ঢাকা, সোমবার, ১১ আষাঢ় ১৪৩১, ২৪ জুন ২০২৪, ১৬ জিলহজ ১৪৪৫

নির্বাচন ও ইসি

ঘিওরে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে গিয়ে ভোট চাইছেন জনির স্বজনরা 

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৩৭ ঘণ্টা, মে ১৯, ২০২৪
ঘিওরে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে গিয়ে ভোট চাইছেন জনির স্বজনরা 

মানিকগঞ্জ: দ্বিতীয় ধাপে ২১ মে অনুষ্ঠিত হবে ঘিওর উপজেলা পরিষদ নির্বাচন। তাই শেষ মুহূর্তে জমে উঠেছে প্রচার-প্রচারণা।

এরই ধারাবাহিকতায় মাঠে নেমেছেন শালিক প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী মাহাবুবুর রহমান জনির পরিবারের সদস্যরা। তারা ভোটারদের দ্বারে দ্বারে গিয়ে ভোট চাইছেন শালিক প্রতীকের জন্য।  

রোববার (১৯ মে) দুপুরের দিকে উপজেলার বিভিন্ন পাড়া-মহল্লা, বাজারে গিয়ে ভোটারদের কাছে দোয়া ও ভোট চেয়েছেন শালিক প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থীর স্বজন ও সমর্থকরা।  

উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় শেষ মুহূর্তের প্রচারণায় ব্যস্ত সময় পার করছেন প্রার্থী, স্বজন, কর্মী ও সমর্থকরা।

সৎ, যোগ্য, নিষ্ঠাবান ও আদর্শবান মানুষ হওয়ায় মাহাবুবুর রহমান জনির দিকে ঝুঁকেছেন ভোটাররা- এমনটাই মনে করছেন স্থানীয়রা।

উপজেলার বালিয়াখোড়া এলাকার কপিল উদ্দিন বলেন, আমাদের এ অঞ্চলে জনির জনপ্রিয়তা আজ থেকে নয়, দীর্ঘ দিনের। এ কারণে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে গিয়ে খালি হাতে ফিরছেন না প্রার্থী ও তার স্বজন-কর্মী-সমর্থকরা।  

হাফেজ মোহাম্মদ আবুল হোসেন নামে এক ভোটার বলেন, উপজেলা নির্বাচন এসেছে, অনেক প্রার্থী বিভিন্ন প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন। গত কয়েকটি বছর ধরে প্রায় প্রতিটি মসজিদ, মাদরাসা ও কবরস্থানের উন্নয়নে কাজ করেছেন মাহাবুবুর রহমান জনি। এ ধরনের জনবান্ধব প্রার্থীকেই উপজেলাবাসী চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত করবেন বলে আমি বিশ্বাস করি।

লালচান মিয়া নামে এক চায়ের দোকানি বলেন, শালিক প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থীকে আমি আজ নতুন করে চিনি নি, তাকে চিনি-জানি ২০ বছর আগে থেকে। এবারের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে তিনি চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হয়েছেন, তার জন্য সব শ্রেণি-পেশার মানুষ ভোট চায়, প্রাথমিক বিজয় তার এখানেই হয়েছে। আগামী ২১ মে সারা দিন শালিক প্রতীকে ভোট দিয়ে ভোটাররা তাকে বিপুল ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী করবে ইনশাআল্লাহ।  

শালিক প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী মাহাবুবুর রহমান জনির ছোট ভাইয়ের স্ত্রী ফারজানা রহমান রিংকি বলেন, উপজেলার প্রায় প্রতিটি পাড়া-মহল্লায় ভোটারদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোট ও দোয়া চেয়েছি আমরা। প্রতিটি গ্রামের সব বয়সী ভোটাররা আমাদের যেভাবে আপন করে নিয়েছেন, তাতে আমার আশাবাদী যে আমাদের জয় হবে ইনশাআল্লাহ।  

বাংলাদেশ সময়: ১৭৩৫ ঘণ্টা, মে ১৯, ২০২৪
এসআই
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।