ঢাকা, সোমবার, ৩ আষাঢ় ১৪৩১, ১৭ জুন ২০২৪, ০৯ জিলহজ ১৪৪৫

নির্বাচন ও ইসি

ভাঙ্গা উপজেলা চেয়ারম্যান পদে স্বামী-স্ত্রীর লড়াই

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫০৯ ঘণ্টা, মে ১৯, ২০২৪
ভাঙ্গা উপজেলা চেয়ারম্যান পদে স্বামী-স্ত্রীর লড়াই

ফরিদপুর: ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে স্বামী-স্ত্রী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এছাড়াও তিনজন প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় রয়েছেন।

আগামী ২৯ মে ভাঙ্গা উপজেলায় তৃতীয় ধাপে ব্যালটের মাধ্যমে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

এলাকাবাসী ও নির্বাচন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, ভাঙ্গা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে এই প্রথম স্বামী-স্ত্রী লড়াই করছেন। প্রতীক বরাদ্দের পর স্বামী-স্ত্রী দুজনই প্রতীক নিয়ে নির্বাচনী মাঠে থাকায় নানান আলোচনা ও সমালোচনার ঝড় উঠছে। পাশাপাশি চায়ের দোকান থেকে শুরু করে বিভিন্ন মহলে সৃষ্টি হয়েছে কৌতূহল।

স্বামী মো. মোখলেছুর রহমান সুমন উপজেলা আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী ও কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক লীগের সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক। তিনি ভাঙ্গা উপজেলার আজিমনগর ইউনিয়নের ঈশ্বরদী গ্রামের হাজী ইরফান উদ্দিন মাতুব্বরের ছেলে। তিনি ঘোড়া প্রতীক নিয়ে নির্বাচনী মাঠ রয়েছেন।  

এদিকে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন মোখলেসুর রহমান সুমনের স্ত্রী লোপা রহমান। তিনি আনারস প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।  

এছাড়াও অপর তিন প্রার্থীরা হলেন- ফরিদপুর-৪ আসনের সংসদ সদস্য মজিবুর রহমান চৌধুরী নিক্সন সমর্থিত ৭ নম্বর আলগী ইউনিয়ন পরিষদের দুইবারের চেয়ারম্যান মো. কাওছার ভুঁইয়া, লায়ন মো. সহিদুল ইসলাম ও মাইনুল ইসলাম খান।

এ ব্যাপারে মো. মোখলেছুর রহমান সুমনের মোবাইলে যোগাযোগ করা হলে স্বামী-স্ত্রী দুইজনে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি কোনো মন্তব্য না করে ব্যস্ত আছি জানিয়ে মোবাইল সংযোগ কেটে দেন।  

এর সত্যতা নিশ্চিত করে ভাঙ্গা উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. হাচেন উদ্দিন বলেন, উপজেলা নির্বাচনে স্বামী-স্ত্রী দুইজন চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন এবং নির্বাচনী মাঠে রয়েছেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৫০৮ ঘণ্টা, মে ১৯, ২০২৪
এসএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।