ঢাকা, বুধবার, ৭ আশ্বিন ১৪২৮, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩ সফর ১৪৪৩

নির্বাচন ও ইসি

কালকিনিতে দুই কেন্দ্রে সংঘর্ষ, বোমা বিস্ফোরণে আহত ২

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪৪৪ ঘণ্টা, মার্চ ৩১, ২০২১
কালকিনিতে দুই কেন্দ্রে সংঘর্ষ, বোমা বিস্ফোরণে আহত ২

মাদারীপুর: মাদারীপুরের কালকিনি পৌরসভা নির্বাচনে দুটি কেন্দ্রে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী এসএম হানিফের সমর্থকদের সঙ্গে বিদ্রোহী প্রার্থী সোহেল রানা মিঠুর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এসময় দুই পক্ষের সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে।

দুই পক্ষের সমর্থকরাই বোমা বিস্ফোরণ করে। এ ঘটনায় অন্তত দুইজন গুরুতর আহত হন। পরে পুলিশ ফাঁকা গুলি করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

বুধবার (৩১ মার্চ) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে পাঙ্গাশিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও বেলা সাড়ে ১২টার দিকে শিকারমঙ্গল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র এ ঘটনা ঘটে।  

জানা যায়, সকাল ৮টা শুরু হয়ে বিরতীহীনভাবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত মাদারীপুরের কালকিনি পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ভোটার সংখ্যা বাড়তে থাকে। সকালে ভোটার উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো।

মাদারীপুর জেলার নির্বাচন কর্মকর্তা মনিরুজ্জামান বাংলানিউজকে জানান, কালকিনি পৌরসভায় মোট ভোটার সংখ্যা ৩৩ হাজার ৪০০ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১৬ হাজার ৯৫৮ জন ও নারী ভোটার ১৬ হাজার ৪৪২ জন। নির্বাচন চলাকালে একজন জুডিসিয়াল বিচারকসহ মোট ১০ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রে দায়িত্ব পালন করেন। এ নির্বাচনে মোট ৬৭০ জন পুলিশ সদস্য, ২ প্লাটুন বিজিবি, র‌্যাবের তিনটি টিম, গোয়েন্দা পুলিশ ও আনসার সদস্য দায়িত্ব পালন করছে। প্রতিটি ভোট কেন্দ্রে ৩০ জন করে পুলিশ সদস্যের পাশাপাশি প্রচুর আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী দায়িত্ব পালন করছে। এই পৌরসভায় মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৬ জন। এছাড়া কাউন্সিলর পদে ৩০ জন এবং সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ১১ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৪৪২ ঘণ্টা, মার্চ ৩১, ২০২১
এনটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa