ঢাকা, শুক্রবার, ১৫ শ্রাবণ ১৪২৮, ৩০ জুলাই ২০২১, ১৯ জিলহজ ১৪৪২

নির্বাচন ও ইসি

কালকিনিতে স্থগিত হওয়া পৌর নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭২৬ ঘণ্টা, মার্চ ১৭, ২০২১
কালকিনিতে স্থগিত হওয়া পৌর নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা

মাদারীপুর: মাদারীপুর জেলার কালকিনিতে স্থগিত হওয়া পৌর নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করা হয়েছে। আগামী ৩১ মার্চ কালকিনি পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।


বুধবার (১৭ মার্চ) জেলা নির্বাচন ও রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. মনিরুজ্জামান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
এর আগে গত মাসের ১৪ ফেব্রুয়ারি এ পৌরসভা নির্বাচনের ভোটগ্রহণের কথা ছিল। কিন্তু নির্বাচনে পুলিশের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন ওঠায় ও নির্বাচনী পরিবেশ অনুকূলে না থাকায় ভোটগ্রহণের তিন দিন আগে নির্বাচন স্থগিত করেছিল নির্বাচন কমিশন।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, গত ৬ ফেব্রুয়ারি দুপুরে নির্বাচনী প্রচারণা চালাচ্ছিলেন স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী মসিউর রহমান। বিকেল ৪টার দিকে মসিউরের মোবাইল ফোনে কল করেন মাদারীপুরের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মাহবুব হাসান। তাৎক্ষণিক সেখানে কালকিনি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাছির উদ্দিন গাড়ি নিয়ে হাজির হন। পরে সেখান থেকে তাকে পুলিশের গাড়িতে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়। এরপরই নিখোঁজ হন মসিউর। প্রতিবাদে বিক্ষোভ নিয়ে কালকিনি থানা ঘেরাও করেন তার সমর্থকেরা। টায়ার জ্বালিয়ে স্লোগান দেন বিক্ষুব্ধরা। কালকিনি-ভুরঘাটা-মাদারীপুর আঞ্চলিক সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। বিক্ষোভ মিছিলে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র দিয়ে হামলা চালান নৌকার প্রার্থী এস এম হানিফের সমর্থকেরা। পরে দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত হন অন্তত অর্ধশত মানুষ। আহতদের উদ্ধার করে মাদারীপুর জেলা সদর হাসপাতাল ও কালকিনি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। তাদের মধ্যে বেশ কয়েকজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশালের শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ, ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ ও ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

নিখোঁজ হওয়ার ১১ ঘণ্টা পর রাত সাড়ে ৩টার দিকে কালকিনি পৌরসভার দক্ষিণ কৃষ্ণনগরে নিজ বাড়িতে ফিরে আসেন মসিউর রহমান। এর পরপরই আলোচনায় উঠে আসে কালকিনি পৌরসভা নির্বাচনের বিষয়টি। এ বিষয়ে একাধিক সংবাদ প্রকাশ হলে ঘটনাটি নির্বাচন কমিশনের নজরে আসে। পরে গত ১৮ ফেব্রুয়ারি কমিশনের জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন অনুবিভাগের মহাপরিচালক হুমায়ুন কবিরকে প্রধান করে গঠন করা হয় তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি।
স্বতন্ত্র প্রার্থী নিখোঁজ হওয়ার ঘটনায় সংশ্লিষ্ট পুলিশের ভূমিকা, দোষী ব্যক্তিকে চিহ্নিতকরণ, প্রকৃত ঘটনা উদঘাটন, ভবিষ্যতে এ ঘটনার পুনরাবৃত্তি যেন না ঘটে সে ব্যাপারে সুপারিশের বিষয়ে তদন্তে প্রাধান্য দিতে বলা হয়। এরপরেই চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহে তদন্ত কমিটি মাদারীপুরে আসে। তদন্তে পুলিশের বিষয়টি সমালোচিত হওয়ায় পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মাহবুব হাসান ও কালকিনি থানার ওসি নাসির উদ্দিন মৃধাকে অনত্র বদলি করে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

জেলা নির্বাচন ও রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. মনিরুজ্জামান বলেন, কমিশন থেকে করা তদন্ত কমিটি পুলিশ সুপার বা ওসির ভুলত্রুটি পায়নি। তবে, পুলিশের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন ওঠায় সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ তাদের অনত্র বদলি করেছে। বর্তমানে নির্বাচনী এলাকার পরিবেশ স্বাভাবিক ও অনুকূলে থাকায় ৩১ মার্চ ভোটের নতুন তারিখ ঘোষণা করা হয়েছে। আশা করছি, অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ একটি নির্বাচন আমরা কালকিনিবাসীকে উপহার দিতে পারবো।

বাংলাদেশ সময়: ১৫২৫ ঘণ্টা, মার্চ ১৭, ২০২১
এসআই

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa