ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৬ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৮ শাবান ১৪৪৫

নির্বাচন ও ইসি

নওগাঁ-২ আসন

দুপুর ২টা পর্যন্ত ভোট পড়েছে ৪১ দশমিক ৬১ শতাংশ

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪৫৯ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১২, ২০২৪
দুপুর ২টা পর্যন্ত ভোট পড়েছে ৪১ দশমিক ৬১ শতাংশ

নওগাঁ: দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে স্থগিত হওয়া নওগাঁ-২ (পত্নীতলা-ধামইরহাট) আসনের নির্বাচনে এখন পর্যন্ত ভোট জমা পড়েছে ৪১ দশমিক ৬১ শতাংশ।

দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও প্রশাসক গোলাম মাওলা।

তিনি আরও বলেন, সকাল ৮ টা থেকে শুরু হওয়া ভোট চলবে বিকেল ৪ টা পর্যন্ত। ১০টায় ভোট পড়েছে ৮ শতাংশ এবং দুপুর ১২টায় ২৫ শতাংশ এবং সবশেষ দুপুর ২টায় রেকর্ড করা হয়েছে ৪১ দশমিক ৬১ শতাংশ।  

তিনি আরও বলের, উৎসবমুখর পরিবেশে সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন অনুষ্ঠানে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বিপুলসংখ্যক সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত কোথাও অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি। দুটি উপজেলায় মোট ১২৪টি ভোট কেন্দ্র ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এরমধ্যে প্রার্থীর বাড়ির আশপাশের কেন্দ্রগুলোকে গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণা করা হয়েছে। সেই কেন্দ্রগুলোতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বাড়তি সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে।

জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ রাশিদুল হক জানান, নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বাড়তি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। পুলিশ, আনসার সদস্যদের পাশাপাশি অন্যান্য আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী সদস্যরা কেন্দ্রগুলোতে মোতায়েন করা হয়েছে। যেকোনো ধরনের অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা এড়াতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী প্রস্তুত রয়েছে।  

তবে এখন পর্যন্ত কোনো বিশৃঙ্খলার সংবাদ পাওয়া যায়নি, সুন্দর ও সুষ্ঠুভাবে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হচ্ছে বলে জানান তিনি।

এ নির্বাচনে আসনটিতে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন চারজন প্রার্থী। জাপা ও দুই স্বতন্ত্র প্রার্থীর সঙ্গে লড়াই হবে নৌকার। প্রার্থীরা হলেন- আওয়ামী লীগের (নৌকা) সাবেক এমপি শহিদুজ্জামান সরকার, জাতীয় পার্টির (লাঙ্গল) তোফাজ্জল হোসেন, স্বতন্ত্র প্রার্থী এইচ এম আখতারুল আলম (ট্রাক) ও মেহেদী মাহমুদ রেজা (ঈগল পাখি)।

এ নির্বাচনে ভোটার রয়েছেন তিন লাখ ৫৬ হাজার ১৩২ জন। ভোটগ্রহণ হচ্ছে ১২৪টি কেন্দ্রে।

ভোটকেন্দ্রের নিরাপত্তায় সাধারণ কেন্দ্রে পুলিশ, আনসার, গ্রাম পুলিশ ও ব্যাটেলিয়ন আনসারে ১৬ জনের ফোর্স নিয়োজিত রাখা হয়েছে। আর ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রে নিয়োজিত রয়েছে ১৭ জনের ফোর্স।

এছাড়া ভোটের এলাকায় নিরাপত্তা নিশ্চিতে নিয়োজিত করা হয়েছে পুলিশ, এপিবিএন ও ব্যাটেলিয়ন আনসারের ৩১টি মোবাইল ও সাতটি স্ট্রাইকিং ফোর্স। দায়িত্ব পালন করছে র‌্যাবের চারটি টিম ও আট প্লাটুন বিজিবি।

এছাড়া আটজন নির্বাহী ও দুইজন বিচারিক ম্যাজিস্ট্রেটও দায়িত্ব পালন করছেন।

উল্লেখ্য, ধামইরহাট ও পত্নীতলা উপজেলা নিয়ে নওগাঁ-২ আসন। গত ২৯ ডিসেম্বর এই আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী আমিনুল হকের মৃত্যুতে নির্বাচন স্থগিত ঘোষণা করেন নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এরপর নতুন করে আবারও নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করেন নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

বাংলাদেশ সময়: ১৪৫৩ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১২, ২০২৪
এসএএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।