ঢাকা, বুধবার, ২ আষাঢ় ১৪২৮, ১৬ জুন ২০২১, ০৫ জিলকদ ১৪৪২

নির্বাচন ও ইসি

প্রতি বছর চূড়ান্ত ভোটার তালিকা প্রকাশ হবে ২ মার্চ

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৪৪ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৮, ২০২১
প্রতি বছর চূড়ান্ত ভোটার তালিকা প্রকাশ হবে ২ মার্চ

ঢাকা: সবশেষ হালনাগাদের পর এখন থেকে প্রতি বছর ২ মার্চ চূড়ান্ত ভোটার তালিকা প্রকাশ করা হবে। বিধিমালা সংশোধন করে বিষয়টি পাকাপোক্ত করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

২ মার্চ জাতীয় ভোটার দিবস। মোট তিনবার দিবসটি পালন হয়েছে। এর সঙ্গে সামঞ্জস্য রাখতেই আগের বিধানে সংশোধন আনে সংস্থাটি।

ইসির নির্বাচন পরিচালনা শাখার যুগ্ম সচিব মো. ফরহাদ আহাম্মদ খান বলেন, এ জন্যই এবার ইউপি ভোট দেরিতে শুরু করতে হয়েছিল, যদিও সেই প্রক্রিয়া করোনার কারণে স্থগিত করা হয়েছে।

আগে হালনাগাদের পর ভোটার তালিকার খসড়া প্রকাশ করা হতো ২ জানুয়ারি। সে খসড়ার ওপর আনিত দাবি, আপত্তি নিষ্পত্তির পর চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ হতো ৩১ জানুয়ারি। কিন্তু সম্প্রতি ভােটার তালিকা আইন, ২০০৯ (২০০৯ সনের ৬ নং আইন) এর ধারা ১৬ এ ক্ষমতাবলে নির্বাচন কমিশন, ভােটার তালিকা বিধিমালা, ২০১২ এর ওপর সংশোধন এনেছে। ফলে, খসড়া ২ জানু্য়ারি প্রকাশ হলেও চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ হবে ২ মার্চ।

ইসি কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ভারতের ভোটার দিবসে প্রচুর মানুষ ভোটার হয়। তাই এদেশেও ভোটার দিবস উদযাপনের উদ্যোগ নেন কেএম নূরুল হুদার কমিশন। সরকার কমিশনের সুপারিশের পরিপ্রেক্ষিতে ২ মার্চকে ‌‘গ’ ক্যাটাগরির জাতীয় দিবস হিসেবে ঘোষণা দেয়।

ভোটার দিবসে ১৮ বছর বয়স্ক নাগরিকদের ভোটার হওয়ার জন্য নানা উৎসাহমূলক কর্মসূচি পালন করে থাকে। এছাড়া এদিন নতুন ভোটারদের হাতে স্মার্টকার্ডও তুলে দেয় ইসি।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৩৫ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৮, ২০২১
ইইউডি/ওএইচ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa