ঢাকা, মঙ্গলবার, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২১ মে ২০২৪, ১২ জিলকদ ১৪৪৫

নির্বাচন ও ইসি

ইভিএমের ভোটগ্রহণ: ধীরগতি নিয়ে উদ্বিগ্ন ইসি

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪৩৩ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১১, ২০২৩
ইভিএমের ভোটগ্রহণ: ধীরগতি নিয়ে উদ্বিগ্ন ইসি

ঢাকা: প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেছেন, ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোটগ্রহণের ধীরগতি আমাদের উদ্বিগ্ন করে তুললো।

বুধবার (১১ জানুয়ারি) সাংবাদিকদের সঙ্গে বৈঠক শেষে নির্বাচন ভবনে তিনি এমন মন্তব্য করেন।

রংপুর সিটি ভোটে ব্যাপক ধীরগতির কারণ জানতে এ বৈঠকের আয়োজন করে ইসি।

সিইসি হাবিবুল আউয়াল বলেন, আপনারা  ইতোমধ্যে জেনেছেন যে, আমরা কেন সভাটি আহ্বান করেছিলাম। সম্প্রতি রংপুরে সিটি করপোরেশনে যে নির্বাচনটি হয়েছে, নির্বাচন সুন্দর হয়েছে, সুষ্ঠু হয়েছে, অংশগ্রহণমূলক হয়েছে। কিন্তু কিছু সংকটের কথা বলা হয়েছে। কিছু অভিযোগ আমরা তখনই পাচ্ছিলাম মিডিয়ার সুবাদে। যেমন ভোট স্লো হচ্ছে, একটা বড় ধরনের অভিযোগ ছিল। কোনো কোনো ক্ষেত্রে ফিঙ্গার প্রিন্ট মিলছিল না।

তিনি বলেন, কেন ভোট বিলম্বিত হচ্ছে, এ অভিযোগটা এর আগে আমরা কখনো পাইনি। এটা আমাদেরকে খুব উদ্বিগ্ন করে তুললো। আমরা তখনই সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম যে, এ বিষয়গুলো যারা নির্বাচন পর্যবেক্ষণ করেছেন, যারা মিডিয়ার কর্মী হিসেবে সেখানে কাজ করেছেন এবং আমাদের নির্বাচন কর্মকর্তা সেখানে থেকে যারা নির্বাচন ম্যানেজ করেছেন তাদের আমরা সভায় আহ্বান করে ফিডব্যাক নেবো। কারণ আমরা যদি সরাসরি আপনাদের কাছ থেকে শুনতে না পাই। তাহলে আমাদের পক্ষে যে সঙ্কটটা হলো এটার কারণটা কিছুকিছু পেয়েছি পুরোটা আমরা এখনো পাইনি।

সিইসি বলেন, বৈঠকে পাওয়া মতামতগুলো পর্যালোচনা করে চেষ্টা করবো সঙ্কটগুলো ওভারকাম করার জন্য। একই সঙ্গে আপনাদের বলছি যে, অন্যান্য নির্বাচনগুলোতে কিন্তু আমরা এ সমস্যাগুলো পাইনি। আমাদের মিডিয়া কর্মীরা কিছু কিছু বলেছেন সেগুলো যৌক্তিক বলে মনে হয়েছে। যেটাই হোক ফিডব্যাক নেওয়ার দরকার ছিল। আমরা সেটি নিয়েছি। ফিডব্যাক নিয়ে আমরা নিজেদের মধ্যে আলোচনা করবো। আলাপ-আলোচনা করে এগুলোকে যতটা ওভারকাম করা সম্ভব আমরা সেটি চেষ্টা করবো। আমরা চাই স্বচ্ছ নির্বাচন, অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন, প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক নির্বাচন। সেখানে এ জিনিসগুলো আমাদের প্রত্যাশা। এ ব্যাপারে আপনারা আমাদের সবসময় সহযোগিতা করেছেন। সবসময় সহযোগিতা করবেন।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে সিইসি কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেন, আমাদের এখানে টেকনিক্যাল এক্সপার্ট যারা ছিলেন, মিডিয়া কর্মী যারা ছিলেন, তারা রিয়াল ফ্যাক্টটা তুলে ধরেছেন বিলম্ব হয়েছে। এখন টেকনিক্যাল এক্সপার্টদের সঙ্গে কথা বলবো যে, কেন বিলম্ব হলো, কেন মিললো না। তবে ফিঙ্গারপ্রিন্ট মেলে নাই এটা আমি বলেছি- না মেলার ঘটনাটি খুব বেশি ঘটেনি। কিন্তু বিলম্ব হয়েছে। বিলম্ব অনেক কারণেই হতে পারে। তবে আমরা এখনো এই বিষয়গুলো সঠিকভাবে জানি না। আমরা গভীরভাবে চিন্তা করবো। পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে নিরূপণ করার চেষ্টা করবো।  

বাংলাদেশ সময়: ১৪৩৩ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১১, ২০২৩
ইইউডি/আরআইএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।