোসাম্মত মনোয়ারা বেগম নামে এক ভোটারের সঙ্গে। তিনি জানান, প্রার্থীর লোকজন আগে থেকেই দেখিয়ে দিয়েছেন কীভাবে ভোট দিতে হবে। সেভাবেই ভোট দিয়ে দিয়েছি। ইভিএমে ভোটে কোনো ভেজাল নেই, সহজেই ভোট দেওয়া যায়।  

সপ্তম ধাপের দেশের ১০টি পৌরসভায় মঙ্গলবার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে।  

বাংলাদেশ সময়: ১০৪৬ ঘণ্টা, নভেম্বর ০২, ২০২১
এসএইচডি/আরবি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa