ঢাকা, রবিবার, ৮ কার্তিক ১৪২৮, ২৪ অক্টোবর ২০২১, ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

নির্বাচন ও ইসি

আলফাডাঙ্গার চার নির্বাচনে আ.লীগের শত্রু আ’লীগ

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪০২ ঘণ্টা, নভেম্বর ৩০, ২০১৭
আলফাডাঙ্গার চার নির্বাচনে আ.লীগের শত্রু আ’লীগ আলফাডাঙ্গার চার নির্বাচনের প্রার্থীরা।

ফরিদপুর:  আগামী ২৮ ডিসেম্বর ফরিদপুরের নবগঠিত আলফাডাঙ্গা পৌরসভা ও তিনটি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। ২৯ নভেম্বর বুধবার নির্বাচনের প্রার্থিতা যাচাই-বাছাইও সম্পন্ন হয়েছে।

এতে দেখা গেছে, পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপির একক প্রার্থী থাকলেও আওয়ামী লীগের একাধিক বিদ্রোহী প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। আর তিনটি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বিএনপি কোনো প্রার্থী দিতে না পারলেও আওয়ামী লীগের নেতা বা কর্মীই আবির্ভূত হয়েছেন বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে।

 

আলফাডাঙ্গা পৌরসভায় মেয়র পদে ৫ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা  করছেন। এরমধ্যে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সাইফুর রহমান সাইফার। বিএনপি মনোনীত প্রার্থী উপজেলা বিএনপির প্রচার সম্পাদক খান আতাউর রহমান।

এখানে আওয়ামী লীগের দুজন বিদ্রোহী প্রার্থী হলেন- উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মকিবুল হাসান পুটু মিয়া, উপজেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য সামসুদ্দীন হাসু। স্বতন্ত্র প্রার্থী সৈয়দ আশরাফ আলী বাশার।

আলফাডাঙ্গা সদর ইউনিয়ন
আলফাডাঙ্গা সদর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক। আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান এ কেএম আহাদুল হাসান আহাদ।

গোপালপুর ইউনিয়ন
গোপালপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ফরিদপুর জেলা ছাত্রলীগের অন্যতম সহ-সভাপতি ইনামুল হাসান। এ ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম। স্বতন্ত্র প্রার্থী ইতালি প্রবাসী শেখ আব্দুর রহমান জিকু ও সৈয়দ মাসুদ রানা।

বুড়াইচ ইউনিয়ন
বুড়াইচ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী উপজেলা যুবলীগ সভাপতি আহসান উদ্দৌলা রানা। এ ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য, বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর ওহাব পান্নু, একই ইউনিয়নের ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম। এছাড়া স্বতন্ত্র প্রার্থী ওবায়দুর রহমান ও আবু মুসা।

নির্বাচনের বিদ্রোহী প্রার্থিতা নিয়ে আলফাডাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুল বাশার মিয়া বাংলানিউজকে বলেন, আলফাডাঙ্গায় আওয়ামী লীগ বাদ দিলে কিছু থাকে না। এখানে মনোনয়ন দেওয়াটা খুব কঠিন ব্যাপার। কেন্দ্রীয়ভাবে যারা মনোনয়ন পেয়েছেন দলীয় নেতাকর্মী তাদের পক্ষেই কাজ করবে। যারা বিদ্রোহী হয়েছেন তাদের ব্যাপারে শুক্রবার (১ ডিসেম্বর) সভা করে সিদ্ধান্ত জেলার সভাপতি-সম্পাদকের কাছে পাঠানো হবে। তাদের নির্দেশ অনুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ফরিদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মাসুদ হোসেন বাংলানিউজকে বলেন, দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ করে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করার কোন সুযোগ নেই। দলের পদ-পদবি থাকা সত্ত্বেও যারা দলীয় প্রার্থীর বিরুদ্ধে নির্বাচনে অংশ নিয়েছেন তাদের বিরুদ্ধে অতিসত্বর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
ফরিদপুর জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি সুবল চন্দ্র সাহা বলেন, যত দ্রুত সম্ভব গঠনতন্ত্র অনুযায়ী বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৩০ ঘণ্টা, নভেম্বর ৩০, ২০১৭
জেডএম/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa