ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৮ মে ২০২৪, ১৯ জিলকদ ১৪৪৫

নির্বাচন ও ইসি

বরিশালের দুই পৌরসভায় প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ 

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৪৮ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১১, ২০২০
বরিশালের দুই পৌরসভায় প্রতিদ্বন্দ্বী  প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ  প্রতিদ্বন্ধি প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ অনুষ্ঠান

বরিশাল: বরিশাল জেলায় দু’টি পৌরসভায় প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। এ সময় প্রার্থীদের সঙ্গে মতবিনিময় এবং ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিন বা ইভিএম পদ্ধতি সম্পর্কে প্রার্থীদের সম্যক ধারণা দেওয়া হয়।

শুক্রবার (১১ ডিসেম্বর) বেলা ১১টায় নগরের কাশীপুরে আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা কার্যালয়ের হলরুমে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রার্থীদের হাতে প্রতীক তুলে দেন রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. নুরুল আলম।

প্রথমে বাকেরগঞ্জ পৌরসভায় মেয়র পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী লোকমান হোসেন ডাকুয়া, বিএনপির এসএম মনিরুজ্জামান এবং ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মাওলানা খলিলুর রহমানের হাতে তাদের নিজ নিজ দলের প্রতীক তুলে দেন রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. নুরুল আলম। পরে ওই পৌরসভার ৯টি সাধারণ ওয়ার্ডের ২৫ জন এবং ৩টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডের ৯ জন কাউন্সিলর প্রার্থীর হাতে প্রতীক তুলে দেন তিনি।

একইভাবে, বিকেল ৩টায় উজিরপুর পৌরসভায় মেয়র পদে আওয়ামী লীগের গিয়াস উদ্দিন বেপারী, বিএনপির মো. শহিদুল ইসলাম খান এবং ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের কাজী শহিদুল ইসলামের হাতে তাদের নিজ নিজ দলের প্রতীক তুলে দেন রিটার্নিং কর্মকর্তা। একই সময় উজিরপুর পৌরসভার ৩টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ৯ জন এবং ৯টি সাধারণ ওয়ার্ডে ২৪ জন কাউন্সিলর প্রার্থীর হাতে প্রতীক তুলে দেওয়া হয়।

প্রথম ধাপে আগামী ২৮ ডিসেম্বর ওই দু’টি পৌরসভায় ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিন বা ইভিএম পদ্ধতিতে ভোটগ্রহণ করা হবে।

এদিকে প্রতীক বরাদ্দের সময় পৃথক মতবিনিময় সভায় প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের নির্বাচনী আচরনবিধি মেনে চলার পরামর্শ দেন রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. নুরুল আলম। এ সময় তাদের ইভিএম পদ্ধতি সম্পর্কেও বাস্তব ধারণা দেওয়া হয়।

এদিন প্রতীক বরাদ্দ পেয়ে নিজ নিজ এলাকায় ফিরেই আনুষ্ঠানিকভাবে গনসংযোগে নেমে পড়েন মেয়র, কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর প্রার্থীরা।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৪৬ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১১, ২০২০
এমএস/এমআরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।