ঢাকা, শনিবার, ৪ আশ্বিন ১৪২৭, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০০ সফর ১৪৪২

নির্বাচন ও ইসি

রেজা কিবরিয়ার বাসায় পুলিশি তল্লাশি, গ্রামবাসীর অবস্থান

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০০৪৬ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৭, ২০১৮
রেজা কিবরিয়ার বাসায় পুলিশি তল্লাশি, গ্রামবাসীর অবস্থান রেজা কিবরিয়ার বাসায় পুলিশি তল্লাশি। ছবি-বাংলানিউজ

হবিগঞ্জ: হবিগঞ্জ-১ আসনে (নবীগঞ্জ-বাহুবল) জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী ড. রেজা কিবরিয়ার গ্রামের বাড়িতে এজাহারভুক্ত আসামির খোঁজে তল্লাশি চালিয়েছে পুলিশ।

বুধবার (২৬ ডিসেম্বর) বিকেলে নবীগঞ্জ উপজেলার জালালশাপ গ্রামে তার বাড়িতে পুলিশি তল্লাশি চালানো হয়। এসময় গ্রামের লোকজন লাঠিসোটা নিয়ে রেজা কিবরিয়ার বাড়িতে অবস্থান নেন।

পরে আসামি না পেয়ে পুলিশের টহল দলটি বাড়ি থেকে বের হয়ে পাশের গোপলাবাজার পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে অবস্থান নেয়।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত ১৯ ডিসেম্বর স্থানীয় বান্দেরবাজার এলাকায় নবীগঞ্জ উপজেলার ইনাতগঞ্জ ইউনিয়নের যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক জামাল আহমদ সুমনের ওপর হামলার অভিযোগ রয়েছে রেজা কিবরিয়ার সমর্থকদের বিরুদ্ধে। রেজা কিবরিয়ার বাড়িতে ওই অভিযোগে দায়ের করা মামলার প্রধান আসামি উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান সেফু অবস্থান করছেন খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে অভিযান চালায়। এদিকে, রেজা কিবরিয়ার বাড়িতে পুলিশ আসার খবর আশপাশে ছড়িয়ে পড়লে তার গ্রামের শত শত লোক লাঠিসোটা নিয়ে সেখানে অবস্থান নেন। পরে পুলিশ সেখান থেকে স্থানীয় পুলিশ ফাঁড়িতে চলে যায়।  

এ ব্যাপারে ড. রেজা কিবরিয়ার একান্ত সহকারী সোহরাব হোসেন মাহদি ও শাহাবুদ্দিন শুভ জানান, তারা বাসায় অবস্থান করছিলেন। এসময় হঠাৎ একদল পুলিশ এসে বাসায় তল্লাশি চালায়। পুলিশ আসামি ধরার নাম করে দুই তলা বাড়ির বিভিন্ন কক্ষে গিয়ে মালপত্র তছনছ করতে থাকে। একপর্যায়ে গ্রামবাসী চলে এলে পুলিশ চলে যায়।

নবীগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) সামছুল ইসলাম বলেন, কিবরিয়ার বাড়িতে এজাহারভুক্ত আসামি মুজিবুর রহমান সেফু রেজা অবস্থান করছেন এমন খবরে পুলিশ অভিযান চালায়। তখন মাইকে অপপ্রচার করে গ্রামবাসীকে বিভ্রান্ত করে পুলিশের কাজে বাধা দেওয়া হয়। পরে আসামি না পেয়ে আমরা চলে আসি।

এদিকে, ড. রেজা কিবরিয়ার ফেসবুক পেইজে এক ভিডিও বার্তায় ও স্ট্যাটাস দিয়ে তিনি জানান, তার বাসায় পুলিশ হামলা চালিয়েছে।  তল্লাশি চলাকালে মাইকে যে ঘোষণা দেওয়া হয় সেটা ফেসবুকে আপলোড করা হয়। তল্লাশি চলাকালে নবীগঞ্জ উপজেলার এক নম্বর বড় ভাকৈর ইউনিয়নে নির্বাচনী প্রচারণায় ছিলেন তিনি।

ড. রেজা কিবরিয়া বলেন, আমাকে হয়রানি করার জন্যই এ তল্লাশি চালানো হয়েছে।
 

বাংলাদেশ সময়: ১৯৪০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৬, ২০১৮
এসআই

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa