[x]
[x]
bangla news

এনআইডি নবায়নে ছাড় দিল ইসি

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০৬-২০ ২:২৮:৫৬ পিএম
ছবি: প্রতীকী

ছবি: প্রতীকী

ঢাকা: জাতীয় পরিচয়পত্রের (এনআইডি) মেয়াদ শেষ? চিন্তার কিছু নেই। এখন থেকে মেয়াদোত্তীর্ণের কারণে সেবা পেতে কোনো অসুবিধা হবে না। কেননা এনআইডি নবায়নে নাগরিকদের ছাড় দিল নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন আইন অনুযায়ী, মেয়াদ শেষ হলে নির্দিষ্ট অর্থ পরিশোধ করে এনআইডি নবায়নের বিধান রয়েছে। অনেকের এনআইডির মেয়াদ ইতোমধ্যে শেষ হয়ে গেছে। ফলে তারা বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের সেবা পাওয়া থেকেও বঞ্চিত হচ্ছিলেন। তাই 'আপাতত' নবায়নের বাধ্যবাধকতা তুলে দেওয়া হয়েছে।

এছাড়া সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানগুলোকে মেয়াদোত্তীর্ণজনিত কারণে কাউকে সেবা প্রদান থেকে বিরত না থাকার নির্দেশনাও দিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

এনআইডি অনুবিভাগের কমিউনিকেশন শাখার অফিসার ইনচার্জ স্কোয়াড্রন লীডার কাজী আশিকুজ্জামান জানিয়েছেন, যেসব সাময়িক জাতীয় পরিচয়পত্রের মেয়াদ ইস্যুর তারিখ থেকে দুই বছর ছিল, সেসব জাতীয় পরিচয়পত্রের মেয়াদ অনির্দিষ্ট সময়ের জন্য বর্ধিত করা হলো। ফলে সব প্রকার সাময়িক জাতীয় পরিচয়পত্র এখন থেকে বৈধ হিসেবে ব্যবহার করা যাবে।

সব সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান সেবা গ্রহীতার কার্ড এনআইডি সিস্টেম থেকে চেক করে প্রয়োজনীয় সেবা প্রদান করতে পারবেন।

মেয়াদের কারণে সেবা গ্রহীতাকে কোনো সেবা প্রদান থেকে বঞ্চিত না করার জন্য অনুরোধ করা হলো।

এছাড়াও যাদের জাতীয় পরিচয়পত্রের পেছনে মেয়াদ উল্লেখ আছে তারা প্রয়োজনে  https://services.nidw.gov.bd লিংকে গিয়ে রেজিস্ট্রেশন করে ডাউনলোড অপশন থেকে বিনামূল্যে জাতীয় পরিচয়পত্র (মেয়াদ উল্লেখ ব্যতীত ও অফিস থেকে প্রাপ্ত কার্ডের মতো রঙ্গিন) ডাউনলোড পূর্বক মুদ্রণ ও লেমিনেটিং করে ব্যবহার করতে পারবেন।

জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন আইনে এনআইডি মেয়াদ উল্লেখ করা হয়েছে দশ বছর। কিন্তু লেমিনেটিং করা এনআইডির পেছনে দুই বছর মেয়াদ দিয়েও অনেককে কার্ড সরবরাহ করেছে ইসি।

দেশে বর্তমান ভোটার সংখ্যা ১১ কোটি। যার মধ্যে প্রায় দশ কোটি নাগরিকের হাতে এনআইডি রয়েছে। এদের অর্ধেক পেয়েছে স্মার্টকার্ড।

বাংলাদেশ সময়: ১৪২৭ ঘণ্টা, জুন ২০, ২০২০
ইইউডি/আরবি/

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   নির্বাচন কমিশন
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

নির্বাচন ও ইসি বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa
cache_14 2020-06-20 14:28:56