ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৩ কার্তিক ১৪২৭, ২৯ অক্টোবর ২০২০, ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

নির্বাচন ও ইসি

সিলেটের ২ সংরক্ষিত আসনে বসতে চান ২৫ নারী

নাসির উদ্দিন, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০০৫ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১, ২০১৯
সিলেটের ২ সংরক্ষিত আসনে বসতে চান ২৫ নারী

সিলেট: একাদশ সংসদ নির্বাচনে নিরঙ্কুশ বিজয় লাভের পর সরকার গঠন করেছে আওয়ামী লীগ। ৩০০ আসনে সরাসরি নির্বাচনের পর এখন মনোযোগ ৫০ সংরক্ষিত আসনের নির্বাচন নিয়ে। আগামী রোববার (৩ ফেব্রুয়ারি) এ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার কথা রয়েছে।

সিলেট বিভাগের দু’টি সংরক্ষিত নারী আসনে আওয়ামী লীগ থেকে প্রার্থী হতে চান দুই ডজনের অধিকও প্রার্থী। তারা দলীয় মনোনয়ন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার পর চালিয়ে যাচ্ছেন দৌড়ঝাপ।


সিলেট বিভাগে সংরক্ষিত কোটায় দু’টি আসন হলো (সিলেট-হবিগঞ্জ) ও (সুনামগঞ্জ-মৌলভীবাজার)। দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর এই দু’টি আসন থেকে যথাক্রমে আমাতুল কিবরিয়া কেয়া চৌধুরী এবং শাহানা রব্বানী প্রতিনিধিত্ব করেন।

এবার জনপ্রিয়তা যাচাই করতে সরাসরি ভোটে প্রার্থী হতে চেয়েছিলেন দু’জন। কিন্তু দলের মনোনয়ন না পাওয়ায় নিরাশ থাকতে হয় তাদের। তবে সংরক্ষিত আসনেই এমপি হতে আবারও দলের মনোনয়ন কিনেছেন তারা। আর তাদের চ্যালেঞ্জ করে এবার সংরক্ষিত নারী কোটায় মনোনয়নপত্র কিনেছেন আরও ২৩ জন।

সংসদ সদস্য আমাতুল কিবরিয়া কেয়া চৌধুরী ছাড়াও সিলেট-হবিগঞ্জ সংরক্ষিত আসনের মনোনয়নপত্র সংগ্রহকারীদের তালিকায় আছেন- সাবেক সংসদ সদস্য সৈয়দা জেবুন্নেছা হক, সিলেট সিটি করপোরেশনের (সিসিক) প্যানেল মেয়র ও মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শাহানা বেগম, মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসমা কামরান, জেলা আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক নাজনীন হোসেন, রুবী ফাতেমা ইসলাম, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক হেলেন আহমদ, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সম্পাদক মাধুরী গুন, জেলা পরিষদ সদস্য রওশন জেবীন রুবা, সিলেট উইমেন চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি স্বর্ণলতা রায়, দলের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য ডা. নাজরা চৌধুরী, কেন্দ্রীয় তথ্য ও গবেষণা উপ-কমিটি’র সদস্য শিততুল মুনা (মুনা চৌধুরী), জেলা যুব মহিলা লীগের সভাপতি নাজনীন আক্তার কণা, সাবেক কাউন্সিলর শামীমা স্বাধীন।
 
মৌলভীবাজার-সুনামগঞ্জ আসনে সুনামগঞ্জ জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট শাহানা রব্বানী ছাড়াও মনোনয়নপ্রত্যাশী হলেন- বাংলাদেশ মহিলা আওয়ামী লীগের সহ-আইন বিষয়ক সম্পাদক ব্যারিস্টার সীমা করিম, সাবেক সংসদ সদস্য সায়েরা মহসীন, মৌলভীবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি হোসনে আরা ওয়াহিদ, মৌলভীবাজার জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জোহরা আলাউদ্দিন, কৃষিবিদ ফেরদৌসী আরা পারভিন, সাধারণ সম্পাদক হোসনা হুদা, কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় নেত্রী অ্যাডভোকেট শামীমা শাহরিয়ার, সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদ সদস্য সাবিনা আনোয়ার, মোনতাকিন রিতু ও সুনামগঞ্জ জেলা যুব মহিলা লীগের সানজিদা আক্তার ডায়না।  

এদের মধ্যে আমাতুল কিবরিয়া কেয়া হবিগঞ্জ-১ আসনে, অ্যাডভোকেট শামসুন্নাহার বেগম (শাহানা রব্বানী) সুনামগঞ্জ-৪, সৈয়দা সায়রা মহসিন মৌলভীবাজার-৩ আসন, শামীমা শাহরিয়ার সুনামগঞ্জ-১ আসনে সরাসরি নির্বাচনে প্রার্থী হতে চেয়েছিলেন। কিন্তু দল মনোনয়ন না দেওয়ায় তাদের সে আশা আপূর্ণ থেকে যায়।

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সদস্য ও মহানগরের সভাপতি এবং সাবেক সিটি করপোরেশনের মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরান এ বিষয়ে বাংলানিউজকে বলেন, সংরক্ষিত আসনে দলের অনেক প্রার্থীই মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন। বিভাগের চার জেলা থেকে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ ও জমাদানকারী প্রার্থীদের সঠিক সংখ্যা জানা নেই। তবে ৩ ফেব্রুয়ারি সংরক্ষিত আসনের তফসিল ঘোষণা করার কথা রয়েছে।
 
বাংলাদেশ সময়: ১৪৫৬ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০১, ২০১৯
এনইউ/এইচএ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa