ঢাকা, রবিবার, ৯ শ্রাবণ ১৪২৮, ২৫ জুলাই ২০২১, ১৪ জিলহজ ১৪৪২

নির্বাচন ও ইসি

ইভিএমে আগ্রহ বেড়েছে ভোটারদের

ইকরাম-উদ দৌলা, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৫৩ ঘণ্টা, জুন ২২, ২০২১
ইভিএমে আগ্রহ বেড়েছে ভোটারদের

ঢাকা: সদ্য অনুষ্ঠিত প্রথম ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) গড়ে ৬৩ শতাংশের উপরে ভোট পড়েছে। অতীতের তুলনায় যা ইভিএমে ভোটারদের আগ্রহ বাড়ার বিষয়টিকে ইঙ্গিত দিচ্ছে।

নির্বাচন কমিশনের (ইসি) কর্মকর্তারা বলছেন, স্থানীয় পর্যায়ে ইভিএমের ব্যবহার বাড়িয়ে ভোটারদের অভ্যস্ত করাই হচ্ছে কমিশনের লক্ষ্য। এরপর জাতীয় নির্বাচনে বড় আকারে ইভিএম মেশিনের ব্যবহারের পরিকল্পনা রয়েছে।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কেএম নূরুল হুদাও বলেছেন, স্থানীয় পর্যায়ে বেশি বেশি করে ইভিএম ব্যবহার করে যন্ত্রটিকে জনপ্রিয় করা হবে। তারপর ব্যাপক আকারে জাতীয় নির্বাচনে ব্যবহার। সেই লক্ষ্য নিয়েই এগোচ্ছে ইসি।

কর্মকর্তারা জানান, সেই পরিকল্পনার ধারাবাহিকতা প্রথম ধাপের ইউপি নির্বাচনের ২০টিতে ইভিএম ব্যবহারের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এরমধ্যে দুটিতে চেয়ারম্যান পদে দুজন প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন। ভোট হয় ১৮টিতে।

ইউপি নির্বাচনের সমন্বয়ক ও উপ-সচিব মো. মিজানুর রহমান জানান, পটুয়াখালীর দুমকির ভাঙ্গারিয়া, বাউফলের বগা; বরিশাল সদরের চরবারিয়া, মুলাদী উপজেলার গাছোয়া, বাবুগঞ্জের বীরশ্রেষ্ঠ জাহাঙ্গীরনগর; বরগুনা সদর উপজেলার ঢুলুয়া, বরগুনা, আমতলী উপজেলার চাওরা, বেতাগীর বেতাগী; পিরোজপুর সদরের কদমতলা, মঠবাড়িয়ার তুষখালী, নাজিরপুর উপজেলার সেখমাটিয়া; ঝালকাঠী সদরের বিনয়কাঠী, নবুল্লাবাদ, নলসিটির ভৈরবপাশা, দপদপিয়া, রাজাপুরের শুক্তগড়; মাদারীপুরের শিবচরের কাদেরপুর ইউপিতে ইভিএমে ভোট হয়েছে।

এসব ইউপিতে মোট ভোটার ছিল ২ লাখ ১ হাজার ৫১৯ জন। এদের মধ্যে ভোট দিয়েছেন ১ লাখ ২৭ হাজার ৮৯৪ জন ভোটার। অর্থাৎ ভোট পড়ার হার ৬৩ দশমিক ৪৬ শতাংশ।

২০৪টি ইউপির মধ্যে ২৮ জন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। ব্যালট পেপারের ভোট হয়েছে ১৫৮ ইউপিতে। মোট ভোটের হার ৬৪ দশমিক ৭৩ শতাংশ।

বাংলাদেশ সময়: ২০৩৩ঘণ্টা, জুন ২২, ২০২১
ইইউডি/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa