[x]
[x]
bangla news

এবার গ্রাম পুলিশও ভোটের নিরাপত্তায় রাখবে ইসি

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-১১-২৭ ৯:১১:১৫ পিএম
গ্রাম পুলিশ

গ্রাম পুলিশ

ঢাকা: আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোটের নিরাপত্তায় গ্রাম পুলিশ নিয়োজিত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। তবে তাদের হাতে অস্ত্র থাকবে না।

নির্বাচনে সশস্ত্র বাহিনী, কোস্ট গার্ড, আনাসার, পুলিশ ও র‍্যাবকে নিয়োজিত করা হয়। কিন্তু এবারই প্রথম প্রান্তিক এ নিরাপত্তা রক্ষীদের নিয়োজিত করা হচ্ছে।
 
সারাদেশে দফাদার ও মহল্লাদার মিলিয়ে গ্রাম পুলিশের সংখ্যা ৪৫ হাজার ৫শ জনের মতো। ইউনিয়ন পরিষদের অধীন এ নিরাপত্তারক্ষীরা স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের কর্মচারী।
 
নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ মঙ্গলবার (২৭ নভেম্বর) নির্বাচন ভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান।
 
কমিশনের নির্বাচন ব্যবস্থাপনা শাখা থেকে জানা গেছে, এবারের নির্বাচনে সাতশ কোটি টাকার বাজেট রাখা হয়েছে। যার দুই তৃতীয়াংশ ব্যয় হবে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পেছনে। তবে খাত অনুযায়ী বরাদ্দ এখনো চূড়ান্ত হয়নি।
 
আগামী ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ সময় ২৮ নভেম্বর। মনোনয়নপত্র বাছাই ২ ডিসেম্বর। প্রার্থিতা প্রত্যাহার ৯ডিসেম্বর। আর প্রতীক বরাদ্দ ১০ ডিসেম্বর।
 
বাংলাদেশ সময়: ২১০৭ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৭, ২০১৮
ইইউডি/এসএইচ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   নির্বাচন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

নির্বাচন ও ইসি বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa
cache_14 2018-11-27 21:11:15