ঢাকা, রবিবার, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২২ মে ২০২২, ২০ শাওয়াল ১৪৪৩

নির্বাচন ও ইসি

মন্ত্রণালয়ের কাছে ভোট উপযোগী পৌরসভার তথ্য চাইলো ইসি

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৫২ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ৯, ২০২০
মন্ত্রণালয়ের কাছে ভোট উপযোগী পৌরসভার তথ্য চাইলো ইসি নির্বাচন ভবন

ঢাকা: সারাদেশে নির্বাচন উপযোগী পৌরসভার তথ্য চেয়ে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়কে চিঠি দিয়েছে নির্বান কমিশন (ইসি)।

স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিবের কাছে এ সংক্রান্ত তথ্য চেয়ে বুধবার (০৯ সেপ্টেম্বর) চিঠি পাঠিয়েছেন ইসির উপ-সচিব মো. আতিয়ার রহমান।

এতে উল্লেখ বলা হয়েছে পৌরসভা সাধারণ নির্বাচনের প্রস্তুতি গ্রহণের লক্ষ্যে নিম্নরূপ তথ্য প্রয়োজন:
(ক) সর্বশেষ নির্বাচন অনুষ্ঠানের পর শপথ ও মেয়াদ উত্তীর্ণের তারিখ;
(খ) সীমানা পরিবর্তন বা ওয়ার্ড বিভক্তিকরণ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে এমন পৌরসভার বিবরণী;
(গ) সীমানা বা ওয়ার্ড বিন্যাসজনিত কারণে স্থগিত অথবা ইতঃপূর্বে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়নি এরূপ পৌরসভার তথ্য ও সর্বশেষ অবস্থা;
(ঘ) মামলাজনিত কারণে ইতঃপূর্বে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়নি অথবা নির্বাচন স্থগিত হয়েছে এরূপ পৌরসভার তথ্যসহ মামলার বর্তমান অবস্থা।

ইসি কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ২০১৫ সালের ৩০ ডিসেম্বর একযোগে ২৩৪টি পৌরসভায় ভোটগ্রহণ করা হয়। নির্বাচনের পর বেশির ভাগ মেয়র ও কাউন্সিলর ২০১৬ সালের জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারিতে শপথ নেন। আর ফেব্রুয়ারির মধ্যে তাদের প্রথম সভা অনুষ্ঠিত হয়। পৌরসভার মেয়াদ হচ্ছে প্রথম সভা থেকে পরবর্তী পাঁচ বছর। এ ক্ষেত্রে আগামী ফেব্রুয়ারির মধ্যে ওই সব পৌরসভার মেয়াদ শেষ হবে।

নির্বাচনী আইন অনুযায়ী পৌরসভার মেয়াদ শেষ হওয়ার আগে ৯০ দিনের মধ্যে ভোটগ্রহণ করার বিধান রয়েছে। এ ক্ষেত্রে আগামী ফেব্রুয়ারির মধ্যে আড়াই শতাধিক পৌরসভায় ভোট করতে হবে।

ইসি সচিব মো. আলমগীর জানিয়েছেন, একযোগে পৌরসভা ভোটের জন্য প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। জানুয়ারির দিকে ভোট হতে পারে। আমরা স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের কাছে নির্বাচন উপযোগী পৌরসভার তথ্য চেয়েছি। তারা তথ্য দিলে ভোটের সময় নির্ধারণ করবে কমিশন।

বাংলাদেশ সময়: ২০৫০ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ০৯, ২০২০
ইইউডি/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa