ঢাকা, রবিবার, ২৮ চৈত্র ১৪২৭, ১১ এপ্রিল ২০২১, ২৭ শাবান ১৪৪২

নির্বাচন ও ইসি

জয়পুরহাট পৌরসভা নির্বাচনে ৪২ প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০২৩ ঘণ্টা, মার্চ ২, ২০২১
জয়পুরহাট পৌরসভা নির্বাচনে ৪২ প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত প্রতীকী ছবি

জয়পুরহাট: জয়পুরহাট পৌরসভার নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী ৯১ প্রার্থীর মধ্যে প্রয়োজনীয় সংখ্যক ভোট না পাওয়ায় ৪২ জনের জামানত বাজেয়াপ্ত করেছে নির্বাচন কমিশন। ৫ম ধাপে ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী রোববার (২৮ ফেব্রুয়ারি) জয়পুরহাট পৌরসভার সাধারণ নির্বাচন-২০২১ অনুষ্ঠিত হয়।

রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা নির্বাচন অফিসার মো. শহিদুল ইসলাম জানান, জয়পুরহাট পৌরসভার সাধারণ নির্বাচনে মেয়র ও কাউন্সিলর পদে ৯১ জন প্রার্থী অংশগ্রহণ করেন। প্রয়োজনীয় সংখ্যক ভোট না পাওয়ায় তিন মেয়র, দুই মহিলা কাউন্সিলরসহ ৪২ জনের জামানত বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে।  

মেয়র পদে জামানত বাজেয়াপ্ত তিন জন হচ্ছেন- ইসলামী আন্দোলন বালাদেশ এর ডা. মো. জহুরুল ইসলাম (হাতপাখা) প্রাপ্ত ভোট ৪১২, স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে সদর উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ও স্থানীয় জামায়াত নেতা মো. হাসিবুল আলম (জগ) প্রাপ্ত ভোট ১ হাজার ৫২৫ ও বেদারুল ইসলাম বেদিন (নারিকেল গাছ) প্রাপ্ত ভোট হচ্ছে ৫৫৮। সংরক্ষিত আসনে মহিলা কাউন্সিলরের মধ্যে জামানত বাজেয়াপ্ত হয়েছে সেলিনা ও সুফলা বেগমের।  

জামানত বাজেয়াপ্ত সাধারণ কাউন্সিলররা হচ্ছেন- ১ নম্বর ওয়ার্ডে সাগর (৬১ ভোট), হাসানুজ্জামন (১২০ ভোট), লোকমান হোসেন (২৪০ ভোট)।  

২ নম্বর ওয়ার্ডে দীনেশ চন্দ্র মণ্ডল (১৪ ভোট), হাসেম আলী (৭৭ ভোট), আসাদুজ্জামান (১২৬ ভোট), আরিফ হোসেন (১৮২ ভোট)।  

৩ নম্বর ওয়ার্ডে মুক্তার হোসেন (৪১ ভোট), লুৎফর রহমান (৮৭ ভোট), আব্দুল কুদ্দুস আলী (২৩০ ভোট)।  

৪ নম্বর ওয়ার্ডে এএসএম নূরনবী দেওয়ান (৫৩ ভোট), হামিদুল (১০২ ভোট), দিজেন সরকার (১৩৩ ভোট), সিহাব হোসেন (২১২ ভোট)।  

৫ নম্বর ওয়ার্ডে সাজ্জাদুল ইসলাম (৩১ ভোট), নজরুল ইসলাম (১০৯ ভোট), তাজমুন হুদা (১১৯ ভোট), ফজলে বিন রয়েল (২৩৬ ভোট)।  

৬ নম্বর ওয়ার্ডে আলমগীর হোসেন (৬৩ ভোট), মিজানুর রহমান (৭১ ভোট), এনায়েত উল্লাহ (১০৯ ভোট), আজিজুল হক (১৩৫ ভোট), রফিকুল ইসলাম (১৩৮ ভোট), শেফায়েতুল আল সরদার (২০৭ ভোট), সরদার আলীউর রেজা (২৮০ ভোট) ।  

৭ নম্বর ওয়ার্ডে শাহ জামাল হোসেন (৩৬ ভোট), মিনহাজুল ইসলাম (১২৭ ভোট), শহিদুল ইসলাম পাটোয়ারী (১৪২ ভোট)।  

৮ নম্বর ওয়ার্ডে রানা হোসেন (১১৬ ভোট), খিজির হায়াত (১৮৯ ভোট) ও ৯ নম্বর ওয়ার্ডে ইমরান হোসেন (৪১ ভোট), আব্দুল হাফিজ (৬৬ ভোট), রেজাউল করিম (৭২ ভোট), সৈয়দ সুজন হুদা (৯০ ভোট), মোস্তাফিজুর রহমান শামীম (২১৮ ভোট), আশরাফুজ্জামান প্রিন্স (২৪০ ভোট) ও মাহবুবুর রহমান ( ২৪৯ ভোট)।  

রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. শহিদুল ইসলাম জানান, জামানতের টাকা ফেরৎ পাওয়ার জন্য অংশগ্রহণ করা পদের মোট প্রাপ্ত ভোটের ৮ ভাগের এক ভাগ ভোট পেতে হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১০৩০ ঘণ্টা, মার্চ ০২, ২০২১
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa