ঢাকা, শনিবার, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৭ নভেম্বর ২০২১, ২১ রবিউস সানি ১৪৪৩

নির্বাচন ও ইসি

রসিক নির্বাচনের আগাম প্রচারণা বৃহস্পতিবারের মধ্যে বন্ধ

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০২৪ ঘণ্টা, নভেম্বর ১, ২০১৭
রসিক নির্বাচনের আগাম প্রচারণা বৃহস্পতিবারের মধ্যে বন্ধ

ঢাকা: রংপুর সিটি করপোরেশন (রসিক) নির্বাচনের সম্ভাব্য প্রার্থীদের সব ধরনের আগাম প্রচারণা বৃহস্পতিবারের (০২ নভেম্বর) মধ্যে সরিয়ে ফেলতে নির্দেশ দিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। নির্দেশনা অমান্য করলে কোনো প্রার্থী বিজয়ী হলেও জরিমানসহ কারাদণ্ড দেওয়ার বিধান রয়েছে আইনে।

বুধবার (০১ নভেম্বর) ইসির নির্বাচন পরিচালনা শাখার যুগ্মসচিব (চলতি দায়িত্ব) ফরহাদ আহম্মদ খান বিভাগীয় রংপুর কমিশনারের কাছে এমন নির্দেশনা সম্বলিত চিঠি পাঠিয়েছেন। তবে নির্বাচনের তফসিল এখনো ঘোষণা করা হয়নি।

ইসির ভারপ্রাপ্ত সচিব জানিয়েছেন, আগামী ৫ নভেম্বর এ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা হবে। ভোটগ্রহণ হবে ২১ ডিসেম্বর।
 
নির্দেশনায় রংপুর বিভাগীয় কমিশনারকে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার কথা উল্লেখ করে চিঠিতে সম্ভাব্য প্রার্থীদের নিজ উদ্যোগে প্রচারণা সামগ্রী সরিয়ে ফেলার কথা বলা হয়েছে। সাধারণত নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে প্রচার সামগ্রী সরিয়ে ফেলার নির্দেশনা দেওয়ার রীতি থাকলেও এবার আগেই হুঁশিয়ারি দিল সংস্থাটি।
 
সিটি করপোরেশন নির্বাচন আইন অনুযায়ী, মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণার আগে কোনো প্রার্থী প্রচারণায় যেতে পারে না। তবে প্রতীক নিয়ে প্রচারণায় যেতে পারেন প্রতীক বরাদ্দের পর। তাই নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর থেকে মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণার সময় পর্যন্ত দেয়াল লিখন, পোস্টার, বিলবোর্ড, ব্যানার, তোরণ ও গেট নির্মাণসহ সব ধরনের প্রচার নিষিদ্ধ। এছাড়া ভোটগ্রহণের ৩২ ঘণ্টা আগেও সব ধরনের প্রচারণা, শোডাউন, মিছিল বন্ধ করতে হয়, নির্বাচনের ফল ঘোষণার পরের দিন পর্যন্ত।
 
আইন অনুযায়ী, এ বিধান লঙ্ঘনকারীর বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ ৫০ হাজার টাকা ও সর্বোচ্চ ৩০ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের কথা বলা আছে।
 
বাংলাদেশ সময়: ১৬২২ ঘণ্টা, নভেম্বর ০১, ২০১৭
ইইউডি/জেডএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa